চুল পড়া ও নতুন চুল গজানোর প্রাকৃতিক উপায় জেনে নিন

চুল পড়া সমস্যায় অনেকেই ভুগছেন! সবাই চান যে চুলগুলো মাথায় আছে, সেগুলো অন্তত থাক। কেউ চান নতুন চুল গজাতে। কিন্তু মাথার ত্বক এমন একটা জিনিস যে, যেন তেন ধরনের কেমিকেল ব্যবহারে এতে কোন ফল পাওয়া যায় না। উল্টো মাথার ত্বকের ক্ষতি হয় অনেক।চুল

চুল পড়া ও নতুন চুল গজানোর প্রাকৃতিক উপায় জেনে নিন

আজ আপনাদের মাথায় নতুন চুল গজানো এবং অতিরিক্ত Hair পড়া রোধ এর প্রাকৃতিক ওষুধের সন্ধান দিব। খুব বেশি কিছু না। কেবল সপ্তাহে ৩ থেকে ৪ দিন রাতে ঘুমানোর আগে করুন একটি সহজ কাজ। এই কাজটি আপনার খালি হয়ে যাওয়া মাথায় নতুন Hair গজাতে অত্যন্ত সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। আর এতে আপনার কাজে আসবে খুব সাধারণ অলিভ অয়েল ও রসুন!

হ্যাঁ, রসুনেই গজাবে চুল ! রসুনে আছে উচ্চমাত্রার সালফার, ভিটামিন সি, সেলেনিয়াম এবং হরেক রকম খনিজ উপাদান যারা নতুন Hair গজাতে অত্যন্ত সহায়ক। রসুনে উপস্থিত কপার নতুন Hair গজায়,কালো করে ও চুলকে ঘন করে। রসুনের ব্যবহারে চুলে কোন সাইড এফেক্ট হওয়ার সম্ভাবনা একদম নেই।

পড়ুন  চুল পড়া বন্ধ করতে মাত্র ৫টি টিপস মেনে চলুন

আপনাকে করতে হবে দুটি কাজ। এক, রসুনের নির্যাস মেশানো অলিভ অয়েল তৈরি করতে হবে। এটা করার জন্য এক বোতল অলিভ অয়েলে কয়েক কোয়া রসুন ফেলে রাখুন সপ্তাহ খানেক। মোটামুটি ৭ দিন পার হয়ে গেলেই তৈরি আপনার তেল। মাথায় যখনই তেল দেবেন, এই তেলটি ব্যবহার করুন। Hair fall রোধ করতে ও মাথায় নতুন Hair গজাতে এই তেলটি অত্যন্ত সহায়ক। গার্লিক অয়েল প্রস্তুত হবার আগ পর্যন্ত Hair যেখানে কম সেখানে রসুনের কোয়া ঘষে পরে অলিভ অয়েল দিতে পারেন।

Loading...

চুল গজানোর ৫টি ঘরোয়া উপায়

তাছাড়া মাথায় উঁকুন থাকলেও এটি কাজে দিবে। সেক্ষেত্রে অ্যাপেল সিডার ভিনেগার, অলিভ অয়েল ও রসুন বাটা মিশিয়ে মাথায় লাগিয়ে অপেক্ষা করুন ২ ঘণ্টা। তারপর মাথা ধুয়ে, শুকিয়ে সাদা ভিনেগার স্প্রে করুন চুলে। এরপর চিকন দাঁতের চিরুনি দিয়ে মাথা আঁচড়ান। উঁকুন চলে যাবে। তবে উঁকুন তাড়ানোর আরও সোজা উপায়টি হচ্ছে, পুরো চুলও মাথার ত্বকে বেশি করে মেয়নেজ লাগান। মাথা ভালো করে ম্যাসাজ করুন। ২ ঘণ্টা পর চিকন দাঁতের চিরুনি দিয়ে মাথা আঁচড়ে ফেলুন। নিকি ও উকুন মরে যাবে।

পড়ুন  প্রাকৃতিক রূপচর্চায় মেহেদি পাতার ব্যবহার

এছাড়াও সপ্তাহে কমপক্ষে ৩ বার থেরাপি নিতে পারেন। কয়েক কোয়া রসুন নেবেন, এই রসুনের কোয়া একটু থেঁতলে নিয়ে চুল কমে যাওয়া স্থানগুলোতে ঘষে ঘষে লাগাবেন। আপনি চাইলে রসুনের রস বা রসুনের পেস্টও প্রয়োগ করতে পারেন। রসুন মাথায় লাগানোর পর এক ঘণ্টা অপেক্ষা করবেন। তারপর অলিভ অয়েল দিয়ে মাথার ত্বক খুব ভালো করে ম্যাসাজ করে নিবেন। তারপর একটি শাওয়ার ক্যাপ বা পলিথিন মাথায় লাগিয়ে ঘুমাতে যান। কমপক্ষে ৮ ঘণ্টা চুলে এই মিশ্রণ রাখবেন। সকালে ভালো করে শ্যাম্পু করে নিন।বাজারে এমন অনেক কিছুই আছে। নিজেও বানিয়ে নিতে পারেন!যদি রসুন দেয়ায় মাথায় জ্বলুনি হয়, তাহলে সাথে সাথে মাথা ধুয়ে ফেলুন। সেক্ষেত্রে আর কখনো এই থেরাপি পদ্ধতিতে যাবেন না। তবে তেল-রসুনের মিশ্রণটি ব্যবহার করতে পারেন সব সময়ই।

 

Loading...

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About ফারজানা হোসেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.