পার্লারে না গিয়ে বাসায় বসে গলা আর ঘাড়ের কালচে দাগ কিভাবে দূর করা সম্ভব?জানুন

প্রম্নঃ পার্লারে না গিয়ে বাসায় বসে গলা আর ঘাড়ের কালচে দাগ কিভাবে দূর করা সম্ভব?

উত্তরঃ  পদ্ধতি ১ঃ আলুর রস আলুর ও আছে প্রাকৃতিক ব্লিচিং উপাদান। তাই আলুর রস ঘাড়ের কালো দাগ দূর করতে ভূমিকা রাখে। আলু কুচি অথবা আলুর রস ঘাড়ে লাগিয়ে রাখুন। ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহারে ঘাড়ের কালচে ভাব দূর হয়ে যাবে। শসার রস শসার রস কালো দাগ দূর করতে বেশ কার্যকরী। শসার রস ত্বকের হারানো রঙ ফিরে পেতে সহায়তা করে। শসার রস ত্বকের মরা কোষ দূর করে ত্বককে করে তোলে উজ্জ্বল ও সুন্দর। শসা মিহি কুচি করে নিন অথবা ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন। এরপর ঘাড়ের কালো দাগের উপর কয়েক মিনিট ভালো করে ঘষে ঘষে লাগিয়ে নিন। ১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।

কালো দাগ

চোখের নিচের কালি দূর করার ঘরোয়া ও প্রাকৃতিক উপায় জেনে নিন

পদ্ধতি ২ঃ লেবুর রস ও গোলাপ জল ঘাড়ের কালো দাগ দূর করতে লেবুর রসের বিকল্প নেই। লেবুর রস প্রাকৃতিক ব্লিচের কাজ করে। নিয়মিত লেবুর রস ব্যবহারে যে কোনো কালো দাগ ধীরে ধীরে হালকা হয়ে যায়। ঘাড়ের কালো দাগ দূর করার জন্য প্রতিদিন রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে সম পরিমাণ লেবুর রস ও গোলাপজল মিশিয়ে ঘাড়ের কালো দাগে লাগিয়ে ঘুমিয়ে পরুন প্রতিদিন। সকালে উঠে ধুয়ে ফেলুন। এভাবে এক মাস ব্যবহার করলেই পার্থক্যটা বুঝতে পারবেন। অ্যালোভেরা অ্যালোভেরা বা ঘৃতকুমারীর রস যে কোনো দাগ হালকা করে। অ্যালোভেরা থেকে তাজা রস বের করে ঘাড়ে লাগিয়ে রাখুন ২০ মিনিট। এভাবে প্রতিদিন অ্যালোভেরার রস ব্যবহার করলে ঘাড়ের কালো দাগ দূর হয়ে যাবে।

লেবু দিয়ে শরীরের যেকোন কালো দাগ দূর করুণ, জেনে নিন কীভাবে জেনে নিন

পদ্ধতি ৩ঃ ত্বকের প্রয়োজন অনুযায়ী কিছু ফেসিয়াল আছে যেগুলোর সাথে আমরা অনেকেই পরিচিত না। আপনার ত্বক থেকে কালো দাগ দূর করতে মাসে মিনিমাম একবার ফেসিয়াল করতে হবে। পার্লারে যাওয়া সম্ভব হয়না, তাই ঘরে নিজেই করে তৃপ্ত করতে পারেন আপনার ক্ষুধার্ত ত্বক। নিম্মে ঘরে বসে কালো দাগ দূর করতে কিভাবে ফেসিয়াল করতে হবে তার বর্ননা দেওয়া হলোঃ- ভেজিটেবল ফেসিয়ালঃ ০১-একটি ছোট শশার বিচি ফেলে খোসাসহ ব্লেন্ড করুন। তারপর পাতলা কাপড়ে ছেঁকে নিয়ে রসটা আলাদা করুন। ০২. এর সাথে এলোভেরা জেল, জেলাটিন, গ্রিন টি মেশান। এই মিশ্রণ একটি প্যানে অল্প আঁচে জ্বাল দিন যতক্ষণ পর্যন্ত না জেলাটিন গলতে থাকে। ০৩. তারপর এই মিস্রন ৩০ মিনিট ফ্রিজে রেখে মিশ্রণটিকে গাঢ় হতে দিন। ০৪. মিশ্রন টি ২৫ মিনিট ধরে মুখে ও গলায় লাগিয়ে রাখুন তারপর হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি শুষ্ক ত্বকের জন্য অত্যন্ত ফলপ্রসূ। টমেটো ফেসিয়াল: একটি মাঝারি সাইজের টমেটো ব্লেন্ডারে অল্প স্পীডে ব্লেন্ড করে নিন। তারপর পুরো মুখে মেখে রাখুন ২৫ মিনিট। এরপর ভালো ব্র্যান্ডের ফেসওয়াস আর পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এটি তৈলাক্ত, স্বাভাবিক ত্বকের জন্য উপকারী। সাইট্রাস ফেসিয়াল: ১/২ লেবু, ১/২ কমলা, ১/২ কাপ আনারস আর ১/২ কাপ পেঁপে সঙ্গে ১-২ টেবিল চামচ টক দই অথবা মধু দিয়ে ব্লেন্ড করে নিন। এই প্যাক ২৫ মিনিট মুখে লাগিয়ে ধুয়ে ফেলুন। গ্লাইকোলিক এসিড সাইট্রাস পিলের মাধ্যমে পাওয়া যায় যা মুখের বলিরেখা দূর করে সেই সঙ্গে মুখে গর্ত থাকলে তাও অনেকটা কমিয়ে আনে। পাম্পকিন ফেসিয়ালঃ ২ চা চামচ মিষ্টি কুমড়ার পাল্প, ১/৪ চা চামচ দুধ আর ১/২চা চামচ মধুর সাথে ভালো ভাবে মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে ১০-১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। তৈলাক্ত ত্বকের অধিকারীরা নির্দ্বিধায় এই ফেসিয়ালটি করে ফেলুন। এক প্যাকেট জেলাটিন, একটি লেবু আর কমলার রস প্যানে নিয়ে জ্বাল দিতে হবে। জেলাটিন গলে গেলে মিশ্রণটি ঠাণ্ডা হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। এরপর একটি ডিমের কুসুম মিশিয়ে মুখে ও গলায় লাগিয়ে ২৫মিনিট অপেক্ষা করার পর হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে। জেলাটিন ত্বককে নরম করে আর স্কিন টোন করে। আমরা সবাই জানি লেবুর রস গায়ের রঙ উজ্জল করে। নিয়মিত নিজে নিজে ত্বকের যত্ন নিলে ত্বকের কালো দাগ দুর হবে। সেই সাথে পর্যাপ্ত ঘুমাতে হবে এবং বেশি পরিমানে পানি পান করতে হবে।

Loading...

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About সাদিয়া প্রভা

সাদিয়া প্রভা , ইন্ডিয়ার Apex Group of Institutions এর BBA এর ছাত্রী ছিলাম। বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিয়সক তথ্য নিয়ে লেখালেখি করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *