ঠোঁটের কালচে ভাব দূর করার উপায় জেনে নিন

ঠোঁট সৌন্দর্যের প্রতীক, অনেকের ঠোঁট জন্মগত ভাবেই একটু কালচে হয়ে থাকে। এছাড়াও অযত্ন অবহেলা ও কিছু বদঅভ্যাসের কারণে ঠোঁটের স্বাভাবিক গোলাপী ভাব নষ্ট হয়ে তা কালচে ও মলিন হয়ে পরে। কিছু নিয়ম মেনে চললে এবং নিয়মিত ঠোঁট এর যত্ন নিলে এই কালচে ভাব অনেকাংশেই দূর করা সম্ভব। সৌন্দর্যের অনেকগুলো দিক আছে যার কোনটি অপূর্ণ থাকলে আপনার রূপের বিকাশ ব্যহত হয়। এমন একটি দিক হলো আপনার ঠোঁট। সেই ঠোঁট এর জন্য চাই একটু বেশি যন্ত-আত্তি। যেন আপনার সৌন্দর্যের অভিব্যক্তি হয়ে উঠে আরো মোহনীয়। জেনে নিই ঠোঁটের কালচে ভাব দূর করার কিছু সহজ পদ্ধতি।ঠোঁটের

ঠোঁটের কালচে ভাব দূর করার উপায় জেনে নিন

১। ঠোঁটের কালচে ভাব দূর করতে নিচের প্যাকটি ব্যবহার করুন:

ফ্রিজে রাখা কিছুটা ঠান্ডা মুলতানি মাটির সাথে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটিতে তুলো ভিজিয়ে ঠোঁটের ওপর হালকা ভাবে ঘষে দশ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

Loading...

২। যাদের ঠোঁট জন্মগত ভাবেই শুষ্ক তারা ঠোঁটে সবসময় চ্যাপস্টিক বা লিপবাম ব্যবহার করবেন।

পড়ুন  মসুরের ডাল দিয়েই হোক ত্বক উজ্জ্বল

৩। সামান্য দুধের সর বেঁটে অথবা কাচা দুধের উপর জমে থাকা ননী মাঝে মাঝে ঠোঁটে লাগাবেন, এতে ঠোঁট নরম থাকবে।

৪। প্রতিদিন রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে ঠোঁটে ক্লিনজিং মিল্ক বা কোল্ড ক্রীম লাগিয়ে কিছু সময় পর ভেজা তুলো দিয়ে মুছে ফেলুন তারপর হালকা নারিশিং ক্রীম লাগিয়ে ঘুমাতে যান।

৫। ঠোঁট কখনো খুব বেশি সময় শুষ্ক রাখবেন না।

৬। ঠোঁটকে সতেজ রাখতে সবসময় গ্লিসারিন ব্যবহার করুন।

৭। সাবান থেকে ঠোঁটকে দূরে রাখুন। ফেসওয়াস কিংবা ক্ষার বিহিন সাবান লাগানো যেতে পারে।

৮। মুখের ভেতর পরিস্কার রাখুন, প্রয়োজনে মাউথওয়াশ ব্যবহার করুন।

৯। প্রতিদিন দুধ এর সঙ্গে একটু লেবুর রস মিশিয়ে ঠোঁটে লাগান, দেখবেন আস্তে আস্তে ঠোঁট এর কালোভাব দূর হয়ে যাবে। -এটা সপ্তাহে দুবার করে ব্যবহার করলে আস্তে আস্তে কালচে ভাব দূর হয়ে যাবে।

১০। কোথাও দাওয়াত খেতে যাওয়ার আগে লিপস্টিক লাগানোর পর একটা পাফে সামান্য ট্যালকম পাউডার নিয়ে ঠোঁটের ওপর আলতো চাপ দিয়ে লাগান। এতে লিপস্টিক ঠোঁটের উপর বসে থাকবে।

Loading...
পড়ুন  লিপস্টিক দীর্ঘক্ষণ ঠোঁটে ধরে রাখার কিছু ট্রিকস্‌

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About পূর্ণিমা তরফদার

আমি পূর্ণিমা তরফদার আপনার ডক্টরের নতুন রাইটার। আশাকরি আপনার ডক্টরের নিয়ামিত পাঠকরা আমাকে সাদরে গ্রহণ করবেন ও আমার পোষ্টগুলো পড়বেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *