cool hit counter

গর্ভপাত রোধ করার জন্য করণীয় কী?

প্রশ্নঃ প্রায় এক মাস হলো কোনো প্রকার পিল খাওয়াইনি। এতে কি গর্ভপাতের সম্ভাবনা আছে? গর্ভপাত যেন না হয় এর জন্য কী করতে পারি?

গর্ভপাত
আপনার স্ত্রী যদি গর্ভধারণ করে থাকেন তাহলে কোনো কারণ ছাড়া তিনি গর্ভপাত করবেন কেন? আপনার স্ত্রীর শারীরিক অবস্থা ঠিক আছে কি না তা একজন গাইনোকোলজিস্ট দ্বারা চেক করান এবং গর্ভধারণের প্রয়োজনীয় চিকিৎসা গ্রহণ করুন। শারীরিকভাবে সুস্থ থাকলে গর্ভপাতের কোনো সম্ভাবনা থাকবে না। গর্ভপাত মূলত কিছু বিশেষ কারণের উপর নির্ভরশীল। এ সম্পর্কে বিস্তারিত পোস্টগুলো পড়ে জানুন। ধন্যবাদ

জেনে নিন অকাল গর্ভপাতের প্রধান কারণগুলোঃ

গর্ভধারণ করার ক্ষমতা নারীদের জন্য একধরনের আশীর্বাদের মতো। কিন্তু নারীদের জন্য দুর্বিষহ যন্ত্রণার একটি দুর্ঘটনা হচ্ছে অকাল গর্ভপাত। একজন নারী নিজের দুঃস্বপ্নেও এই দুর্ঘটনার কথা ভাবতে পারেন না। কিন্তু ইদানীং অনেক নারীকেই এই দুর্ঘটনার শিকার হতে হচ্ছে। গর্ভধারণের প্রাথমিক পর্যায় অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ, কারণ এই সময়েই ঘটতে পারে এই দুর্ঘটনা। কিন্তু ঠিক কি কারণে এই অকাল গর্ভপাতের মতো দুর্ঘটনা ঘটে যা জানেন কি? চলুন জেনে নেয়া যাক অকাল গর্ভপাতের প্রধান কারণগুলো।

১) জেনেটিক্যাল কারণ

প্রায় ৫০% অকাল গর্ভপাতের মূল কারণ হচ্ছে জেনেটিক ব্যাপারসমূহ। গর্ভের ভ্রূণটি জেনেটিক অথবা ক্রোমোজোমের সমস্যার কারণে বেঁচে থাকে না। তবে এই ধরণের গর্ভপাতের পর পরবর্তী সময়ে নারীরা সাধারণভাবেই গর্ভধারণ করতে পারেন।

২) ইমিউনোলজিক্যাল কারণ

কিছু নারীর রক্তে অ্যান্টিবায়োটিকের মাত্রা বেশি থাকে যা নিজের কোষকেই আক্রমণ করে বসে। এই ধরণের অ্যান্টিবায়োটিক প্ল্যাসেন্টাকে আক্রমণ করে অথবা ভ্রুনের রক্তসঞ্চালন পথে বাঁধা সৃষ্টি করে যার কারণে ভ্রূণটি বাঁচানো সম্ভব হয় না।

৩) অ্যানাটোমিক কারণ

অনেক নারী দেহের ইউটেরাসে সেপ্টাম অর্থাৎ একধরণের দেয়াল থাকে, ডাবল অথবা হাফ ইউটেরাইন ক্যাভিটি থাকে যার কারণেও অকাল গর্ভপাতের সম্ভাবনা দেখা দেয়।

৪) ইনফেকশনের কারণে

গর্ভধারণের প্রাথমিক সময়ে ইনফেকশনের সমস্যা দেখা দিলে গর্ভপাতের সম্ভাবনা দেখা দেয়। ইনফেকশনের কারণে নানা ধরণের ব্যাকটেরিয়া, ভাইরাস এবং প্যারাসাইট দেহে আক্রমণ করে যার কারণে অকাল গর্ভপাত ঘটে।

৫) হরমোন এবং মাসিকের সমস্যা (এন্ডোক্রাইন)

গর্ভধারণের প্রাথমিক পর্যায়ে মাতৃদেহে নানা ধরণের হরমোনের সৃষ্টি হয় যাতে তার দেহ পারিপার্শ্বিক পরিবেশের সাথে মানিয়ে চলতে পারে এবং দেহে এমব্রায়ো তৈরি করতে পারে। এক্ষেত্রে যেসকল নারীদের মাসিকে সমস্যা এবং পিসিওএস রয়েছে তাদের অকাল গর্ভপাতের সম্ভাবনা দেখা দেয়।

৬) অন্যান্য কারণ

দেহের জন্য ও ভ্রুনের জন্য ক্ষতিকর পদার্থ যেমন ড্রাগ, অ্যালকোহল (মদ), ধূমপান এবং অতিরক্ত ক্যাফেইন গ্রহণের কারণে গর্ভপাত হতে পারে। এছাড়াও অতিরিক্ত মানসিক চাপের কারণে ভ্রুন ক্ষতিগ্রস্থ হয় যার কারণেও অকাল গর্ভপাত হয়। গর্ভপাতের পরে স্তন ঝুলে গেছে স্তন গুলি পুর্বাবস্থায় ফিরিয়ে আনতে হলে কি করতে হবে? জানুন এখান থেকে

সূত্রঃ দ্য টাইমস অফ ইন্ডিয়া

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About সাদিয়া প্রভা

সাদিয়া প্রভা , ইন্ডিয়ার Apex Group of Institutions এর BBA এর ছাত্রী ছিলাম। বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিয়সক তথ্য নিয়ে লেখালেখি করি।