এখনো সাবধান হন! যে খাবার নিয়মিত খেলে কমে যায় যৌনশক্তি

অনেক পুরুষেরই একটি দুর্বল দিক হচ্ছে যৌন শক্তি কমে যাওয়া। আর এই সমস্যার কারণে অনেকেই নিজেকে এক প্রকার গুটিয়ে রাখেন। মানসিকভাবেও তারা খুব দুর্বল হয়ে যান। এমনকি তারা নিজের প্রতি আস্থা বা বিশ্বাস খুব অল্পতেই হারিয়ে ফেলেন।

এই সমস্যার পেছনে খাদ্যাভাসের মারাত্মক প্রভাব থাকতে পারে। খাদ্যাভাস আপনার লিবিডোতে ক্ষতিকর প্রভাব ফেলতে পারে। বিশেষ করে যখন বয়স বাড়তে থাকে তখন এই ক্ষতিকর প্রভাব পড়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।

Loading...

তাই জানা জরুরি কোন খাবারগুলো আপনার যৌন ইচ্ছা বা যৌন ক্ষমতা নষ্ট করে দিচ্ছে। সে অনুযায়ী অবশ্যই সেসব খাবারগুলো খাদ্যতালিকা থেকে বাদ দেয়া জরুরি। চলুন জেনে নেয়া যাক এমন কিছু খাবার সম্পর্কে যা নিয়মিত খাওয়ার ফলে যৌনশক্তি কমে যায়-

কর্ন ফ্লেক্স

কর্ণ ফ্লেক্স এমন একটি খাবার যা আপনার যৌনশক্তি কমিয়ে দেয়। কর্ন ফ্ল্যাক্সে ব্যবহৃত চিনি রক্তে নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। যা টেসটোসটের মাত্রা কমিয়ে দেয়। টেসটোসটের মাত্রা কমে গেলেই মানুষের যৌন আগ্রহ কমে যায়।

কৃত্রিম চিনি

কৃত্রিম চিনি শরীরে সেরোটোনিনের মাত্রা কমিয়ে দেয়। মানুষের সুখ অনুভব, কিংবা তাদের মানসিক অবস্থা এই সেরোটোনিনের উপর নির্ভরশীল। সেরোটোনিনের অভাবের কারণে মানুষের মাথাব্যথা করে, তারা হতাশা ও বিরক্তিতে ভোগে। যা যৌন আগ্রহের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হিসেবে কাজ করে ডোপামিন। কৃত্রিম চিনি মানবদেহের এই পদার্থটিকে প্রভাবিত করে।

পড়ুন  চিকন স্বাস্থ্য মোটা করার উপায় কি – অসাধারণ ৭টি Health Tips

টিনজাত খাদ্য

বেশির ভাগ টিনজাত খাদ্যে বেশি পরিমাণ সোডিয়াম ও সামান্য পরিমাণ পটাশিয়াম থাকে। টিনজাত খাদ্য মানবদেহের বিভিন্ন অঙ্গে রক্তের স্বাভাবিক গতিতে বাধার সৃষ্টি করে।

যষ্টিমধু

যষ্টিমধু দিয়ে তৈরি চা খেতে অনেকেই অভ্যস্ত। যষ্টিমধু শরীরে করটিসলের মাত্রা কমিয়ে দেয়। এর ফলে শরীরে টেসটোসটের মাত্রা কমে যায়। ফলে মানুষের যৌন আচরণে এটি নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। তাই যষ্টিমধুর চায়ের পরিবর্তে সবুজ চা খাওয়া যেতে পারে।

সয়া

সয়াবিন থেকে তৈরি বেশিরভাগ পণ্যই সাইটোয়েস্ট্রোজেন নামে একটি রাসায়নিক পদার্থ থাকে। এটি পুরুষ ও নারীর দেহে হরমোনের ভারসাম্যে বিরূপ প্রভাব ফেলে। একটি গবেষণায় দেখা গেছে, বিশ্বব্যাপী যারা সয়া পণ্য ভোগ করে তাদের মধ্যে যৌন আগ্রহ কম। তাই যেসব পুরুষ সন্তান গ্রহণের কথা ভাবছেন তারা খাদ্য তালিকা থেকে সয়া একদম বাদ দিয়ে দিন। কারণ সয়া শুক্রাণুর পরিমাণও কমিয়ে দেয়।

পুদিনা পাতা

সুগন্ধির জন্য পুদিনা পাতা অনেক বেশি জনপ্রিয়। কিন্তু যৌন জীবনের জন্য এটি মোটেও ভালো নয়। এটি শরীরে যৌন উদ্দীপনা সৃষ্টিকারী হরমোন টেসটোসটের মাত্রা কমিয়ে দেয়। যা শরীরকে ঠাণ্ডা করে দেয় এবং যৌন আগ্রহ কমিয়ে দেয়। তাই সুগন্ধির জন্য পুদিনা বাদ দিয়ে আদা খাওয়ার অভ্যাস করা যেতে পারে।

পড়ুন  না ঘষে মিনিটেই কাঁঠালের বিচি পরিষ্কার করার দারুণ কৌশল

কফি

কফি আপনার যৌন ইচ্ছা বাড়ানোতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। কফিতে যে ক্যাফেইন থাকে তা আপনার যৌনতার মুড কার্যকর রাখে। তবে অতিমাত্রায় কফি খেলে হতে পারে বিপত্তি! এটি মূত্রথলির ক্ষতি করে এবং যৌন ও থাইরয়েড হরমোন ভারসাম্যহীনতা তৈরি করে।

পনির

পনিরকে হরমোন ও অ্যান্টিবডি তৈরির কৃত্রিম উৎস মনে করা হয়। তবে বেশি মাত্রায় পনির খেলে শরীরে এস্ট্রোজেন-জাতীয় পদার্থের নিঃসরণ হয়, যা মানুষের যৌন আকর্ষণ কমিয়ে দেয়। এমনকি এর প্রভাবে যৌনশক্তি লোপ পেতেও পারে।

মদ

একটু মদ পান আপনার যৌন আকাঙ্ক্ষা বাড়িয়ে দিতে পারে। তবে অতিরিক্ত মদ খেলে তার পরিণাম কিন্তু সাংঘাতিক। কারণ অতিরিক্ত অ্যালকোহল যৌন জীবনে মারাত্মক ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে। ইরেক্টাইল সমস্যা সহ, ঠিকভাবে অর্গাজম না হওয়া এবং মিলনের শুরুতেই দ্রুত বীর্যপাত হয়ে যাওয়ার কারণ হতে পারে অতিরিক্ত মদ পান করা। তাছাড়া অ্যালকোহল আর রিচ ফুড সবসময় আপনাকে তন্দ্রাচ্ছন্ন করে রাখে, ফলে আপনি সেক্সের ব্যাপারে আর উৎসাহ বোধ করেন না।

আর্টিফিসিয়াল সুইটনার

আর্টিফিসিয়াল সুইটনারের মধ্যে একটি উপাদান থাকে তা শরীরের হ্যাপি হরমোন নষ্ট করে ফেলে। এর ফলে আপনার লিবিডো সাফার করে। এর কিছু সাইড এফেক্টস আছে যেমন মাথাব্যথা, অ্যানসাইটি ডিসওর্ডার আর ইনসোমনিয়া। তাই পরেরবার দোকানে গেলে ন্যাচারাল সুইটনার যেমন- মধু অথবা গুড় কিনুন। এতে আরো মধুময় হবে আপনার যৌন জীবন।

পড়ুন  যে ৮টি কারণে বেশি করে লিচু খাবেন

ক্রিস্পি ডিলাইটস

বেডরুমে এক প্যাকেট চিপস আপনার শরীরের বিভিন্ন টিস্যু আর সেল নষ্ট করে দেয়, সেই সঙ্গে আপনার লিবিডোকেও শেষ করে দেয়। পট্যাটো চিপস রেপসিড তেলের মধ্যে ভাজা হয় খুব হাই টেম্পাচারে। তাই ব্যাড ফ্যাট আর হাই টেম্পেরেচার আপনার ‘মুড ফর লাভ’ একেবারে শেষ করে দিতে পারে।

সূত্র: জিনিউজ

Loading...

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About সাদিয়া প্রভা

সাদিয়া প্রভা , ইন্ডিয়ার Apex Group of Institutions এর BBA এর ছাত্রী ছিলাম। বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিয়সক তথ্য নিয়ে লেখালেখি করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.