মহান বিজয় দিবসে কেমন টিপ ব্যাবহার করবেন?

টিপ

মহান বিজয় দিবসে  টিপ

বাঙালি নারীর সাজের সঙ্গে আদিকাল থেকে জড়িয়ে আছে বাহারি রঙের টিপ। আধুনিকতার ছোঁয়ায় অনেক কিছু বিলিন হয়ে গেলেও টিপের কদর কমেনি এক ফোঁটাও। উৎসব আমেজে ভরপুর এই রীতিতে টিপ না হলে সাজের পূর্ণতাও কিছুটা কম থেকে যায়। নানা উৎসবে পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে টিপের রঙেও থাকে বিশিষ্টতা। বিজয় উৎসবও এর ব্যতিক্রম নয়। এদিনে পোশাকে যেমন থাকবে লাল-সবুজের সমারোহ, তেমনি টিপও থাকবে মানানসই।

 

আজ জেনে নেয়া যাক, বিজয় দিবসে আপনার কপালে শোভা পেতে পারে কেমন টিপে:
– বিজয় দিবসের আনন্দে সাজবে পুরো বাঙালি মন। লাল সবুজের পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে নারীদের কপালে শোভা পাবে স্পষ্ট একটি Tip। তবে সেই টিপের রং অবশ্যই লাল বা সবুজ হতে হবে। আলপনা টিপের সঙ্গে পাথর মিলিয়েও পরতে পারেন। যাতে আপনার টিপের উজ্জ্বলতা আরও বেশি বাড়ে।
– অনেকেই আছেন সম্পূর্ণ পোশাকটিই পরবেন সবুজ এবং বুকের ওপর থাকবে লাল গোলাকার। তারা কপালে বড় লাল Tip পরতে পারেন। আবার কারো পোশাকে লালের পরিমান বেশি থাকলে কপালে সবুজ টিপই বেশি মানাবে।
– অনেক সময় টিপের আঠার কারণে কপালে র্যাশ দেখা দেয়। সেই সমস্যা থেকে বাঁচার জন্যে টিপটি খোলার পরেই বেবি অয়েল বা লোশন দিয়ে আঠা মুছে ফেলুন। তাহলে আর সমস্যা হবে না।

– এই দিনে সাজের সঙ্গে বড় একটি Tip পরতেই পারেন। এক্ষেত্রে বড় একটি লাল টিপের ওপর নিচের দিকে অপেক্ষাকৃত ছোট একটি টিপ লাগতে পারেন। তাহলে লাল সবুজের বিজয়ের দিনে আপনার সাজে টিপটা মানিয়ে যাবে সহজেই।
– Tip অধিকাংশ সময় সাজের অনুষঙ্গ হয়। কিন্তু বিশেষ উৎসবে টিপের বিশিষ্টতা দিতে অবশ্যই গাঢ় রঙের বড় টিপই মানানসই। তাই লাল পরুন আর সবুজ পরুন তা যেন হয় গাঢ় রঙের।
– বিজয় দিবসের সাজে কপালে দুই ভ্রুর মাজখানে কুমকুম দিয়ে চারকোনা একটি সবুজ পতাকা আঁকতে পারেন। ঠিক তার মাঝখানে ছোট একটি লাল Tip দিয়ে দিতে পারেন। দেখবেন আপনার সাজে একটা আলাদা আবহ সৃষ্টি করছে।

 
– যাদের মুখমণ্ডল অপেক্ষাকৃত চিকন লম্বা, তারা মাঝারি আকারের টিপগুলো পরলে ভালো দেখাবে। Tip খুব বেশি বড় হলে মুখের সঙ্গে বেমানান লাগতে পারে।
– গোল চেহারার অধিকারীরা একটু লম্বাটে টিপ পরলেও ভালো দেখাবে। তাছাড়া যাদের মুখমণ্ডল একটু মোটা বা চ্যাপ্টা ধরনের তারা নি:সঙ্কোচে বড় একটি Tip কপালের ঠিক মাঝখানে লাগাতে পারেন।
– Tip বাছায়ের সময় অবশ্যই তার আঠার দিকে খেয়াল রাখবেন। বাজারে সব রকম টিপ পাওয়া যায়। একটু খুঁজে দেখলে পেয়ে যাবেন মনের মতো (Tip) । এক্ষেত্রে আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে যেন প্রতিটি টিপের পেছনে আঠা সাদা কাগজে আটকানো থাকে। যেনতেন Tip কিনলে দ্রুত কপাল থেকে পড়ে যাবে।

 

বাজারে আপনার জন্যে নানান রকমের টিপ রয়েছে। এসব থেকে আপনাকেই নিজের জন্যে বেছে নিতে হবে উপযুক্ত টিপটি। তবে সেজন্যে টিপের দরদাম জানাও জরুরি। বাজার ঘুরে দেখা যায় সাধারণ ছোট টিপের পাতা ১০ টাকা থেকে ২০ টাকার মধ্যে। আর বড় টিপের পাতা পাবেন ১০-৫০ টাকার মধ্যে। পাথরের একেকটি Tip কিনতে লাগবে ৫০ থেকে ৮০ টাকা।

 

যে কোন স্বাস্থ্য বিষয়ক তথ্যের জানান দিতে আপনার ডক্টর রয়েছে আপনাদের পাশে।জীবনকে সুস্থ্য, সুন্দর ও সুখময় করার জন্য নিয়মিত ভিজিট করুন আপনার ডক্টর health সাইটে।মনে না থাকলে আপনি সাইট আপনার ব্রাউজারে সেভ করে রাখুন।ধন্যবাদ

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About সাদিয়া প্রভা

সাদিয়া প্রভা , ইন্ডিয়ার Apex Group of Institutions এর BBA এর ছাত্রী ছিলাম। বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিয়সক তথ্য নিয়ে লেখালেখি করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *