ত্বকের ধরন ভেদে টক দই এর কার্যকরী ফেস প্যাক ও গুণাগুণ

টক দই(sour yogurt) শুধুমাত্র খেতে ভালো তাই নয় বরং এটি স্বাস্থ্যকর জীবন যাপনের জন্য অনেক বেশী পুষ্টিকর। আপনি এটাও জানেন যে, টক দই(sour yogurt) আপনার ত্বকের জন্য একটি মিরাকল উপাদান হিসেবে কাজ করতে পারার ক্ষমতা রাখে। এসব মোটামুটি আমরা সবাই জানি কিন্তু ত্বকের ধরন ভেদে টক দই(sour yogurt) ব্যবহার বিধি সম্পর্কে সব সময়ই অজানা থেকে যায়। আজকের এই লেখনিতে টক দইয়ের কার্যকারিতা, ত্বকের ধরনভেদে ফেইস প্যাকগুলো সম্পর্কে জানব।

টক দই

ত্বকের ধরন ভেদে টক দই এর কার্যকরী ফেস প্যাক ও গুণাগুণ

টক দইয়ে(sour yogurt) কি কি পুষ্টি উপাদান আছে –

কেন টক দই(sour yogurt) আপনার ত্বক গ্লো কওরে তোলে? কারণ এতে আছে ত্বক বান্ধব ও কার্যকরী উপাদান । এর চারটি প্রধান উপাদান হল –

(১) জিঙ্ক

১০০ গ্রাম টক দইয়ে আছে ১ মিলিগ্রাম জিঙ্ক । এই খনিজটি ত্বকে এন্টি এসটিনজেন্ট হিসেবে কাজ করে ত্বকে নুতন কোষ জন্মাতে সাহায্য করে এবং ত্বকের একনে ও পিম্পল দূর করতে সাহায্য করে।

(২) ক্যালসিয়াম

টক দইয়ের ক্যালসিয়াম আপনার ত্বকের শুষ্কতা কমিয়ে ত্বক সজীব রাখে আর ত্বক থাকে স্বাস্থ্যময়।

(৩) ভিটামিন বি

ভিটামিন বি , বি ৫, বি ১২ ও ভিটামিন বি ২ আছে টক দইয়ে যা ত্বক সজীব রাখে, ত্বকে স্বাস্থ্যকর ফ্যাটের জোগান দেয় । এককাপ টক দইয়ে(sour yogurt) আপনার শরীরের জন্য দরকারী রিভোফ্লাভিন এর দৈনিক চাহিদার ২০-৩০% চাহিদা পুরন করে।

(৪) ল্যাকটিক এসিড

টক দইয়ের অন্যতম উপাদান হল ল্যাকটিক এসিড যা আপনি অনেক স্কিন কেয়ার পণেই উপাদান তালিকায় দেখতে পাবেন । এটি ত্বক ময়েসচারাইজ করে এবং এটি ত্বক বুড়িয়ে যাওয়া থেকে রক্ষা করে । ত্বকের ভাঁজ পড়া বা রিঙ্কেল থেকে রক্ষা করে।

এখন আমারা খুব সহজভাবে বলতে চাই টক দই(sour yogurt) ত্বকের জন্য কেন উপকারী-

ত্বক সজীব রাখে আর ময়েসচারাইজ করে
ত্বক উজ্জ্বল করে
এক্সফলিয়েট করে কার্যকরীভাবে।
ত্বক মসৃণ আর ফ্ললেস করে তোলে ।
চোখের নীচের কালো দাগ দূর করে ।
ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখে।
ত্বকের ইনফেকশান দূর করে।
সান বার্ন প্রশমনে সাহায্য করে।
এমন কিছু প্রাকৃতিক উপাদানের আছে যা হাতের কাছেই পাওয়া যায়, সেসব উপাদানগুলো টক দইয়ে(sour yogurt) ব্যবহার করতে পারেন। এতে করে আপনার স্কিন কেয়ারকে আরও কার্যকরী হয়ে উঠবে –

গাজর
লেবুর রস
মধু
এবার আসুন জেনে নিই টক দই(sour yogurt) দিয়ে কিছু ফেইস প্যাক তৈরির উপায়গুলো সম্পর্কে –

(১) শুষ্ক ত্বকের জন্য

যাদের টক শুষ্ক তাদের জন্য ভীষণ দরকারী ফেইস প্যাক যা ত্বক নরম , মসৃণ আর সজীব করবে ।

আপনার যা লাগবে –

২ টেবিল চামচ প্রাকৃতিক টক দই(sour yogurt)
১ টেবিল চামচ প্রাকৃতিক মধু
১ টেবিল চামচ আভাকাডো পেস্ট
১ টেবিল চামচ রান্না করা ওটমিল
সব উপকরণ একসাথে নিয়ে ব্লেন্ডার এ দিয়ে মসৃণ পেস্ট তৈরি করুন। এই পেস্ট আপনার মুখে লাগিয়ে ১০ থেকে ১৫ মিনিট রাখুন । ভিজা নরম কাপড় দিয়ে এই পেস্ট আস্তে আস্তে তুলে ফেলুন । দেখুন ত্বক কতো নরম আর সজীব।

(২) সংবেদনশীল ত্বকের জন্য

আপনার ত্বকে যদি সানবার্ন হয় বা কোন কারণে ইনফেকশান হয় তাহলে এই নীচের ফেইস প্যাকটি লাগিয়ে দেখুন ।

আপনার যা লাগবে-

১/৪ কাপ ফুল ফ্যাট প্লেইন টক দই(sour yogurt)
১/৪ কাপ টুকরো শশা
১ টেবিল চামচ এলোভেরাজেল ( এলোভেরা রসও ব্যবহার করা যেতে পারে)
কয়েক ফোটা ক্যামোমিল তেল
১ টেবিল চামচ মধু
সব উপকরণ একসাথে নিয়ে ব্লেন্ডার এ দিয়ে মসৃণ পেস্ট তৈরি করুন। এই পেস্ট আপনার মুখে লাগিয়ে ১০ থেকে ১৫ মিনিট রাখুন ।ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ব্যস ।

(৩) প্রাকৃতিক উপায়ে গ্লোইং ত্বক পেতে

আপনার যা যা লাগবে

টক দই(sour yogurt)
মুসুর ডাল বাটা
কমলার খস
সব উপকরণ একসাথে নিয়ে ব্লেন্ডার এ দিয়ে মসৃণ পেস্ট তৈরি করুন। ত্বকে দিয়ে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে ধুয়ে ফেলুন। ত্বক শুষ্ক হলে এর সাথে মধু মিশিয়ে নিতে পারেন।

(৪) নিস্প্রান ত্বকের জন্য

দূষণ আর অবেহেলায় ত্বক যদি নিস্প্রান হয়ে ওঠে তখন এই টক দই(sour yogurt)য়ের প্যাকটি অবশ্যই ট্রাই করবেন ।

আপনার যা লাগবে

৪ টেবিল চামচ টক দই(sour yogurt)
১ টেবিল চামচ মধু
১ টেবিল চামচ নারকেল গুড়া
সব উপকরণ একসাথে নিয়ে ব্লেন্ডার এ দিয়ে মসৃণ পেস্ট তৈরি করুন। ত্বকে দিয়ে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে ধুয়ে ফেলুন। ত্বক স্বাস্থ্যময় আর গ্লোয়িং হয়ে উঠবে।

এবার প্রশ্ন হল, টক দই(sour yogurt)য়ের ফেইস প্যাক সপ্তাহে কতদিন ব্যবহার করবেন?

আপনার ত্বক যদি তৈলাক্ত ও একনে প্রন হয় তাহলে আপনি ভালো ফলাফলের জন্য প্রতিদিন ব্যবহার করতে পারবেন । আর আপনার ত্বক যদি শুষ্ক হয় তাহলে সপ্তাহে ২ থেকে ৩ বার ব্যবহার করুন ত্বক ময়েশ্চারাইজ ও সজীব রাখতে।

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About Angel Nipa

রূপচর্চা বিষয়ে আমি আপনার ডক্টর.কম সাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।আমার রূপচর্চা বিষয়ক পোষ্টগুলো পাবেন এই পেজে https://business.facebook.com/Girls.Doctor.Tips

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *