পায়ের ব্যথা কমানোর কিছু ঘরোয়া উপায় জেনে রাখুন

আমাদের মধ্যে পায়ের ব্যথা নেই এমন মানুষ পাওয়া খুব কঠিন। হালকা ব্যথা থেকে তীব্র ব্যথা হতে পারে বৃদ্ধ থেকে তরুণ যে কারো। সাধারণত পেশীতে টান পড়া, বৃদ্ধ বয়স, অনেক বেশি হাঁটাসহ বিভিন্ন কারণে পায়ের ব্যথা হতে পারে। তবে এর জন্য প্রাথমিক পর্যায়েই বড় ধরণের কোনো পদক্ষেপের প্রয়োজেন নেই। আপনি নিজেই তাৎক্ষনিক ভাবে এর চিকিৎসা করতে পারেন। কিছু ঘরোয়া উপায়ে সহজেই মুক্তি পেতে পারেন এই যন্ত্রণা থেকে। তাই জেনে নিন, পায়ের ব্যথা কমানোর কিছু ঘরোয়া উপায়।পায়ের ব্যথা

পায়ের ব্যথা কমানোর কিছু ঘরোয়া উপায় জেনে রাখুন

১। অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার
কুসুম গরম পানিতে এক থেকে দুই কাপ বিশুদ্ধ অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণে পা দুটি ৩০ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। এটি দিনে একবার করুন। এভাবে কয়েকদিন করুন। এছাড়া এক বা দুই টেবিল চামচ অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার এক গ্লাস কুসুম গরম পানিতে মিশিয়ে নিন। এরসাথে সামান্য পরিমাণ বিশুদ্ধ মধু মেশাতে পারেন। এটি দিনে দুইবার পান করুন।

২। হলুদ
পায়ের ব্যথা দূর করণীয় আরেকটি কার্যকরী উপায় হলো হলুদ। এক চা চামচ হলুদের সাথে কুসুম গরম তিলের তেলের সাথে মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটি দিয়ে পায়ের ব্যথা স্থানে ৩০ মিনিট ম্যাসাজ করুন। এটি দিনে দুইবার করুন। এছাড়া গরম দুধের সাথে হলুদ মিশিয়ে পান করতে পারেন। এটি দিয়ে দুইবার পান করুন। হলুদে থাকা অ্যান্টি অক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টি ইনফ্লামেটরি উপাদান ব্যথা কমাতে সাহায্য করে।

৩। বরফের সেঁক
কিছু পরিমাণ বরফের টুকরো একটি কাপড়ে পেঁচিয়ে নিন। অথবা আইস ব্যাগ ব্যবহার করুন। এটি পায়ের ব্যথা স্থানে রাখুন ১০ থেকে ১৫ মিনিট। এটি কিছুক্ষণ করুন। তবে বরফ সরাসরি ত্বকে ব্যবহার করবেন না।

৪। লেবুর রস
সমপরিমাণ লেবুর রস এবং ক্যাস্টর অয়েল মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটি দিয়ে পায়ের ব্যথা স্থানে ম্যাসাজ করুন। এটি দিনে দুই বা তিনবার করুন। এছাড়া এক কাপ কুসুম গরম পানিতে একটি লেবুর রস এবং সামান্য মধু মিশিয়ে পান করতে পারেন। এটি দিনে দুইবার পান করুন।

৫। ম্যাসাজ
অলিভ অয়েল, নারকেল তেল অথবা সরিষা তেল হালকা গরম করে নিয়ে আলতো হাতে ব্যথার স্থানে ১০ মিনিট ম্যাসাজ করুন। এটি দিনে ২-৩ বার করুন। ২০১২ সালের Science Translational Medicine journal এর মতে ১০ মিনিটের এই ম্যাসাজ পেশির প্রদাহ রোধ করে পা ব্যথা কমিয়ে দেবে। ম্যাসাজ রক্ত চলাচল বৃদ্ধি করে স্ট্রেস কমিয়ে দেয়।

৬। আদা
ব্যথার স্থানে দিনে ২-৩ বার আদার তেল দিয়ে ম্যাসাজ করুন। এর সাথে দিনে ২-৩ বার আদা চা পান করুন। আদার উপাদান ব্যথা দূর করে পেশীর প্রদাহ দূর করে দিবে। এটি পেশির রক্ত চলাচল সচল করে দেয়।

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About পূর্ণিমা তরফদার

আমি পূর্ণিমা তরফদার আপনার ডক্টরের নতুন রাইটার। আশাকরি আপনার ডক্টরের নিয়ামিত পাঠকরা আমাকে সাদরে গ্রহণ করবেন ও আমার পোষ্টগুলো পড়বেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *