গ্রীষ্মকালে ত্বক ও চুলের যত্ন

প্রচণ্ড গরমের পাশাপাশি গ্রীষ্মকাল আর কী কী নিয়ে আসে বলুনতো? এ প্রশ্নের উত্তরে আপনি হয়তো বেশ আনন্দের সাথেই বলবেন- কেন! নানারকম মুখরোচক ফল! ঠিক তাই। কিন্তু আর? আর আনে ত্বকের একরাশ সমস্যা- রোদে পোড়া ভাব, অনুজ্জ্বল ও নিষ্প্রাণ ত্বক(Skin) এবং র‍্যাশ। কিন্তু জানেন কি?

Loading...

ত্বক

গ্রীষ্মকালে ত্বক ও চুলের যত্ন

ত্বক পরিষ্কার করা, ত্বকের স্বাভাবিকত্ব ধরে রাখা ও ত্বকের সঠিক আর্দ্রতা বজায় রাখা থেকে শুরু করে স্বাস্থ্যকর খাবার গ্রহণের মাধ্যমে ত্বককে সুস্থ রাখা পর্যন্ত একটি নিয়মিত রুটিন যদি আপনি মেনে চলতে পারেন দৈনন্দিন জীবনে, তাহলেই প্রচণ্ড গরমের মধ্যেও সুস্থ ও সুন্দর ত্বক পাওয়া সম্ভব! কিভাবে গরমকালে গ্রিষ্মবান্ধব ত্বক ধরে রেখে সবাইকে তাক লাগিয়ে দেবেন, সে বিষয়ে বিশেষজ্ঞদেরও রয়েছে নানা পরামর্শ। কায়া স্কিন ক্লিনিকের প্রধান ডা. সঙ্গীতা ভেলাস্কার আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছেন এমনই কিছু সহজ, কিন্তু দারুণ কৌশল!

১. প্রাত্যাহিক কাজের তালিকায় নিয়মিত ত্বক(Skin) পরিষ্কার করা এবং টোনিং ও ময়েশ্চারাইজিংয়ের নির্দিষ্ট কয়েকটি কাজ অবশ্যই রাখুন। কাজগুলো দিনে দু’বার করুন। ত্বকের সমস্যাবান্ধব সবচেয়ে বিরক্তিকর সময়টি হলো- গরমকাল। বিশেষ করে ব্রনের এক্ষেত্রে কোনো জুড়ি নেই। ব্রণমুক্ত ত্বকের জন্য স্যালিসাইলিক অ্যাসিড সমৃদ্ধ পরিষ্কারক ব্যবহার করুন, যা ত্বকে থাকা ব্রন কমায় এবং ভবিষ্যতেও ব্রনের প্রাদুর্ভাব ঠেকায়।
২. ত্বকের মৃত কোষ তুলে ফেলুন। ত্বক নিষ্প্রাণ হয়ে যাওয়ার অন্যতম কারণ হলো- পুরোনো, শুষ্ক ও মৃত কোষ। এছাড়া বাইরের বিভিন্ন রাসায়নিক ত্বকের উপরিভাগ থেকে ভেতরে প্রবেশ করা রোধ করতে এবং নতুন সজীব কোষসমৃদ্ধ ত্বক(Skin) পেতেও ত্বকে স্ক্রাব ব্যবহার করতে হবে। হাতের কনুই ও পায়ের হাঁটুতেও স্ক্রাব ব্যবহার করুন। এক্ষেত্রে লেবুর রস ও চিনি দিয়ে Skin পরিষ্কার করতে পারেন। সপ্তাহে অন্তত দু’বার কাজটি করুণ। পরিষ্কার ত্বকের সাথেই পাবেন উজ্জ্বল ত্বকও।
৩. গ্রীষ্মকালে চুলের আর্দ্রতা হারিয়ে যায়। এ সময় চুলে রাসায়নিক দ্রব্য ব্যবহার এবং কৃত্রিমভাবে চুল সাজানো এড়িয়ে চলুন যতোটা সম্ভব। এ সময় ঘেমে যাওয়া চুল বারবার পরিষ্কার করতে গিয়ে অতিরিক্ত শ্যাম্পুর ব্যবহার চুলকে অনুজ্বল করে ফেলে এবং চুলের আর্দ্রতাও কমে যায়। তাই মৃদু শ্যাম্পু ব্যবহার করুন এবং আর্দ্রতা ধরে রাখতে ঘন কন্ডিশনার ব্যবহার করুন। নারকেল তেল, রেঢ়ির তেল বা ক্যাস্টর অয়েল ও জলপাইয়ের তেলের মিশ্রণ নিয়মিত চুলে লাগালে চুল পাবে প্রয়োজনীয় পুষ্টিও, থাকবে ভেতর থেকে উজ্জ্বল।

পড়ুন  ত্বকের রঙ উজ্জ্বল করার কার্যকরী ২ টি প্রাকৃতিক পদ্ধতি

৪. খাদ্যতালিকায় রাখুন স্বাস্থ্যকর খাবার। এতে ত্বক(Skin) ও চুলের জন্য প্রয়োজনীয় পুষ্টিগুলো দেহের ভেতর থেকেই কাজ করবে এবং Skin ও চুল হয়ে উঠবে সুস্বাস্থ্যের অধিকারী। তাই যেকোনো ঋতুর মতো গরমেও সুস্থ ও স্বাস্থ্যবান Skin ও চুল পেতে চাইলে সারাদিন প্রচুর পানি পান করুন, দেহ ও মন ঠাণ্ডা রাখবে- এমন হালকা, কম মশলাযুক্ত ও স্বাস্থ্যকর খাবার খান। ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখতে প্রচুর তাজা ফল ও সবুজ শাকসবজি খান। করলা, পালং শাক, শসা, তরমুজ, কমলা, চেরি, বরই, লিচু, আম, জাম- Skin  ও চুল ভালো রাখার জন্য উৎকৃষ্ট।

৫. রোদ থেকে ত্বক(Skin) ও চুল বাঁচিয়ে রাখুন। বাইরে যাওয়ার আগে এসপিএফ৩০ সানস্ক্রিন বা সানব্লক ব্যবহার করুন। আপনার ত্বকের সাথে খাপ খেয়ে যায়, এমন সানস্ক্রিন বেছে নিন। বাইরে যাওয়ার ২০ থেকে ৩০ মিনিট আগে তা ব্যবহার করুন প্রতিদিন। চুলার কাছে যাওয়ার আগেও একাজ করতে পারেন। ছাতা রাখুন সাথে এবং মাথায় স্কার্ফ ব্যবহার করতে পারেন।

৬.পায়ের আরামের প্রতি নজর দিন। গরমকালে খোলা স্যান্ডেল পড়লে পায়ের তালু ঘেমে ভিজে যায় না, শুষ্ক থাকে এবং পায়ের Skin ‘শ্বাসপ্রশ্বাসের’ সুযোগ পায়। যেহেতু দেহের বাকি অঙ্গপ্রত্যঙ্গের মতোই পায়ের ত্বকও রোদে পুড়ে যায়, তাই সেখানেও দিনের বেলা সানস্ক্রিন এবং সন্ধ্যায় হালকা ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন।

পড়ুন  আপনার অতিরিক্ত রাগের কারণ যে ৪টি খাবার

৭. সারাদিনে বারবার ঠাণ্ডা পানি দিয়ে হাতমুখ ধুয়ে নিলেও ত্বকে ঘাম ও ময়লা জমতে পারবে না। রক্ত চলাচলও থাকবে স্বাভাবিক। গরমে দেহের ভেতর ও বাইরে থেকেই সতেজতা ধরে রাখতে চাইলে বাজারের কৃত্রিম পণ্যের ওপর নির্ভরশীল না হয়ে বরং প্রকৃতির ওপর নির্ভর করুন। হাতে হাতেই পেয়ে যাবেন প্রতীক্ষিত ফল!

Loading...

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About Angel Nipa

রূপচর্চা বিষয়ে আমি আপনার ডক্টর.কম সাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।আমার রূপচর্চা বিষয়ক পোষ্টগুলো পাবেন এই পেজে https://business.facebook.com/Girls.Doctor.Tips

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.