ছেলেদের হাত-পায়ের যত্ন নেওয়ার উপায়

হাত-পায়ের যত্ন নেওয়া উচিত ছেলেদেরও। বিশেষ করে বর্ষাকালে। মাসে অন্তত দুবার নিয়ম করে যত্ন নিলে হাত-পা থাকবে পরিষ্কার ও ঝকঝকে। গুলশানে ছেলেদের সৌন্দর্য সেবাকেন্দ্র মেনজ্ কেয়ারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক দেলোয়ার হোসেন বলেন, ‘সাধারণত ছেলেদের হাতটাই সবার নজরে পড়ে বেশি। সেটা কথা বলা বা কাজের প্রয়োজনেই হয়। সেই তুলনায় পা ঢাকা থাকে। তারপরও পায়ের যত্ন নিতে হবে। কারণ, কাদা-পানিতে পা নোংরা হয়ে যায়।’

যত্ন
ছেলেদের হাত-পায়ের যত্ন নেওয়া

 

রোদে ঘোরাঘুরি করলেও হাতে কালচে আবরণ পড়ে। তাই বাসায় ফিরেই চটজলদি হাত ধুয়ে নিতে পারেন। সেই সঙ্গে বাড়তি খানিকটা যত্ন নিলে হাত-পা আরও ভালো থাকবে। ছেলেদের স্যালন হেয়ারোবিক্সের স্বত্বাধিকারী রূপ পরামর্শক শাদীন মাহবুব জানালেন, হালকা কুসুম গরম পানিতে হাত ধুলে বেশ উপকার পাওয়া যায়। ভালো মানের সাবান দিয়ে পরিষ্কার করে হাতের কনুই পর্যন্ত ধুয়ে নিতে পারেন। হাতের ত্বক ভালো রাখতে ব্যবহার করতে পারেন ভিটামিন ‘ই’ সমৃদ্ধ ক্রিম।

পায়ের যত্নেও কুসুম গরম পানিতে উপকার বেশি। তার সঙ্গে হালকা শ্যাম্পু মিশিয়ে নিয়ে তারপর ১০ মিনিট সেই পানিতে পা ডুবিয়ে রাখলে পা ভালো থাকবে। হাত ও পায়ের যত্নে এমনই আরও কিছু পরামর্শ দিয়েছেন দেলোয়ার হোসেন ও শাদীন মাহবুব।
১. অনেকের হাত-পা খসখসে থাকে। এমন হলে রাতে ঘুমানোর আগে খানিকটা পানির সঙ্গে অল্প একটু গ্লিসারিন মিশিয়ে হাত ও পায়ের ত্বকে লাগান। নিয়মিত ব্যবহারে ত্বক নরম ও সতেজ থাকবে।
২. পায়ের যত্নে কুসুম গরম পানিতে এক চা-চামচ শ্যাম্পু মিশিয়ে গোড়ালি পর্যন্ত ১০ মিনিট ভিজিয়ে নিন। তারপর নেইল ব্রাশ দিয়ে পায়ের নখ ও তলা ভালো করে পরিষ্কার করুন।
৩. ভেজানো পায়ের নখ কাটা সহজ। তাই নখ বড় থাকলে ভেজা থাকা অবস্থায় কেটে নিতে পারেন। একই সঙ্গে পেডিকিওর স্টিক দিয়ে নখের পাশে ফুলে ওঠা চামড়া আলতোভাবে ভেতরে ঠেলে দিন।
৪. যাঁরা নিয়মিত জুতা পরেন, তাঁরা একই মোজা না ধুয়ে ব্যবহার করবেন না। বাসায় ফিরেই হালকা গরম পানিতে ডিটারজেন্ট পাউডার মিশিয়ে মোজা পরিষ্কার করে নিন। এ ক্ষেত্রে কয়েক জোড়া মোজা থাকলে সুবিধা। নিয়মিত পাল্টে পরে নিতে পারবেন।
৫. হাতের নখ কাটার আগেও একই উপায়ে হাতের কবজি পর্যন্ত ১০ মিনিট ভিজিয়ে সাবান বা হ্যান্ডওয়াশ দিয়ে ধুয়ে নিতে হবে। এরপর তোয়ালে দিয়ে মুছে নেইল কাটার দিয়ে নখগুলো নির্দিষ্ট শেপে কেটে নিতে হবে। হাতের নখ চকচকে রাখতে চাইলে নখের ওপর বাফার ঘষে নিন। নখ কাটার ক্ষেত্রে ব্লেড ব্যবহার না করাই ভালো।

 

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About ফারজানা হোসেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *