cool hit counter
Home / ঈদের সাজ / আপনার ঘরকে সাজিয়ে তুলুন আকর্ষণীয়ভাবে এই ঈদে

আপনার ঘরকে সাজিয়ে তুলুন আকর্ষণীয়ভাবে এই ঈদে

নিজের বাসাটাকে আমরা সবাই চাই সুন্দর আর আকর্ষণীয় করে সাজিয়ে তুলতে। শুধুমাত্র সুন্দর ডিজাইনের একটি বাসা বানিয়ে অপরিকল্পিতভাবে জিনিস পত্র বোঝাই করে রাখলেই আপনার বাসা আকর্ষণীয় হয়ে উঠবে না। বাসা সুন্দর আর আকর্ষণীয় করে তুলতে চাইলে আপনার জানতে হবে বাসা সাজানোর আলাদা ধরণ। থাকতে হবে সবার থেকে আলাদা বাসা সাজিয়ে তোলার জ্ঞান।

সাজিয়ে

 

তবে হ্যাঁ সেটা এতোটা ও বেশী আলাদা কিছু নয় যে আপনাকে এর জন্য খুব মাথা খাটাতে হবে বা চেষ্টা তদবির করতে হবে। সবার চেনা জানা জিনিসটাকেই আপনাকে একটু আলাদা করে উপস্থাপন করতে হবে, পার্থক্য এতটুকুই।

নিজের বাসাকে আকর্ষণীয় করে সাজিয়ে  তোলার কিছু পদ্ধতি-

সোফায় কুশন ব্যবহার ক্ষেত্রে একটু বৈচিত্র্য আনতে পারেন। সোফায় একটা কুশন খুব সাধারণ আর সাদা মাটা দেখায়, তাই বাসা আকর্ষণীয় করে তুলতে সোফায় রং আর ডিজাইনে বৈচিত্র্য রেখে ডাবল কুশন ব্যবহার করতে পারেন।
আপনার বেডরুমে একটু আলাদা লুক আনতে আর সবার মতো ছোট আঁটসাঁট বেডের বদলে একটু বড়সড় ধরণের বেডের ব্যবস্থা করুন। ছোট বেড আপনার সুন্দর বেডরুমের খোলামেলা ভাবটা যেন কমিয়ে দেয়।
ডাইনিং এ আপনার বাহারি নকশার তৈজসপত্র রাখার আলমারিটা বদ্ধ ধরণের না করে বরং বেশ খোলামেলা নকশা ডিজাইনের বেছে নিন। আপনার বাসাতে আকর্ষণীয় লুক আনতে খোলা ডিজাইনের আলমারি ব্যবহার করুন আর নিজের সুন্দর তৈজসপত্রগুলো সবার জন্য উন্মুক্ত রাখুন।
আপনার বাসা আকর্ষণীয় করতে আর সবার থেকে আপনি আরও এক ধাপ এগিয়ে আপনার বেডরুমের দরজাটি একটু ব্যতিক্রম করতে স্লাইডিং দরজা লাগাতে পারেন। আর একরঙা পেইন্ট ব্যবহার না করে রুমের সাথে মিল রেখে দরজাটিতেও ফুল-পাতা বা নিজের পছন্দমত ডিজাইন করে নিতে পারেন।
বসার ঘর মানেই আপনাকে সারিবদ্ধ সোফা সাজিয়ে রাখতে হবে এমনটা নয়। বাসাকে আলাদাভাবে সাজাতে আপনি সিঙ্গেল সোফা দিয়ে আপনার ঘর সাজাতে পারেন। সেটা হতে পারে আপনার ঘরের পছন্দসই কোন একটি জায়গা। সে জায়গাটি বেছে নিয়ে সিঙ্গেল পাঁচ ছয়টি সোফা গোলাকৃতি করে সাজাতে পারেন।
পেইন্ট এর ক্ষেত্রে সবাই সাধারণত বিভিন্ন হালকা ও গাঢ় ধরণের রঙকে প্রাধান্য দিয়ে থাকে। আপনি এসবের মধ্যে না গিয়ে ঘরকে একটি আলাদা রূপ দিতে পুরো ঘরে দুধ-সাদা রঙের পেইন্ট করতে পারেন। নিঃসন্দেহে এটি আপনার ঘরকে আকর্ষণীয় করে তুলবে।
অনেক বেশী ফার্নিচার আপনার ঘরের সৌন্দর্য বাড়িয়ে না দিয়ে উলটো কমিয়ে দেয়। তাই ঘর ভর্তি করে ফার্নিচার না রেখে যতোটা সম্ভব ঘর ফাঁকা রাখুন। ইচ্ছেমত প্রতিটি ঘরে চেয়ার টেবিল সাজাতে যাবেন না। এটি আপনার বাসার স্বাভাবিক পরিবেশ নষ্ট করবে।
আপনার বাসা আকর্ষণীয় করে তুলতে ও বৈচিত্র্য আনতে পেইন্টিং এর তুলনা হয়না। তাই ঘরের দেওয়ালে দেওয়ালে সুন্দর ফ্রেমের কিছু পেইন্টিং ঝুলিয়ে দিন।
আপনি চাইলে বাসা সাঁজাতে ও আকর্ষণীয় করে তুলতে ফুলের ব্যবহার করতে পারেন। বাহারি রঙের ফুল আপনার ঘর সাজানোর পাশাপাশি ঘরের স্নিগ্ধ ভাব বজায় রাখবে।
বাসা সাজাতে কোন নির্দিষ্ট নিয়ম মানতে হয়না। তাই নিজের বাসাটা সম্পূর্ণ নিজের ইচ্ছেমত সাজিয়ে গুছিয়ে তুলুন। আমরা তো কেবল আপনাকে সামান্য আইডিয়া দিয়ে সাহায্য করতে পারি আর বাকিটা আপনার হাতে।

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About ফারজানা হোসেন

Check Also

ঈদে শাড়ি

ঈদে শাড়ি বাঙালী নারীর প্রদান ভূষণ

ঈদ মানে আনন্দ। আর কয়েকদিন পরেই অসছে শুভ ঈদ। ঈদে শাড়ি হলো নারীর প্রধান ভূষণ। …