রাতে ত্বকের যত্ন নিতে যা যা করবেন

সারাদিনে নিজের যত্নের জন্য আপনি ঠিক কী কী করেন? সকালে ঘুম থেকে উঠে ভাল করে মুখ(Face) পরিষ্কার করা, তারপর স্নান সেরে ময়শ্চারাইজার লাগানো, রোদে বাইরে বেরনোর ২০ মিনিট আগে নিয়ম মেনে সানস্ক্রিন(Sunscreen), সপ্তাহে তিনদিন শ্যাম্পু ও কন্ডিশনিং নিজেকে ভাল রাখতে আরও কত সাধ্য সাধনা। মোটামুটি মিলে যাচ্ছে তো! কিন্তু রাতে শুতে যাওয়ার আগে?

Loading...

রাতে ত্বকের যত্নে যা যা করবেন

সারাদিনের ধুলো, ময়লা, ধোঁয়, দূষণ, কড়া রোদ আর কেমিক্যালযুক্ত কসমেটিক্সের প্রভাবে ত্বক ও চুলের করুণ অবস্থা হয়। তার ওপর নিত্যনৈমিত্তিক স্ট্রেসের ভূমিকাও তো কম নয়। সবকিছুর মোকাবিলায় দিনের শেষে প্রয়োজন ত্বক(Skin) ও চুলের বিশেষ পরিচর্যার।

সারাদিনের কাজকর্মের পর ক্লান্ত হয়ে পড়ায় রাতে আর তেমন যত্ন নেওয়া হয় না। কিন্তু রাতে শুতে যাওয়ার আগে নিজের যত্ন নেওয়াটাও সমান জরুরি। কারণ, রাতে আমরা যখন ঘুমোই তখন আমাদের সঙ্গে সঙ্গে আমাদের শরীরও বিশ্রাম নেয়। ফলে এই সময়ে সেল রিনিউনাল প্রসেস, বডি রিপেয়ারিং এর কাজ শুরু হয়। সারাদিনের ধুলো ময়লা, ঘাম, তেল রোমকূপে জমে রোমকূপের মুখ বন্ধ হয়ে যায়। তাই রাতে শোওয়ার আগে ত্বক(Skin) পরিষ্কার না থাকলে, রোমকূপের মুখ বন্ধ হয়ে গেলে স্কিন রিনিউয়াল ও রিপেয়ার প্রসেস ঠিকমতো হয় না। তাই স্বাভাবিক, শুষ্ক বা তৈলাক্ত যে ধরনের ত্বকই হোক না কেন রাতেও ক্লেনজ়িং-টোনিং-ময়শ্চারাইজ়িং একান্ত জরুরি। তবে শুধু মুখের যত্নই যথেষ্ট নয়। পাশাপাশি চোখ, ঠোঁট, হাত, পা, চুলেরও কিন্তু সমান যত্ন নিতে হবে। তবেই কাঙ্খিত ফল পাবেন। আসুন দেখে নিই রাতে শুতে যাওয়ার আগে কীভাবে নিজের যত্ন নেবেন।

পড়ুন  বুকের কফ দূর করার ঘরোয়া কিছু উপায় জেনে নিন

ক্লিনজিং: প্রথমেই আসে ক্লিনজ়িং-এর কথায়। আপনি সারাদিন বাড়িতে বা বাড়ির বাইরে যেখানেই থাকুন না কেন, রাতে শুতে যাওয়ার আগে ক্লিনজ়িং(Cleaning) কিন্তু মাস্ট। ত্বক ভাল রাখতে এর বিকল্প নেই। কারণ, সারাদিনের জমে থাকা ধুলোময়লা, ঘাম, তেল রোমকূপে জমে ত্বকের ক্ষতি করে। ত্বক পরিষ্কার না থাকলে রোমকূপের মুখ বন্ধ হয়ে যায়। ফলে স্কিন রিনিউয়াল ও রিপেয়ার প্রসেস ঠিকমতো হয় না। তাই স্বাভাবিক, শুষ্ক বা তৈলাক্ত যে ধরনের ত্বকই হোক না কেন রাতে শুতে যাওয়ার আগে ক্লেনজ়িং ইজ় মাস্ট। তবে সাবান দিয়ে মুখ ধোবেন না। এতে ত্বক(Skin) আরও শুষ্ক হয়ে যাবে। সাবানের পরিবর্তে ক্লেনজ়িং মিল্ক বা জেল দিয়ে মুখ পরিষ্কার করুন। যাঁদের ত্বক এমনিতেই শুষ্ক প্রকৃতির তাঁর ক্লেনজ়িং ক্রিম ব্যবহার করুন। ক্রিম ত্বকের ময়শ্চার ব্যালেন্স বজায় রাখতে সাহায্য করে। যাঁদের ত্বক তৈলাক্ত তাঁরা ক্লেনজ়িং জেল ব্যবহার করুন। এতে একদিকে যেমন ত্বক পরিষ্কার হবে তেমনই ত্বকের স্বাভাবিক আর্দ্রতাও বজায় থাকবে।

টোনিং: ক্লিনজিং এর পর জরুরি টোনিং। মুখ পরিষ্কার করার পর তুলোয় টোনার নিয়ে ভাল করে মুখ মুছে নিন। ত্বক(Skin) মসৃণ, টানটান এবং উজ্জ্বল রাখার জন্য টোনিং-এর কোনও বিকল্প নেই। মুখ ধোওয়ার পর তুলোয় টোনার লাগিয়ে খুব হালকা করে মুখ মুছে নিন। টোনার ত্বকে রক্তসঞ্চালন ভাল করতে সাহায্য করে। যে কোনও ভাল কসমেটিক্সের দোকানেই টোনার কিনতে পেয়ে যাবেন। এছাড়াও গোলাপ জল সবথেকে ভাল ন্যাচারাল স্কিন টোনার। তুলোয় গোলাপজল(rose water) নিয়েও মুখ মুছে নিতে পারেন।গ্রিন টিও কিন্তু টোনার হিসেবে দারুণ কাজ করে। গরম জলে গ্রিন টি আধঘণ্টা ভিজিয়ে রাখুন তারপর ঠান্ডা করে ছেঁকে নিন। এটা টোনার হিসেবে ব্যবহার করুন। শসা ন্যাচারাল অ্যাসট্রিনজেন্ট ও টোনার। শশার রস(Fennel juice) ও গোলাপ জল মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে ১৫ মিনিট পর জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। টোনার হিসেবে দারুণ কাজ করবে।

পড়ুন  সাজগোজ এবং মেকআপ খরচ কমিয়ে ফেলুন এই ৯ টি উপায়ে ?

ময়শ্চারাইজ়িং: ক্লিনজ়িং, টোনিং-এর মতোই ময়শ্চারাইজ়িং কিন্তু অত্যন্ত জরুরি। তাই মুখ পরিষ্কার করার পর অবশ্যই কোনও ভাল ময়শ্চারাইজার লাগান। ময়শ্চারাইজ়ার ত্বক(Skin) হাইড্রেটেড রাখে, ত্বক ভাল থাকে। রাত্রে শুতে যাওয়ার আগে মুখ পরিষ্কার করে মুখে ও গলায় নারিশিং ক্রিম লাগিয়ে হালকা হাতে আপওয়ার্ড ও আউটওয়ার্ড স্ট্রোকে কিছুক্ষণ মাসাজ করুন। থুতনি থেকে গলার নীচের অংশও ক্রিম(Cream) দিয়ে মাসাজ করুন।প্রয়োজন হলে হাতে সামান্য জল নিতে পারেন। সবশেষে ভিজে তুলো দিয়ে অতিরিক্ত ক্রিম মুছে নিন। নারিশিং ক্রিম ত্বকের ভেতর থেকে পুষ্টি জোগাবে। ফলে ত্বকের জেল্লা বহুগুণ বাড়বে। ইচ্ছে হলে বাড়িতেও ময়শ্চারাইজ়ার বানিয়ে নিতে পারেন। গোলাপ জল, গ্লিসারিন(Glycerin) ও অ্যালোভেরা জুস(Aloe vera juice) একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি এয়ারটাইট কন্টেনারে রেখে ফ্রিজে স্টোর করতে পারেন। ময়শ্চারাইজ়ার হিসেবে নিয়মিত ব্যবহার করতে পারেন। গ্লিসারিন ও গোলাপজলের মিশ্রণ ত্বক নরম রাখার জন্যে দারুণ কাজে দেয়।

Loading...

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About সাদিয়া প্রভা

সাদিয়া প্রভা , ইন্ডিয়ার Apex Group of Institutions এর BBA এর ছাত্রী ছিলাম। বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিয়সক তথ্য নিয়ে লেখালেখি করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.