আমার খুব ক্লোজ এক ফ্রেন্ড এর সাথে আমার প্রেমকিার রিলেশন…

প্রতিদিনই আপনার ডক্টর অনলাইন বাংলা স্বাস্থ্য টিপস পোর্টালের ফেসবুক ফ্যানপেজে অনেক ম্যাসেজ আসে। সব ম্যাসেজর উত্তর দেওয়া সম্ভব হয় না।তাই পাঠকদের কাছে প্রশ্নটির বিস্তারিত তুলে ধরা হয় (প্রশ্নকারীর নাম ও ঠিকানা গোপন রেখে)। আপনি ও আপনার সমস্যার কথা লিখতে পারেন অামদের ফেসবুক ফ্যানপেজে https://www.facebook.com/apoardoctor/ আজকের প্রশ্নঃ কিছু দিন পর ওর ডিভোর্স হয়ে যায়। আবার আমার কাছে ফিরে আসে। আমি এক্সেপ্টও করছিলাম। শুনি আমার খুব ক্লোজ এক ফ্রেন্ড এর সাথে ওর রিলেশন…

সালাম নিবেন!! সবমসময় আমি এই পেইজে পোস্ট করা প্রতি টা সমস্যার কেন্দ্রবিন্দু তে নিজেকে বসিয়ে নিজের সমালোচনা করি, হউক সেটা আমার সাথে সম্পৃক্ত অথবা না! আজ কেনো জানি নিজের সমস্যা টা উপস্থাপন করতে ইচ্ছে করলো। জানি না ইনবক্সের এতো মেসেজ এর ভিরে আমার মেসেজ চোখে পড়বে কিনা! তা ও বলছি।

ও বলে যদি সত্যিই আমাকে ভালোবাসো আমার সাথে ফিজিক্যাল রিলেশন করতে হবে, ব্রেকআপের ভয়ে আমি….

– আমি উচ্চ মধ্যবিত্ত ফ্যামিলিরর বড় ছেলে। একটা ভালো প্রাইভেট ভার্সিটি তে অনার্স করছি। ৪র্থ সেমিস্টার এ আছি। বয়েজ স্কুলে পড়ার কারনে মেয়েদের সাথে মিশতে পারতাম না। লজ্জা লাগতো, অস্বস্তি অনুভব করতাম। কিন্তু কলেজ লাইফে একটা মেয়ের সাথে খুব ভালো ফ্রেন্ডশিপ হয়। ওর সাথে মিশে এই সব লজ্জা,অস্বস্তি কেটে যায়। টাকা দিয়ে মেসেজ কিনে সারাদিন রাত চেট করতাম। ওকে অনেক খানি জড়িয়ে ফেলছিলাম নিজের সাথে। এক পর্যায়ে ভালোবেসে ফেলছিলাম। জানতাম সে ও আমাকে ভালোবাসে। মেয়েটা অনেক সুন্দরী ছিলো। আর এটা স্বাভাবিক যে সুন্দরী মেয়েদের পিছনে এক প্রকার ছেলে ঘুর ঘুর করে। তেমন ই ছিলো ব্যাপার গুলা। আর সেও ছেলেদের সাথে ফান করতো আর আমাকে সব জানাতো। আমার জেলাস ফিল হলেও হাসতাম। সহ্য ও করতাম। একটা মজার ব্যাপার হলো – দুইজনের সম্মতিতে আমরা ফান রিলেশন করি। এতে সব থাকবে জাস্ট সিরিয়াসনেস টা থাকবে না। তখন ওর প্রতি আরো সিরিয়াস হয়ে গেছিলাম। সেটা ও জানতো।

ওর চাওয়া হল, হয় ওর সাথে সেক্স করতে হবে নয়ত পুনরায় রিলেশন করতে হবে…

এই দিকে ওর একটা নেশা ছিলো নতুন নতুন সুন্দর,স্মার্ট, হ্যান্ডসাম ছেলেদের সাথে ফ্রেন্ডশিপ করা। আর আমার সাথে ও এক ই কারনে ফ্রেন্ডশিপ করেছিলো। তো আস্তে আস্তে ওর এই সব ব্যাপার গুলা আর নিতে পারছিলাম না। এই মধ্যেই ওর বিয়ে হয়ে গেলো। ও আমাকে জানায় নি। পরে জানতে পারি। ও নাকি ভাবছে আমি পাগলামি করতে পারি তাই জানায় নি। কিছু দিন পর ওর ডিভোর্স হয়ে যায় (কারন জানা হয় নি) আবার আমার কাছে ফিরে আসে। আমি এক্সেপ্টও করছিলাম। বাট আবার সেই সুন্দর ছেলের নেশা। শেষে শুনি আমার খুব ক্লোজ এক ফ্রেন্ড এর সাথে ওর রিলেশন !! তখন আর মেনে নিতে পারি নি। এই সব হয়েছিলো ভার্সিটির ভর্তির প্রথম দিকে। পরে যাচ্ছে তাই বকা দিয়ে যোগাযোগ অফ। তখন সুন্দর মেয়ের প্রতি একটা ঘৃনা কাজ করতো। রিলেশন এর ব্যাপারে ইন্টারেস্ট টা কমে গেছিলো। ভালোবাসা কে রেসপেক্ট করতাম। কিন্তু বিয়ের আগে কোনো রিলেশন কে না।

রিলেশন হওয়ার পর জিজ্ঞাসা করি যে তোমার আগের bf সাথে sex করছো কিনা – সে বলে….

রিসেন্টলি একটা মেয়ের সাথে আমার খুব ভালো ফ্রেন্ডশিপ হয়। ও ইন্টার ফাস্ট ইয়ার এ পড়ে। এফবিতে পরিচয়। লাস্ট ৩/৪ মাস অনেক চেট হয়। আসলে এই মেয়ে টা আমাকে পছন্দ করে আর আমি ও ওকে পছন্দ করি।। কয় দিন যাবৎ ওর প্রতি মারাত্মক টান অনুভব করছি। মনে হয় ভালোবেসে ফেলছি !! কিন্তু এখন নিজের ক্যারিয়ার নিয়ে ভাবতে চাই। অনেক কিছু করতে চাই। মাথা থেকে এই মেয়ে কে সরাতে পারছি না। কি করবো ভাই এখন??

আপনার ডক্টরের উত্তরঃ শেষের দিকে আপনি নিজেই নিজের জীবনের সবচে সঠিক সিদ্ধান্তটা নিতে পেরেছেন। আপনি বলেছেন “আমি ক্যারিয়ার নিয়ে ভাবতে চাই”। –সেটাই আপনার জন্য ভাল। তবে সেজন্য মানসিক শক্তি আপনাকে অর্জন করতে হবে। সুন্দরী মেয়ে দেখলেই প্রেমে পড়া যাবেনা। নিজের মাইন্ডকে ট্রেইন করুন, বোঝান — এখনি এসব নয়। ভাল লাগা কাজ করতে পারে। কিন্তু সেটার যেন লিমিট থাকে। নিজের সব কিছু ছেড়ে ছুড়ে ভালবাসতে যাবেন না যেন। যে সোনালি সময় আজ চলে যাচ্ছে জীবন থেকে সেই সময় মাথা কুটলেও আর ফেরত পাবেন না। তাই আজ থেকেই নিজেকে নিয়ে ভাবতে শুরু করুন। কোন মেয়েকে নিয়ে নয়।

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About সাদিয়া প্রভা

সাদিয়া প্রভা , ইন্ডিয়ার Apex Group of Institutions এর BBA এর ছাত্রী ছিলাম। বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিয়সক তথ্য নিয়ে লেখালেখি করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *