ক্যান্সারের ঝুঁকি কমানোর ৮টি উপায় জেনে নিন

যেকোনো বয়সের মানুষই ক্যান্সারে আক্রান্ত হতে পারে। তবে বয়স বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে এ ঝুঁকি বাড়ে। বলা হয়ে থাকে, ৫০ বছর বা তার চেয়ে বেশি বয়সে এ মরণঘাতি রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা প্রকট। যাহোক, সুষ্ঠু, সুন্দর জীবন-যাপনের মাধ্যমে সহজেই এ ঘাতক রোগের ঝুঁকি কমানো যায়। তাহলে চলুন, জেনে নেওয়া যাক এ রোগের ঝুঁকি কমানোর কয়েকটি উত্তম পন্থা।ক্যান্সারের ঝুঁকি

Loading...

ক্যান্সারের ঝুঁকি কমানোর ৮টি উপায় জেনে নিন

১. নিয়মিত ব্যায়াম করুন- গবেষণায় দেখা গেছে, নিয়মিত ব্যায়াম সুনির্দিষ্ট কিছু ক্যান্সারের (স্তন ও কোলন ক্যান্সার) ঝুকি কমাতে কার্যকরী ভূমিকা রাখে। তাই নিয়মিত ব্যায়াম করুন।

২. স্লিম থাকুন- অতিরিক্ত ওজন প্রস্টেট, অগ্নাশয়, জরায়ু, কোলন ও ডিম্বাশয় ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়। এমনকি স্থূল নারীদের স্তন ক্যান্সারেরও ঝুঁকির প্রবণতাও ব্যাপক। তাই স্লিম থাকার চেষ্টা করুন।

৩. হাঁটুন- আরামপ্রদ কর্মকাণ্ড যেমন দীর্ঘক্ষণ বসে থাকা, শুয়ে থাকা, টিভি দেখা নানা ধরনের ক্যান্সারের ঝুকি বাড়ায়। তাই এসব থেকে দূরে থাকুন।

৪. ধূমপান পরিহার করুন- তামাকজাতীয় পণ্য ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়। তাই এগুলো সেবন এড়িয়ে চলাই উত্তম।

পড়ুন  উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে তিসি বীজের চা

৫. উদ্ভিজ্জ খাদ্য খান- সব সময় স্বাস্থ্যকর খাদ্য খাওয়ার চেষ্টা করুন। উদ্ভিজ্জ খাদ্যের উপর জোর দিন।

৬. প্রখর রোদ এড়িয়ে চলুন- রৌদ্রে বেশি ঘোরাঘুরি করা যাবে না। পারলে সানগ্লাস ব্যবহার করুন। কারণ, সূর্যের অতি-বেগুনি রশ্মি ত্বকের ক্যান্সারের সৃষ্টি করে।

৭. অ্যালকোহল পরিহার করুন- অতিরিক্ত মদ্যপান মুখ, গলা, খাদ্যনালী, এবং স্বরযন্ত্রের ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়। যদি পান করার খুবই নেশা থাকে তাহলে দিনে এক-দুই গ্লাস পান করতে পারেন।

৮. ত্বকের দাগ অবহেলা করবেন না- ত্বকে আঁচিল বা অন্য কোনও দাগের উপদ্রব ঘটলে তা পরীক্ষা করান। কারণ এ থেকে ক্যান্সার সৃষ্টি হতে পারে।

Loading...

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About পূর্ণিমা তরফদার

আমি পূর্ণিমা তরফদার আপনার ডক্টরের নতুন রাইটার। আশাকরি আপনার ডক্টরের নিয়ামিত পাঠকরা আমাকে সাদরে গ্রহণ করবেন ও আমার পোষ্টগুলো পড়বেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.