cool hit counter
Home / চুলের যত্ন / ড্রাই স্ক্যাল্প এর সমস্যা থেকে পরিত্রাণের সহজ কিছু উপায়

ড্রাই স্ক্যাল্প এর সমস্যা থেকে পরিত্রাণের সহজ কিছু উপায়

আপনি কি ড্রাই স্ক্যাল্প এর সমস্যায় ভুগছেন? যাদের ড্রাই স্ক্যাল্প তাদের খুব সাধারণ সমস্যা হল স্ক্যাল্পে চুলকানি। অনবরত স্ক্যাল্প চুলকাতে থাকলে চুল পড়ে যায়, চুল পাতলা হয়ে যায়। আপনার স্ক্যাল্প ড্রাই হয়ে থাকলে প্রথমত আপনাকে আপনার শ্যাম্পু পরিবর্তন করতে হবে। আপনার রেগুলার শ্যাম্পুর পরিবর্তে যে কোনো ভাল ব্রান্ডের মাইল্ড শ্যাম্পু ব্যবহার করুন। বিভিন্ন কেমিক্যালযুক্ত প্রোডাক্ট ব্যবহার করা বন্ধ করুন, যা এই ধরনের সমস্যা আরও বাড়িয়ে তুলবে।

ড্রাই স্ক্যাল্প
আর ড্রাই স্ক্যাল্প থেকে রক্ষা পেতে ঘরোয়া সমাধান বেছে নিন। এই সমস্যা থেকে চিরদিনের জন্য পরিত্রাণ পেতে ঘরোয়া সমাধানগুলো কী কী হতে পারে, আসুন জেনে নিই।

সমাধান-১ (কলা)
শুষ্ক আর চুলকানি হয় এমন স্ক্যাল্প এর জন্য খুবই উপকারী কলা। এজন্য দুইটি পাকা কলা নিয়ে চটকে নিন। চটকানো কলা স্ক্যাল্প আর পুরো চুলে লাগিয়ে নিন। আধ ঘন্টা অপেক্ষা করুন। তারপর মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি আপনার স্ক্যাল্প ময়েশ্চারাইজ করবে এবং চুলকানিও কমবে।

সমাধান-২ (টি ট্রি অয়েল)
ড্রাই স্ক্যাল্প এর চুলকানি ড্যানড্রাফ কিংবা ফাঙ্গাল ইনফেকশনের কারণে হতে পারে। ফাঙ্গাল ইনফেকশন জনিত চুলকানির জন্য টি ট্রি অয়েল খুবই কার্যকরী। আপনি চাইলে ৫ ফোঁটা টি ট্রি অয়েল চটকানো কলার সাথে নিয়ে চুলে লাগাতে পারেন অথবা মাইল্ড শ্যাম্পুর সাথে কয়েক ফোঁটা অয়েল নিয়ে নিয়মিত ব্যবহার করতে পারেন।

সমাধান-৩ (অ্যালোভেরা)
ড্রাই স্ক্যাল্পের বন্ধু স্বরূপ আরেক নাম অ্যালোভেরা। তাজা অ্যালোভেরা জেল নিয়ে স্ক্যাল্পে লাগান। ১৫ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলুন। প্রতিবার শ্যাম্পু করার আগে এভাবে লাগান। কিছু দিন ব্যবহার করেই ভাল ফল পাবেন।

সমাধান-৪ (লেবুর রস)
এন্টিসেপটিক গুনাগুণ সমৃদ্ধ লেবুর রস ব্যবহারে ড্রাই স্ক্যাল্পের চুলকানিসহ খুশকি থেকেও পরিত্রাণ পাওয়া যায়। লেবুর রস সরাসরি স্ক্যাল্পে লাগাতে পারেন কিংবা এখানে উল্লেখিত যেকোনো ময়েশ্চারাইজিং রেমেডি এর সাথে মিশিয়ে স্ক্যাল্পে লাগাতে পারেন। তারপর ভালোভাবে শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলবেন কারণ রোদে লেবুর ব্লিচিং ইফেক্ট রয়েছে।

সমাধান-৫ (অ্যাভোকাডো)
অ্যাভোকাডো স্ক্যাল্পের পুষ্টি যোগায় এবং একে হাইড্রেট করে। দুইটি অ্যাভোকাডো নিয়ে চটকে নিন। স্ক্যাল্পসহ পুরো চুলে লাগিয়ে নিন। আধ ঘন্টা রেখে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে একবার এভাবে ব্যবহার করুন। পার্থক্যটা নিজেই বুঝতে পারবেন।

সমাধান-৬ (বেকিং সোডা)
প্রথমে পুরো স্ক্যাল্পে অলিভ অয়েল ম্যাসাজ করে লাগান। তারপর বেকিং সোডা আর পানির পেস্ট স্ক্যাল্পে ১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।

সমাধান-৭ (অ্যাপল সাইডার ভিনেগার)
ইনফেকশন জনিত চুলকানি থেকে পরিত্রানের জন্য সমপরিমাণ অ্যাপল সাইডার ভিনেগার ও পানি মিশিয়ে চুলে ঢেলে দিন। ১০ মিনিট পর শ্যাম্পু করুন। অ্যাপল সাইডার ভিনেগার চুলের পি এইচ এর মাত্রা ঠিক রেখে এন্টি- ফাঙ্গাল আর এন্টি- ব্যাক্টেরিয়াল প্রপার্টি নিয়ে সকল প্রকার ইনফেকশনের বিরুদ্ধে কাজ করে।

সমাধান-৮ (নারিকেল তেল)
নারিকেল তেল খুব ভাল ময়েশ্চারাইজার। এটি স্ক্যাল্পের ময়েশ্চারাইজার লক করে ড্রাইনেস কমায়। নারিকেল তেল নিয়ে স্ক্যাল্পে ম্যাসাজ করে লাগিয়ে আধ ঘন্টা রাখুন অথবা শ্যাম্পুর সাথে কিছু পরিমাণ মিশিয়ে চুল ধুয়ে ফেলবেন।

এখানের যে কোনো একটি পদ্ধতি বেছে নিন আর ড্রাই স্ক্যাল্প এর সমস্যা থেকে চিরতরে মুক্তি পান।

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About ফারজানা হোসেন

Check Also

চুলের যত্ন

চুলের যত্ন নিতে যে তেলগুলো ব্যবহার করবেন

দীঘল লম্বা চুলের যুগ থেকে শর্ট ব্যাংস হেয়ার স্টাইল পর্যন্ত চুলের যত্ন নিতে সব সময়ই …