যে ৮টি কারণে বেশি করে লিচু খাবেন

লিচু (Litchi) বা লেচু (বৈজ্ঞানিক নাম Litchi chinensis) একটি নিরক্ষীয় ও ক্রান্তীয় অঞ্চলের ফল। লিচুর (Litchi) ফল রসালো। বাংলাদেশে এটি গ্রীষ্মকালীন ফল এবং এখানে ফেব্রুয়ারিতে এর মুকুল আসে ও ফল সাধারনত মে মাসের দিকে পাকে। বাংলাদেশের সব স্থানেই লিচু (Litchi) হয়, তবে উত্তরবঙ্গের রাজশাহী ও দিনাজপুর অঞ্চলে এর ভাল ফলন হয়। এই এলাকার মঙ্গলবাড়িয়া লিচু বড় আকার ও সুস্বাদের জন্য বিশেষ জনপ্রিয়।

Loading...

যে ৮টি কারণে বেশি করে লিচু খাবেন

ফলের রাজা হিসেবে আমরা আম বুঝলেও চীনে কিন্তু রাজা পরিবর্তন হয়েছে। তারা ফলের রাজা হিসেবে এগিয়ে রাখে লিচুকে (Litchi) । চীনের বিভিন্ন সংস্কৃতিতে লিচুর প্রচুর ব্যবহার এর একটি কারণ হলেও, লিচুর অসাধারণ সব গুণ জানলে এটিকে ফলের রাজা হিসেবে মানতে আপনার কোন সমস্যা হওয়ার কথা নয়।

গ্রীষ্মের অন্যতম সুস্বাদু ফল লিচু। খুব অল্প সময় থাকে বলে চাহিদা অনেক বেশি। মৌসুমি ফল লিচু (Litchi) ভিটামিন ও খাদ্যশক্তির অন্যতম উৎস। এতে রয়েছে মানব শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় খনিজ উপাদান। আসুন চীনের ফলের রাজার কিছু অজানা গুণ সম্পর্কে জেনে আসি।

১. ওজন কমাতে

লিচুতে প্রচুর ফাইবার এবং ভিটামিন বি কমপ্লেক্স থাকে। যা মেটাবলিজম বা বিপাক ক্রিয়া বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। মেটাবলিজম শক্তি কম হলেই মানুষের দেহে চর্বি বেড়ে যায়। লিচু এই মেটাবলিজম বৃদ্ধিতে দারুণ ভূমিকা পালন করে। ফলে শরীরে অতিরিক্ত ওজন হ্রাসে সাহায্য করে।

পড়ুন  আমন্ড অয়েল এর যত গুণ

২. রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে

লিচু (Litchi) ভিটামিন ‘সি’ এর একটি অসাধারণ উৎস। প্রচুর ভিটামিন ‘সি’ সাথে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকার কারণে লিচু (Litchi) বেশ কিছু রোগ প্রতিরোধ করে। যেমনঃ সর্দির সমস্যা, ফ্লু, কাশি। এছাড়াও বিভিন্ন সংক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে লিচু কার্যকরী একটি ফল।

৩. বুড়িয়ে যাওয়া থেকে রক্ষা করে

সময়ের সাথে মানুষ বৃদ্ধ হয় স্বাভাবিক। কিন্তু বর্তমানে দূষণ, কালো ধোঁয়া, ভেজাল খাদ্য সহ আরো নানা কারণে মানুষ খুব দ্রুত বুড়িয়ে যাচ্ছে। মুখে বয়সের ছাপ আসার যে প্রধান কারণ তা আমাদের শরীরে উৎপন্ন হওয়া ফ্রি রেডিকেল। এই ফ্রি রেডিকেল রোধ করতে সবচেয়ে কর্মক্ষম হচ্ছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। একটি গবেষণায় দেখা গেছে, যারা প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ ফল খায় তাদের চেহারায় বয়সের ছাপ কম পড়ে। লিচুর (Litchi) মধ্যে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকায় এটি ত্বককে বুড়িয়ে যাওয়ার হাত থেকে রক্ষা করে।

৪. ত্বকের খুঁত দূর করে

লিচুর রস ত্বকের খুঁত ও দাগ দূর করতে সাহায্য করে। ৪/৫ টি লিচুর (Litchi) খোসা ও বীজ ছাড়িয়ে নিয়ে ভালো করে পিষে রস বের করে নিন। লিচুর রসে কটল বল চুবিয়ে নিয়ে মুখে লাগান এবং ১৫ মিনিট পর ঠান্ডা পানিতে পরিষ্কার কাপড় ভিজিয়ে নিয়ে মুখ মুছে নিন। হাইপারপিগমেন্টেশনের জন্যই ত্বকে দাগ হতে দেখা যায়। ভিটামিন সি এর চমৎকার উৎস লিচু। তাই লিচু ত্বকের দাগ দূর করতে অত্যন্ত কার্যকরী ভূমিকা রাখে।

পড়ুন  কোমর ও পেটের চর্বি কাটে যেসব খাবারে!

৫. চুলের ক্ষেত্রে লিচুর উপকারিতা

চুলের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে লিচু। একটি পাত্রে ৭/৮ লিচুর (Litchi) রসের সাথে ২ টেবিলচামচ অ্যালোভেরা জেল দিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি মাথার তালুতে ম্যাসাজ করুন। ১ ঘন্টা পর হালকা শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। লিচুতে কপার থাকে যা হেয়ার ফলিকলকে উদ্দীপিত করে চুল বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।

৬. ক্যান্সাররোধী

লিচুর (Litchi) সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ উপকারিতা হচ্ছে এর ক্যান্সার বিরোধী প্রভাব আছে। গবেষণায় দেখা গেছে যে লিচুতে শক্তিশালী অ্যান্টিওক্সিডেন্ট ও ক্যান্সার বিরোধী প্রভাব আছে। বিশেষ করে ব্রেস্ট ক্যান্সার কোষের এর উপর ভালো প্রভাব লক্ষ্য করা গেছে।

৭. হৃদরোগ থেকে রক্ষা করে

The Journal of Nutrition এর মতে, লিচুতে প্রায় ১৫% polypheols আছে যা এটিকে polyphenols সমৃদ্ধ ফলের মধ্যে দ্বিতীয় আসনে রেখেছে। অন্যান্য যে সব ফল পরীক্ষা করা হয়েছে তার মধ্যে লিচু হৃদযন্ত্র ভাল রাখতে অন্যান্য ফলের চেয়ে বেশি উপকারী। লিচু (Litchi) শরীরের খারাপ ধরণের কোলেস্টেরল (LDL) কমায় এবং ভাল কোলেস্টেরল (HDL) এর মাত্রা বাড়ায়। ফলে এতে হৃৎপিণ্ডের রক্তসঞ্চালন প্রক্রিয়া ঠিক থাকে এবং হার্ট এটাক, স্ট্রোক ও হাইপার টেনশনের ঝুঁকি কমে। আগ্রহী পাঠকদের জন্যে বলে রাখা ভাল, polypheols থাকা ফলের মধ্যে ১ম স্থান অধিকার করেছে আঙুর।

পড়ুন  সবুজ আপেল যে কারণে বেশি বেশি খাওয়া ভালো

৮. কোষ্ঠকাঠিন্য রোধ করে

লিচুতে প্রচুর দ্রবণীয় ফাইবার থাকার কারণে অন্ত্রের বিভিন্ন সমস্যা রোধ করে। এছাড়া লিচু পাকস্থলি এবং কোলন পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে। ফলে এটি কোষ্ঠকাঠিন্য রোধে কার্যকর ভূমিকা পালন করে। দীর্ঘদিন ধরে কোষ্ঠকাঠিন্যের রোগে যারা ভুগছেন তাদের জন্যে লিচু (Litchi) যে খুব উপকারী হবে এতে সন্দেহের কোন অবকাশ নেই।

সতর্কতা

ভারত ও বাংলাদেশে কিছু এলাকায় শিশুর মৃত্যুর কারণ হিসাবে লিচু (Litchi)  থেকে বিষক্রিয়ার প্রমাণ পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা। খালি পেটে অনেকগুলি লিচু খেয়ে ফেললে শরীরে যে বিষ তৈরি হয়, তার ফলেই সুস্থ-সবল শিশুদের হঠাৎ খিঁচুনি আর বমি শুরু হয়। তারপরেই অজ্ঞান হয়ে পড়ে তারা। আর এভাবে আক্রান্ত হওয়া অর্ধেকেরও বেশি শিশু মারা যায়।

Loading...

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About সাদিয়া প্রভা

সাদিয়া প্রভা , ইন্ডিয়ার Apex Group of Institutions এর BBA এর ছাত্রী ছিলাম। বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিয়সক তথ্য নিয়ে লেখালেখি করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.