বীর্যপাতের পর খারাপ লাগার কারণ কি?

বীর্যপাতের

বীর্যপাতের পর খারাপ লাগার কারণ কি?

আপনার ডক্টর অনলাইন বাংলা স্বাস্থ্য টিপস পোর্টালের পাঠক প্রশ্নের উত্তরের এই পর্বে আলোচনা করা হবে বীর্যপাতের পর খারাপ লাগার কারণ কি? সেই বিষয়ের উপর।
প্রশ্নঃ আমার প্রশ্ন হল, বীর্যপাতের পর আমার খুবই খারাপ লাগে। মনে হয় কেন হস্তমৈথুন করলাম, এটা না করলেও পারতাম। এতে করে আমি প্রতিবার হস্তমৈথুনের পর মুষঢ়ে যাই। কি করলে আমি বীর্যপাত উপভোগ করতে পারব হস্তমৈথুনের মতই, বীর্যপাত করার পর খারাপ লাগবে না ।

জানুন কেগেল ব্যায়াম করলে কি বীর্যপাত বিলম্বিত করা যায়?

আপনার ডক্টরের উত্তর: আপনার সমস্যা পুরোটাই মানসিক এবং সেটার কারণ মনে গেথে থাকা কিছু ভুল ধারণা। সামাজিক বা ধর্মীয় ভাবাবেগের বশে অনেকেই ভাবে যে বীর্যপাত একটি ক্ষতিকারক এবং অনৈতিক বিষয়। বীর্যপাতের পর খারাপ লাগা এই ভুল ধারণা মূলত মান্ধাতার আমলের কিছু নিয়ম-রীতি আঁকড়ে পড়ে থাকার মানসিকতার ফসল। প্রাচীনকালে এক সকালে ঘুম থেকে উঠে কোন মহাপুরুষের মনে হয়েছিল যে অকারণে বীর্যপাত পাপ, আর তার থেকে আমরাও মনে দাগিয়ে নিলাম যে বীর্যপাত করা সত্যিই পাপ, রাতে স্বপ্ন দেখে স্বতঃস্ফূর্ত বীর্যস্খলন একটা দোষ ,স্বপ্নদোষ ইত্যাদি। আরে ভাই, ওইসব পুরোনো ধ্যান-ধারণা টেনে-হিঁচড়ে পচা পুকুরের জলে ফেলে দিন! বিজ্ঞানের দৄষ্টিতে সব কিছু দেখতে শুরু কর। কোন এক সময় মানুষ ভাবত সূর্য পৃথিবীকে প্রদক্ষিণ করে, উল্টো বলার জন্য বেচারা গ্যালিলিওকে জেলের ভাত খেতে হয়েছিল! কিন্তু বিজ্ঞানের কল্যাণে আমরা এখন সত্যিটা জানতে পেরেছি। এই বিজ্ঞানের যুগে দাঁড়িয়েও যদি আপনি বিশ্বাস করুন যে সূর্য সত্যিই পৃথিবীকে প্রদক্ষিণ করে তবে সেটা যেমন মুর্খামি, তেমনি বীর্যপাত একটি খারাপ ব্যাপার এটা বিশ্বাস করাও পাগলামি।

জেনে নিন নারীর কি পুরুষের মতো বীর্যপাত হয় ?

বার বার পর্যালোচনা করেও এমন কোন প্রমাণ পাওয়া যায়নি যে পরিমিত হস্তমৈথুন ও সেইসঙ্গে বীর্যপাতে শরীরের বা মনের কোন ক্ষতি হয়। আপনি যদি হস্তমৈথুনের মাধ্যমে বীর্যপাত না করেন তাহলে ওই বীর্য হয় স্বতঃস্ফূর্ত বীর্যস্খলনের মাধ্যমে বেরিয়ে আসবে নতুবা ভেঙ্গে গিয়ে পুণরায় শরীরে শোষিত হবে। তবে শরীরে শোষিত হলেও বীর্যে এতই কম পরিমাণে পৌস্টিক দ্রব্য থাকে যে তাতে শরীরের বিশেষ কোন উপকার হয় না। উল্টে পরিমিত হস্তমৈথুন ও বীর্যপাতে মানসিক শান্তি বজায় থাকে এবং তার থেকে যে প্রত্যক্ষ জ্ঞান লাভ হয় তাতে ভবিষ্যতে যৌন জীবন সুখকর হয়। কিছু কিছু ধর্মে বলা হয় যে শরীরের শ্রেষ্ঠ বস্তু দিয়ে নাকি বীর্য তৈরি, তাই অকারণে বীর্যপাত পাপ কাজ। বাস্তব সত্য এটাই যে বীর্য প্রোটিন, শর্করা, ফ্যাট, জল এবং কিছু জীবিত কোষ (শুক্রাণু) সম্বলিত এক প্রকার সান্দ্র তরল যা বিবর্তনের ধারায় যৌন জননের (sexual reproduction) মাধ্যমে বংশ বিস্তারের প্রয়োজনে সৃষ্টি হয়েছিল। বীর্যের প্রাথমিক কাজ “জেনেটিক তথ্য” এক প্রজন্ম থেকে অপর প্রজন্মে ট্রান্সফার করা। ওর সাথে শরীরের শ্রেষ্ঠ বস্তুর কোন যোগ নেই।

জেনে নিন দ্রুত বীর্যপাতের সমাধান

এটা মনে রেখো যে পরিমিত বীর্যপাত কোন ক্ষতিকারক বিষয় নয়। তবে অতিরিক্ত হস্তমৈথুন ও বীর্যপাত অবশ্যই অনুচিৎ। তাতে হস্তমৈথুন অভ্যাসে পরিণত হয় যার থেকে শীঘ্রপতন, যৌন অনুভুতি হ্রাস ইত্যাদি সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে। অতিরিক্ত খেলে পেটের সমস্যা হয় বলে তুমি কি খাদ্যগ্রহণ পরিত্যাগ কর? তেমনি অতিরিক্ত হস্তমৈথুন ও বীর্যপাত ক্ষতিকারক বলেই বীর্যপাত একেবারে বন্ধ করে দেবারও কোন মানে নেই। নিশ্চিন্তে হস্তমৈথুন ও বীর্যপাত কর। এগুলো কোন খারাপ কাজ নয় এবং তোমার শরীরের কোন ক্ষতি হবেনা বীর্যপাত করলে। বীর্যপাতের প্রতি দৃষ্টিভঙ্গি বদলাতে পারলেই দেখবে ব্যাপারাটা কেমন উপভোগ্য হয়ে গেছে। পৃথিবীর অধিকাংশ পুরুষ হস্তমৈথুন বা যৌনসঙ্গমের মাধ্যমে বীর্যপাত করে আনন্দ অনুভব করে। ভালো থেকো।

আপনার ডক্টর হেল্থ সাইটে কোন প্রকার অশ্লীল আর্টিকেল দেওয়া হয় না। মূলত যৌন জীবনকে সুস্থ্য, সুন্দর ও সুখময় করে তোলার জন্য জানা অজানা অনেক কিছু তুলে ধরা হয়।এরপরও আপনাদের কোর প্রকার অভিযোগ থাকলে Contact Us মেনুতে আপনার অভিযোগ জানাতে পারেন, আমরা আপনাদের অভিযোগ গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করব। ধণ্যবাদ আপনার ডক্টর হেল্থ সাইটের সাথে থাকার জন্য।

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About সাদিয়া প্রভা

সাদিয়া প্রভা , ইন্ডিয়ার Apex Group of Institutions এর BBA এর ছাত্রী ছিলাম। বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিয়সক তথ্য নিয়ে লেখালেখি করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *