ব্রণের দাগ দূর করতে ৪টি কার্যকরি মাস্ক

ব্রণ, আমাদের জন্যে একটি কমন সমস্যা। যে সমস্যার মুখোমুখি আমরা সবাই কম বেশি হই। কারো ব্রণ কমছেই না, আবার কারো কমছে তো আবার বাড়ছে, আবার কারো ব্রণ চলে গেলেও কিন্তু দাগগুলো ঠিকই রেখে গেছে। ব্রণ নিয়েই তো কতো ঝামেলা পোহাতে হয়। তার উপরে এর জেদি দাগ(Mark), সহজে যেতেই চায় না। তাই, আজ জানাবো ব্রণের জেদি Mark দূর করার ৪টি কার্যকরি মাস্ক সম্পর্কে।

দাগ

ব্রণের দাগ দূর করতে ৪টি কার্যকরি মাস্ক

 

প্রথম মাস্ক তৈরিতে যা যা লাগছে –

(১) কফি পাউডার
কফি পাউডার আমাদের মুখের মরা চামড়া দূর করে এবং ব্রণের দাগ(Mark) দূর করতে সাহায্য করে।

(২) মধু
মধুতে অ্যান্টিবায়োটিক উপাদান রয়েছে, যা পিম্পলের ব্যাকটেরিয়ার সাথে লড়াই করে। এছাড়াও মধুতে ন্যাচারাল ব্লিচিং এজেন্ট রয়েছে, যা ব্রণের দাগ(Mark) দূর করে।

একটি বাটিতে ১ টেবিল চামচ কফি পাউডার এবং হাফ টেবিল চামচ মধু একসাথে মিশিয়ে নিয়ে পরিষ্কার মুখে লাগিয়ে নিয়ে হবে। ১৫ মিনিট পর স্ক্রাবিং করে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে নিয়ে হবে।

দ্বিতীয় মাস্ক তৈরিতে যা যা লাগছে –

(১) সুইট আমন্ড অয়েল
সুইট আমন্ড অয়েল স্কিনের ড্রাইনেস দূর করে এবং এতে প্রচুর পরিমানে ফ্যাটি এসিড রয়ছে যা, ব্রণের দাগ(Mark) রিমুভ করতে সাহায্য করে।

(২) লেবুর রস
লেবুর রসে রয়েছে ভিটামিন ই। যা স্কিনের জন্যে খুবই উপকারি। এছাড়া এতে স্কিন লাইটেনিং এজেন্ট রয়েছে, যা ব্রণের দাগকে হালকা করতে সাহায্য করে।

হাফ টেবিল চামচ সুইট আমন্ড অয়েল এবং লেবুর রস ভালোভাবে মিশিয়ে নিয়ে তা মুখের ত্বকে লাগিয়ে নিয়ে হবে। ৩০ মিনিট পরে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে।

তৃতীয় মাস্ক তৈরিতে যা যা লাগছে –

(১) চন্দন পাউডার
চন্দনে রয়েছে অ্যান্টি মাইক্রোভাল, যা স্কিনকে স্মুদ করে এবং ব্রণের দাগ(Mark) দূর করে। এটি স্কিনকে উজ্জ্বল করে তোলে। এছাড়াও এতে ন্যাচারাল অ্যাস্ট্রিজেন্ট রয়েছে।

(২) গোলাপজল
গোলাপজল স্কিনের পি এইচ লেভেলকে ব্যালেন্স করে। এছাড়াও এতে রয়েছে ভিটামিন ই, সি, বি3 এবং অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট।

একটি বাটিতে ১ চা চামচ চন্দন পাউডার, হাফ চা চামচ গোলাপজল মিশিয়ে নিন। আপনার স্কিন ড্রাই হলে গ্লিসারিন যোগ করতে পারেন। এই মিশ্রণটি ২০ মিনিট মুখে লাগিয়ে রাখুন এবং ধুয়ে ফেলুন।

সবশেষ মাস্কটি তৈরিতে যা যা লাগছে –

(১) টমেটো
টমেটো স্কিনের পিএইচ ব্যালেন্স করে। এটি স্কিন ড্যামেজ রিপেয়ার করে এবং ব্রণের দাগ(Mark) দূর করে।
(২) লেবুর রস
এর উপাদান সম্পর্কে তো আগেই জেনেছেন।

(৩) মধু
এর উপাদান সম্পর্কে তো আগেই জেনেছেন।

একটি টমেটো নিয়ে এর পাল্প বের করে নিন। এর সাথে হাফ চা চামচ লেবুর রস এবং মধু যোগ করুন। এই মিশ্রণটি ব্রণের দাগের উপর লাগিয়ে সারারাত রেখে দিন। সকালে ধুয়ে ফেলুন।

টিপস

এই মাস্কগুলো সপ্তাহে ২-৩ দিন ব্যবহার করুন।
মাস্কগুলো ব্যবহারের আগে মুখ অবশ্যই পরিষ্কার করে নেবেন।
মাস্কগুলো ব্যবহারের পরে টোনার এবং ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন।
এই তো জেনে নিলেন, ব্রণের দাগ(Mark) কীভাবে দূর করবেন। আশা করছি আপনাদের একটু হলেও উপকারে আসতে পেরেছি। ভালো থাকুন।

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About Angel Nipa

রূপচর্চা বিষয়ে আমি আপনার ডক্টর.কম সাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।আমার রূপচর্চা বিষয়ক পোষ্টগুলো পাবেন এই পেজে https://business.facebook.com/Girls.Doctor.Tips

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *