cool hit counter
Home / ত্বকের যত্ন / তৈলাক্ত ত্বক থেকে পিম্পল দূর করার উপায়

তৈলাক্ত ত্বক থেকে পিম্পল দূর করার উপায়

তৈলাক্ত ত্বক থেকে পিম্পল দূর করার উপায়
তৈলাক্ত ত্বক থেকে পিম্পল দূর করার উপায়

যাদের ত্বক তৈলাক্ত তারার বেশ ভালো করেন জানেন যে, তৈলাক্ত ত্বকের জন্য একটু বাড়তি যত্ন নিতে হয়।নারীদের জন্য সবচেয়ে ভয়ংকরহলো পিম্পল যা তৈলাক্ত ত্বকের  একটি স্কিন প্রবলেম। ত্বককে স্বাস্থ্যবান রাখতে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ তেল জরুরী।এই তেল তারুণ্য ধরে রাখতে সহায়তা করে এবং আমাদের ত্বককে শুষ্ক করার হাত থেকে রক্ষা করে। তৈলাক্ত ত্বকের নানবিধ সুবিধা আছে যেমন তেল বলিরেখা ও মুখের রঙের কোন পরিবর্তন হওয়া থেকে রক্ষা করে। কিন্তু তৈলাক্ত ত্বকের অসুবিধাও কম না। তৈলাক্ত ত্বকে খুব সহজে ধুলোবালি আটকে যায় এবং অতিরিক্ত তেল মুখের লোমকূপগুলোকে বন্ধ করে দেয়। এতে করে ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ হয়ে পিম্পল হওয়ার প্রকোপ বাড়ে। কিছু ক্ষেত্রে ত্বক পরিষ্কার না রাখায় পিম্পল দেখা দিতে পারে। পিম্পল সেটা যেভাবেই হোক তৈলাক্ত ত্বকের পিম্পল সারিয়ে তোলা বেশ কষ্টসাধ্য কাজ।তবে fair skin এর জন্য আমরা এমন কিছু নাই যে করতে রাজি না।

চলুন Online Bangla Healh Tips আপনার ডক্টরের অঅজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে জানার চেস্টা করি যে, কীভাবে তেলতেলে ত্বক থেকে পিম্পল দূর করা যায়।

তৈলাক্ত ত্বকে পিম্পল সারাতে ২ টি ফেস প্যাক ব্যবহার করা যেতে পারে-

লেবুর রস ও মধুঃ
তৈলাক্ত ত্বকের যত্নে লেবু সবচেয়ে ভালো ঘরোয়া উপাদান, লেবুতে উপস্থিত সাইট্রিক অ্যাসিড তৈলাক্ত ত্বকের তেল নিয়ন্ত্রণ করার সাথে সাথে ত্বকের ব্যাকটেরিয়া প্রতিরোধ করে ত্বকে পিম্পল হওয়ার চান্স কমিয়ে দেয়। মধুর অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল উপাদান তৈলাক্ত ত্বকে পিম্পল হতে বাধা প্রমাণ করে, ত্বকের ময়েশ্চারাইজারের স্তর ঠিক রাখে ও ত্বক উজ্জ্বল করে তোলে।

যেভাবে করবেনঃ
একটি ফ্রেশ লেবু থেকে এক টেবিল চামচ রস নিয়ে সাথে সমপরিমাণ মধু নিয়ে একটি পাত্রে মিশান। দেখবেন এই দুই উপাদান মিলেমিশে বেশ গাড় লিকুইড আকার ধারণ করবে। এবার এই লিকুইড আপনার ত্বকে লাগিয়ে ১৫ মিনিট রেখে দিন। ১৫ মিনিট পর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে আপনার ত্বক ধুয়ে ফেলুন।এই প্যাকটি ব্যবহার করাই লক্ষ্য করবেন আপনার ত্বকে পিম্পল কমে আসবে, পিম্পলের দাগ হালকা হতে শুরু করবে এবং আপনার ত্বক উজ্জ্বল হচ্ছে। তৈলাক্ত ত্বকের পিম্পল প্রতিরোধে আপনি এই প্যাকটি সপ্তাহে দুই বার ব্যবহার করুন।

বেসন ও দই ফেস প্যাকঃ
বেসন কমবেশি আমরা সবাই চিনি। এটি আমাদের রান্নাঘরের একটি অত্যন্ত সহজলভ্য খাদ্য উপাদান। আর দইকে তো নতুন করে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার প্রয়োজন নেই। তাই আমাদের তৈলাক্ত ত্বকের পিম্পল সারাতে এই ফেস প্যাকটি বানাতে আপনাকে খুব বেশি ছোটাছুটি করতে হবে না। বেসন প্রোটিন আর ভিটামিনের এক বিরাট উৎস আর দই ভিটামিন এ ও সি তে ভরপুর। দই ত্বক নরম ও নমনিয় রাখে আর বেসন ত্বকের অতিরিক্ত তেল শুষে নিয়ে ত্বকের উজ্জলতা ধরে রাখে। এবং এই দুই উপাদান একসাথে হয়ে তৈলাক্ত ত্বকের পিম্পল সারাতে ভালো কাজ করে।

যেভাবে করবেনঃ
১ টেবিল চামচ দই ও ২ টেবিল চামচ বেসন  নিয়ে একটি পাত্রে চামচের সাহায্যে পেস্ট বানান। পেস্ট হয়ে আসলে এতে দুই ফোটা মধু ও এক চিমটি হলুদ মিশিয়ে নিন। এবার এই প্যাকটি আপনার মুখে ও গলায় সুন্দর করে লাগিয়ে নিন এবং শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর এটি শুকিয়ে গেলে হালকা গরম পানি হাতের সাহায্যে লাগিয়ে প্যাকটি ত্বক থেকে লুজ করে নিন। এবার হালকা ঘষে প্যাকটি মুখ থেকে ঝরিয়ে ফেলুন। এতে করে ত্বকের ডেড সেল উঠে আসার সাথে ত্বকের অতিরিক্ত তেল শুষে আসবে। সবশেষে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ দিয়ে ফেলুন।
এই প্যাকটি সপ্তাহে দুইবার ব্যবহার করুন। কিছুদিন এভাবে ব্যবহার করার পর আপনার ত্বকের পিম্পল নিয়ন্ত্রণে চলে আসলে ১৫ দিন পর পর একবার ব্যবহার করুন।

তৈলাক্ত ত্বকের জন্য উপকারী কিছু টিপসঃ
* পানিকে জীবন সঙ্গী করুন।প্রত্যেকদিন ৯-১০ গ্লাস পানি খাওয়ার অভ্যাস করুন।।
* যেসব খাবার তেলযুক্ত সেগুলো এড়িয়ে চলুন।
* প্রতিদিন রাতে খাবার  খাওয়ার শেষে অন্তত্য একটি মৌসুমি ফল খাবেন।
* বাইরে থেকে আসলে বাইরের ধূলাাবালি ত্বকে লেগে যায় তাই বাইরে থেকে আসার সাথে সাথে মুখ পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
* তৈলাক্ত ত্বক যদি ভালো রাখতে চান তবে, মাঝে মধ্যে গরম পানির স্টিম নিতে পারেন।

আপনাদের রূপে আভিজাত্য অানতে আমরা রয়েছি আপনাদের পাশে।আপনার রূপচর্চা বিষয়ক যেকোন টিপস পেতে ভিজিট করুন আপনার ডক্টর।আশাকরি আপনার প্রয়োজনানুসারে যেকোন তথ্য দিতে পারব বলে আশা রাখি।যদি আপনার ডক্টর সাইটটি মরে না থাকে, তবে অপনার ব্রাউজারে সেভ করে রাখতে পারেন।ধন্যবাদ
সূত্র:সাজগোজ

আপনার স্বাস্থ্য বিষয়ক যে কোন সমস্যার জন্য এখানে কমেন্ট করে জানান।তাছাড়া অপনারা কোন ধরণের পোষ্ট চান তাও জানাতে ভুলবেন না।ধন্যবাদ

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About সাদিয়া প্রভা

সাদিয়া প্রভা , ইন্ডিয়ার Apex Group of Institutions এর BBA এর ছাত্রী ছিলাম। বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিয়সক তথ্য নিয়ে লেখালেখি করি।

Check Also

পায়ের যত্ন

বর্ষায় পায়ের যত্ন – Foot Care

ব্যস্ত জীবনে সকাল থেকে রাত অব্দি আমরা ছুটে বেড়াই। নিজেরা ক্লান্ত হই তো বটেই, সেই …