চুলকানি দূর করার ঘরোয়া কিছু পদ্ধতি জেনে নিন

খুব সাধারণ কিন্তু বিরক্তিকর ও অসহ্যকর কিছু সমস্যার মধ্যে অন্যতম হলো চুলকানি।এটি এমন একটি সমস্যার নাম যা কিনা আপনাকে মাঝে মধ্যে এতোটাই অপ্রস্তুত করে ফেলে যেটার ব্যাখ্যা হয়তো বলে বোঝানো সম্ভব না। এমন পরিস্থিতির সম্মুখীন ও হতে হয় যে লোকের তোয়াক্কা না করে আপনাকে এক ঘর লোকের সামনেই চুলকাতে বাধ্য হতে হয়।অনেকের আবার গরমের সময় এই সমস্যা বেড়ে যায়। চুলকাণির জন্য বাজারে বিভিন্ন ওষুধ বা মলম পাওয়া গেলেও দেখা যায় এসব মলম ত্বকের জন্য ভীষণ ক্ষতিকারক। তাই আসুন দেখা যাক কিভাবে ঘরোয়া পদ্ধতিতেই আপনি আপনার চুলকানি সমস্যার সমাধান করতে পারেন।

%e0%a6%9a%e0%a7%81%e0%a6%b2%e0%a6%95%e0%a6%be%e0%a6%a8%e0%a6%bf

চুলকানি দূর করার ঘরোয়া কিছু পদ্ধতি জেনে নিন

 

আপেল সিডার ভিনেগারঃ-

চুলকাণি সারানোর একটি সহজ উপায় হলো আপেল সিডার ভিনেগার ব্যবহার। সামান্য কয়েক ফোঁটা ভিনেগার একটি তুলার বলে নিয়ে আপনার শরীরের চুলকানো অংশটিতে লাগিয়ে দিন। দ্রুত চুলকাণি কমে যাবে।

পেট্রোলিয়াম জেলিঃ-

আপনার ত্বক যদি সংবেদনশীল হয় তাহলে পেট্রোলিয়াম জেলি হচ্ছে চুলকাণি সারানোর সবচেয়ে উত্তম উপায়। পেট্রোলিয়াম জেলিতে কোন ক্ষতিকারক উপাদান না থাকায় এটি আপনার ত্বকের কোন সমস্যা না করেই চুলকানি সারিয়ে তুলবে।

নারিকেল তেলঃ-

চুলকাণি সারানোর আরও একটি সহজ ও সস্তা উপায় হচ্ছে নারিকেল তেল লাগানো। নারিকেল তেলের পুষ্টি উপাদান আপনার ত্বকের কোন ক্ষতি সাধন না করেই চুলকানি বন্ধ করতে সাহায্য করবে।

লেবুঃ-

লেবুর ভিটামিন সি কন্টেন্ট ও ব্লিচিং প্রোপার্টিজ ত্বকের চুলকাণি সারাতে খুব কার্যকরী। শরীরে চুলকাণি হলে একটি লেবু দুভাগে কেটে আপনার চুলকাণি জায়গায় লাগান এবং শুকিয়ে ফেলুন। এতেই চুলকাণি কমে যাবে।

বেকিং সোডাঃ-

এক ভাগ পানি ও তিন ভাগ বেকিং সোডা মিলিয়ে পেস্ট বানিয়ে সেই পেস্ট যদি আপনার শরীরের চুলকাণি জায়গায় লাগান তাহলে চুলকানি থেমে যাবে। আর এতে আপনার শরীরে কোন সমস্যা ও হবে না।

তুলসীঃ-

তুলসী পাতা চুলকাণি প্রতিরোধকারী উপাদানে ভরপুর। তাই শরীরে চুলকানি হলে তুলসী পাতা তুলে আক্রান্ত জায়গায় লাগাতে পারেন। আবার তুলসী পাতা চা আকারে জ্বালিয়ে সেই লিকার নরম কাপড় বা তুলার বলে লাগিয়ে চুলকাণি স্থানে লাগালে চুলকাণি সেরে যায়।

অ্যালোভেরাঃ-

ত্বকের যত্নে অ্যালোভেরার ব্যবহারের কথা তো সবাই জানেন। চুলকাণি প্রতিকারেও অ্যালোভেরার জুড়ি নেই। ত্বকের যে স্থানে চুলকাণি হচ্ছে সেখানে একটি তাজা অ্যালোভেরা পাতা থেকে রস বের করে লাগিয়ে রাখুন। চুলকাণি কমে যাবে কিছুক্ষণের মধ্যেই।

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About ফারজানা হোসেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *