কফি পান কি স্বাস্থ্যসম্মত? জেনে নিন

কফি পানের উপকারিতা ও অপকারিতা নিয়ে বিতর্কের শেষ নাই। ক্যাফেইনকে অনেকেই বাতিল করে দিয়েছেন। আবার অনেকেই দাবি করেছেন ক্যাফেইন শরীরের জন্য ভালো উপাদান।

সম্প্রতি এক গবেষণায় দেখা গেছে, প্রতিদিন কেউ যদি ৩ থেকে ৫ কাপ কফি পান করেন, তাহলে তাদের ধমনিতে পানি জমা (ক্লোগড আর্টরিস) এবং হার্ট অ্যাটাক হওয়ার ঝুঁকি কমে যায়।

কফি

কফি পান কি স্বাস্থ্যসম্মত? জেনে নিন

আন্তর্জাতিক গবেষকদের একটি দল দক্ষিণ কোরিয়ার কাংবুক স্যামসাং হাসপাতালে এই গবেষণা পরিচালনা করে। গবেষকরা এই গবেষণায় খতিয়ে দেখেন কফির সঙ্গে করোনারি আর্টারি ক্যালসিয়ামের (CAC) যোগসূত্র। করোনারি আর্টারি ক্যালসিয়ামের (CAC) কারণে ধমনি শক্ত এবং সরু হয়ে পড়তে পারে, এমনকি উচ্চ রক্তচাপ অনুভূত হয়ে হার্ট অ্যাটাক এবং মস্তিষ্কে স্ট্রোকও হতে পারে।

১৩৮ জন নারী-পুরুষকে বিভিন্ন দলে ভাগ করে এই গবেষণাটি করা হয়। এখানে অংশ নেয়া ব্যক্তিদের মোটামুটি সবার বয়স ছিল ৪১-এর কাছাকাছি। যারা কফি একেবারেই পান করেন না, তাদেরও গবেষণাভুক্ত করা হয়।

তবে এই গবেষণায় বয়স, লিঙ্গ, ধূমপানের পরিমাপ, অ্যালকোহল পানের অবস্থা, ওজনাধিক্য, ডায়াবেটিস এবং হাইপার টেনশনের মতো বিষয়গুলো বিবেচনায় নেয়া হয়েছে।

গবেষণার শ্রেণিকরণে ছিল- যারা দিনে এক কাপও কফি পান করেন না, এক থেকে তিন কাপ কফি পান করেন, তিন থেকে পাঁচ কাপ প্রতিদিন এবং প্রতিদিন অন্তত পাঁচ কাপের বেশি পান করেন- এমনভাবে। ধমণী ভালো রাখতে কফির ভুমিকা জেনে নিন

ফলাফলে দেখা যায়, যারা একের কম কাপ কফি প্রতিদিন পান করেন, তাদের রক্তে CAC-এর অনুপাত ০.৭৭, যারা তিন কাপ কফি গ্রহণ করেন তাদের CAC-এর অনুপাত ০.৬৬, যারা তিন থেকে পাচ কাপ কফি খান তাদের CAC-এর অনুপাত ০.৫৯। যারা এর চেয়ে বেশি কফি পান করেন, তাদের CAC-এর অনুপাত ০.৮১।

ত্বকের উজ্জ্বলতা দ্রুত বৃদ্ধি করতে কফি!

গবেষকরা জানান, কফি CVD বা কার্ডিওভাসকুলার ডিজিজ বা রোগের ঝুঁকি বাড়ায়। অনেকগুলো গবেষণায় বলা হয়, উচ্চ কোলেস্টেরল এবং উচ্চ রক্তচাপ কফি পানের কারণে হতে পারে। আবার সম্প্রতি গবেষণাগুলোতে এও বলা হচ্ছে, কফি পান হৃৎপিণ্ডের বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধে কাজ করে, হৃৎপিণ্ডকে সবল রাখে।

তাই বলা যায়, কফি আসলেই শরীরের জন্য কতটুকু ভালো আর কতটুকু খারাপ তা নিয়ে এখনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে আসতে পারেননি গবেষকরা।

 

যে কোন স্বাস্থ্য বিষয়ক তথ্যের জানান দিতে আপনার ডক্টর রয়েছে আপনাদের পাশে।জীবনকে সুস্থ্য, সুন্দর ও সুখময় করার জন্য নিয়মিত ভিজিট করুন আপনার ডক্টর health সাইটে।মনে না থাকলে আপনি সাইট আপনার ব্রাউজারে সেভ করে রাখুন।ধন্যবাদ

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About সাদিয়া প্রভা

সাদিয়া প্রভা , ইন্ডিয়ার Apex Group of Institutions এর BBA এর ছাত্রী ছিলাম। বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিয়সক তথ্য নিয়ে লেখালেখি করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *