লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্সের একটি ভয়ংকর ভৌতিক ঘটনা (শেষ পর্ব)

আমি ভাবলাম এটাই সেই যুবতীর লাশ। মনে খটকা লাগলো- লাশের পাশে পুলিশ থাকার কথা কিন্তু লাশ একা পড়া আছে। তার উপর খালি নৌঁকায়। চিন্তা বাদ দিয়ে লাশটা উদ্ধারে লেগে গেলাম। নদীর তীরে আরেকটি খালি নৌকা বাঁধা ছিল। আমি সেই নৌকায় চড়ে নিজে বাইতে লাগলাম। অবাক ব্যাপার হচ্ছে আমি যতই ঐ লাশবাহী নৌকার কাছে যাচ্ছি সেটা ততই দূরে সরে যাচ্ছে। কিন্তু নদীতে এতটুকু স্রোত নেই। আমার কপালে ঘাম জমতে শুরু করলো।

লালশাহী

লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্সের একটি ভয়ংকর ভৌতিক ঘটনা

এক পর্যায়ে দেখলাম ঐ নৌকাটি নদীর ঠিক মাঝখানে চলে গিয়েছে। আমিও সেদিকে গেলাম। হঠাত্‍ মনে হলো কেউ আমার পেছনে গরম নিঃশ্বাস ফেলছে। ঘাড় ঘুরিয়ে তাকিয়ে দেখি কেউ নেই। এবার মাথা ঘুরিয়ে সামনে তাকাতেই আমার বুক ধক্ করে উঠলো। আমি দেখলাম ঐ লাশটা আমার নৌকার উপর পড়ে আছে আর দূরে ঐ নৌকাটিও উধাও।

 

আমি ভয়ে দোয়া দুরদ পড়তে থাকলাম। বুঝলাম ভীষণ বিপদ ফেঁসে গেছি। তবুও মনে সাহস জুগিয়ে আমি পাড়ের দিকে নৌকা ঘুরাই। কিন্তু আশ্চর্য! আমি নৌকা বেয়ে চলছি কিন্তু সেটা এগুচ্ছে না। ঠিক তখনই মনে হলো নৌকায় কেউ কাঁদছে। ভালোভাবে শুনে মনে হল লাশটি গোঙাচ্ছে। বৈঠা নৌকায় তুলে আমি ধীরে ধীরে লাশের কাছে গেলাম। লাশের দিকে তাকাতেই দেখি লাশের চোখ নেই যেন কেউ উপড়ে তুলেছে। তখনি লাশটি আমার দিকে মাথা ঘুরালো এবং গোঙাতে শুরু করলো।

একজন মৃত মানুষের ফিরে আসার ভয়ানক গল্প … ভিতুরা এই পোস্টটি পড়বে না

এবার আমি আর্ত চিত্‍কার দিয়ে পানিতে ঝাঁপ দিলাম। কিন্তু মনে হল কেউ আমাকে পানির নিচে টেনে ধরে রেখেছে। আমি উঠতে পারছিনা। এরপর আর কিছু মনে নেই। পরে জ্ঞান ফিরলে আমি টের পাই আমি একটি হাসপাতালে। পরে জানতে পারি আমি নাকি নদীর উপর নৌকায় ভেজা অবস্থায় অচেতন হয়ে পড়ে ছিলাম। অবাক করা ব্যাপার হলো লাশটি নাকি আমার গাড়িতেই পাওয়া গিয়েছিলো!

প্রিয় পাঠক ঘটনার প্রথম অংশ পড়ুন এখান থেকে

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About সাদিয়া প্রভা

সাদিয়া প্রভা , ইন্ডিয়ার Apex Group of Institutions এর BBA এর ছাত্রী ছিলাম। বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিয়সক তথ্য নিয়ে লেখালেখি করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *