গরমে সাদা রংয়ের পোশাক হোক আপনার সঙ্গী

গরমে সাদা রংয়ের পোশাক হোক আপনার সঙ্গী

গরমে র দিনের পোশাক অবশ্যই আরামদায়ক হতে হয়। আর সেটা যদি সাদা রঙের হয় তাহলে তো কথাই নেই। সাদা রঙের পোশাক গরমের দিনে সবচেয়ে আরামদায়ক, এটা সবাই জানেন। তাই এই গ্রীষ্মে সাদা রঙের এবং সাধারণ ডিজাইনের পোশাক বাছাই করুন।গরমে

সাদা কাপড় হলেও গরমের কাপড় হিসেবে সুতি কাপড়ে প্রাধান্য দিন বেশি। কারণ সুতি কাপড়েই গরমেসবচেয়ে আরাম এবং স্বস্তি পাওয়া যায়।
লম্বায় খুব বড় বা অনেক বেশি কাপড় দিয়ে তৈরি জামাকাপড় গরমে ত্যাগ করুন। এতে আপনার চলাফেরায় সমস্যা হবে।

সাদা হলেও খুব ভারি জামা পরা ঠিক না। কারণ আমাদের উদ্দেশ্য গরমে স্বস্তিতে থাকা। ভারি জামা সাদা হলেও পরে আরাম পাওয়া যাবে না।
হাতা-কাটা, ঘটি-হাতা জামা পরুন। সিনথেটিক কাপড় পরিহার করুন। সর্ট বা মিডিয়াম সাইজের কামিজ পরুন।

গরমে সাদা পোশাক আপনাকে দেবে শান্তি

জামার ডিজাইন অবশ্যই অনেক সিম্পল বা সাধারণ হওয়া উচিত। খুব বেশি কাজ করা কাপড় দিয়ে জামা না বানানোই ভাল।
অল্প কাজের উপর কাপড় বাছাই করে ফেলুন। যেমন-সাদার উপর হালকা রংয়ের সুতোর কাজ করা, সাদার উপর হালকা রংয়ের প্রিন্ট। সেটা হালকা নীল, গোলাপি হলে ভাল লাগবে।
কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য সুতি কাপড়ের ফতুয়া মানিয়ে যায় সহজেই। তাই চাইলে কাপড় কিনে তার উপর হালকা রংয়ের সুতোর কাজ করে বানিয়ে নিন ফতুয়া।
খুব বেশি টাইট জামা গরমে না পরাই ভালো। এই গরমে ঢিলেঢালা জামা পরুন। আজকাল
Palazzo Pant খুব চলছে, আর গরমেএটা বেশ স্বস্তি দেয়। চাইলে বিভিন্ন হালতা প্রিন্ট বা এক রংয়েরPalazzo এর সাথে ফতুয়া আর ওড়না ম্যাচিং করে পরতে পারেন।

খুব বেশি দাম দিয়ে জামা কাপড় কিনে পরলে ভাল লাগবে, কিন্তু অনেক সময় সেটা স্বস্তি দিবেনা মোটেও। তাই নিজের মতো করে জামা বানিয়ে নিন অথবা মাঝামাঝি দামের কাপড় দেখে কিনে নিন।
তবে কাপড় একটু খেয়াল করে কিনবেন। সব দোকানেই আরামদায়ক সুতি কাপড়ের জামা পাওয়াটা মুশকিল হয়ে যায় অনেকের কাছে!
সিম্পল সাদার মধ্যেই নিয়ে আসুন গর্জিয়াস লুক! যেমন- একটি সাদা কামিজ আর পাজামার সাথে শুধু রঙিন একটি ওড়নাই কিন্তু নিয়ে আসে গরমেগর্জিয়াস লুক।
দিন দিন গরম বাড়ছে। নিজের দিকে তাই খেয়াল রাখা উচিত সবারই। আর গরম সবার আগে যেই চিন্তা মাথায় আসে তা হল, পোশাক ধরন এবং পোশাকের রং, ডিজাইন। এই গরমে আরামদায়ক আর স্বস্তির পোশাক হিসেবে সাদা রং বেছে নিন।

 

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About ফারজানা হোসেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *