cool hit counter

চোখের পাপড়ি ঘন আর দীর্ঘ করুন মাত্র ৪ উপায়ে

কালো হরিন চোখ শুধু কবিতা বা প্রেমিকের উপমায় নয় সত্যি সত্যি আপনারও হতে পারে। ভাবছেন কীভাবে? আপনার চোখের পাপড়ি যত ঘন হবে আপনার চোখকে তত কালো মনে হবে। চোখের পাপড়ি যত দীর্ঘ হয় তত এটা বাঁকানো থাকে আর আপনার চোখকে ততই মায়াময় করে তোলে। আবার চোখের পাপড়ি কম থাকার কারণে আপনার পটল চেরা চোখের সৌন্দর্য ঢাকা পড়ে যাবে। মনে হবে সাপের চোখ যাতে পাপড়ি থাকে না। চোখের লম্বা ঘন পাপড়ি চোখের সৌন্দর্য বাড়িয়ে দেয়। আজকাল এই চোখের পাপড়ি ঘন করে তোলার জন্য আইল্যাশ এর ব্যবহার অনেক বেড়েছে। আপনি প্রাকৃতিক উপায়ে ও আপনার কাজল কালো চোখের পাপড়ি ঘন আর লম্বা করে তুলতে পারেন। কারণ সবাই আইল্যাশ ব্যবহার করতে পারে না। অনেকের আইল্যাশ লাগালে অ্যালারজি হয় আবার অনেকে এটি ব্যবহার করলে অসস্তি বোধ করেন। তাই প্রাকৃতিক উপায়ে আপনি যদি আপনার চোখের পাপড়ি বড় কালো করে তুলতে পারেন সেটা হবে দীর্ঘস্থায়ী আর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া মুক্ত।

চোখের পাপড়ি

চোখের পাপড়ি ঘন আর দীর্ঘ করুন মাত্র ৪ উপায়ে

কীভাবে আমরা আমাদের চোখের পাপড়ি ঘন কালো আর দীর্ঘ করে তুলব তার কিছু সহজ ঘরোয়া পদ্ধতি আসুন জেনে নিই-

সব কাজের কাজী পেট্রোলিয়াম জেলি

অলিভ অয়েলের মতো পুরানো পরিষ্কার মাস্কারার ব্রাশ দিয়ে পেট্রোলিয়াম জেলি চোখের পাপড়িতে লাগান ঘুমাতে যাবার আগে।ভোরে ঘুম থেকে উঠে কুসুম কুসুম গরম পানিতে মুখ পরিষ্কার করে ফেলুন।

অ্যালোভেরা জেল

অলিভ অয়েলের মতো পুরানো পরিষ্কার মাস্কারার ব্রাশ অ্যালোভেরা জেলের মধ্যে ডুবিয়ে চোখের পাপড়িতে লাগান ঘুমাতে যাবার আগে। ভোরে ঘুম থেকে উঠে কুসুম কুসুম গরম পানিতে মুখ পরিষ্কার করে ফেলুন। এছাড়া এক টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল, এক টেবিল চামচ জোজোবা ওয়েল আর এক চা চামচ ক্যামেলিয়া ইনফিউসান মিশিয়ে একটি এসেন্সিয়াল ওয়েল তৈরি করুন আর এটি চোখের পাপড়িতে মাস্কারার মতো ব্যবহার করুন। দিনে অন্তত দুইবার এটি ব্যবহারের ১৫ মিনিট পর কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। দেখুন কিছু দিনের মধ্যে আপনার চোখের ভাষা সবার কাছেই অন্যরকম হয়ে উঠবে।

অলিভ অয়েল

প্রতি রাতে ঘুমানোর আগে পুরানো পরিষ্কার মাস্কারার ব্রাশ দিয়ে আপনার চোখের পাপড়িতে অলিভ ওয়েল হালকা করে লাগাতে ভুলবেন না। ভোরে ঘুম থেকে উঠে কুসুম কুসুম গরম পানিতে মুখ পরিষ্কার করে ফেলুন। আপনি অলিভ অয়েলের পরিবর্তে আমন্ড বা ক্যাস্টর ওয়েলও ব্যবহার করে দেখতে পারেন। ২ থেকে ৩ মাসের মধ্যেই আশানুরুপ ফল পাবেন।

অতি সুলভ ডিম দিয়ে

ডিমের সাদা অংশের সাথে এক টেবিল চামচ গ্লিসারিন মিশিয়ে নিন ভালোভাবে আর তারপর চোখ বন্ধ করে কটন বাড দিয়ে এই মিশ্রণ চোখের পাপড়িতে লাগান । ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। মাসে ১০/১২ বার এটি ব্যবহার করুন। ৪/৫ মাসের মধ্যেই আপনার চোখের পাপড়ি ঘন আর লম্বা হবে।

 

এবার চোখের পাপড়ি নিয়ে কিছু সহজ টিপস

চোখের মেকআপ এর ব্যবহার এর উপরও আপনার চোখের পাপড়ির গঠন আর গুনগত দিক নির্ভর করে। খুব ক্লান্ত থাকলেও মুখের আর চোখের মেকআপ না তুলে কখনও ঘুমাবেন না। মেকআপ সারা রাত আপনার চোখের পাপড়িতে থেকে এটি শক্ত হয়ে পাপড়ি ভেঙ্গে ফেলে ।
আপনার খুব বেশী প্রয়োজন না হলে গ্লু দিয়ে চোখে আইল্যাশ ব্যবহার করেবন না।
চোখের মেকাপের পণ্য অবশ্যই যেন ভালো কোম্পানির ও বিশ্বস্ত ব্রান্ডের হয়।
চোখের পাপড়ি নিয়মিত পরিষ্কার করবেন চুলের মতো।
আপনার মাথায় খুসকি হলে আপনার চোখের পাপড়িতেও খুসকি হতে পারে। খুসকি হলে চোখের পাপড়ি ঝরে যায় আর রঙও নষ্ট হয়। তাই চুল ও চোখের পাপড়ি খুসকি মুক্ত রাখতে চেষ্টা করবেন সবসময়।
চোখ খুব চুলকাবেন না কখনও। বা চোখের পাপড়িতে টানাটানি করবেন না।
চুলের মতো ভিটামিন ই চোখের পাপড়ির বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।
খুব ভালোভাবে না জেনে বা বুঝে চোখের আইল্যাশ কোঁকড়া করার মেশিন ব্যবহার করবেন না।
ছবি – ফরইউম্যাগাজিন.এনআই, টকিল্যান্ড.কম

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About সাদিয়া প্রভা

সাদিয়া প্রভা , ইন্ডিয়ার Apex Group of Institutions এর BBA এর ছাত্রী ছিলাম। বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিয়সক তথ্য নিয়ে লেখালেখি করি।