cool hit counter

ছোট্ট ৫ টি টিপস মনে রাখলেই চলে যাবে ইফতার এর পর ক্লান্তি

সামনে রমজান মাস। সারাদিন এতো লম্বা সময়ের রোজা রাখার পর ইফতার শেষে একেবারেই গা এলিয়ে পড়ে। রাজ্যের ক্লান্তি এসে ভর করে দেহে। ইফতার এর পর থেকে রাতের খাবারের সময়টুকু যেনো এক নিমেষেই ফুরিয়ে যায় এই ক্লান্তির জন্য। অন্য কিছু করার উপায়ই থাকে না। যাদের বাধ্য হয়ে কাজ চালিয়ে যেতে হয় তারা খুব ভালোই বোঝেন এই যন্ত্রণাটা। তবে খুব সহজেই ইফতার এর পরের এই ক্লান্তি দূরে রাখতে পারবেন। অবাক হচ্ছেন? ইফতার এর পর দেহে এনার্জি পাওয়ার দারুণ কিছু কৌশল জেনে নিন আজকে।

ইফতার

ছোট্ট ৫ টি টিপস মনে রাখলেই চলে যাবে ইফতার এর পর ক্লান্তি

১) একসাথে একগাদা খাবার খাবেন না

ইফতারের পর খুব বেশি ক্লান্ত বোধ করার অন্যতম কারণ হচ্ছে ইফতারে একগাদা খেয়ে পেট ভারী করে ফেলা। এই কাজটি করবেন না। এতে দেহ একেবারেই ভেঙে পড়ে। অল্প করে খান, একটু পর পর খান। দেখবেন দেহে আগের মতো ক্লান্তি বোধ হচ্ছে না।

২) প্রচুর পানি পান করুন
দেহে ক্লান্তি ভর করার আরেকটি বড় কারণ হচ্ছে দেহ পানিশূন্য হয়ে পড়া। ইফতারে সকলেই ভাজাপোড়া ও ভারী খাবার খেয়ে একেবারেই গা এলিয়ে দিয়ে পড়েন। সারাদিন শেষে প্রথমেই প্রচুর পানি পান করা প্রয়োজন। এবং ইফতার এর ভাজাপোড়া কমিয়ে পানীয় এবং ফলমূল বেশি রাখুন, দেখবেন ক্লান্তি উবে গিয়েছে।

৩) চা/কফি
সারাদিন শেষে একটু চা/কফি পান করে নিতে পারেন দেহের ক্লান্তি দূর করার জন্য। কারণ ক্যাফেইন বরাবরই আপনাকে সজাগ রাখে। তবে লক্ষ্য রাখবেন চা/কফি যেনো কড়া না হয়ে যায় এবং অবশ্যই পরিমাণে অল্প হয়।

৪) বাইরে একটু হেঁটে আসুন
ইফতার এর পর সকলেই খাবার খেয়ে বিছানায় ধপাস হতে পারলেই বাঁচেন। কিন্তু এতে ক্লান্তি বাড়েই, কমে না। এর চাইতে ইফতার এর পর একটু বাইরে হেঁটে আসুন, অন্তত মিনিট দশেকের জন্য। এতে তাজা হওয়ায় অনেকটাই ক্লান্তি দূর হবে, সেই সাথে খাবার হজমও ভালো করেই হবে।

৫) নামাজ পড়ুন
নামাজ হচ্ছে সবচাইতে ভালো ব্যায়াম। ইফতাররের পর ক্লান্তি দূর করার খুব ভালো উপায় হচ্ছে নামাজ পড়ে নেয়া। যারা ইফতারে খেজুর মুখে দিয়ে নামাজ পড়ে নেন তারা অন্যান্যদের তুলনায় কম ক্লান্ত থাকেন। যদি এই কাজটিও না করেন তাহলে ইফতার শেষেই নামাজ পড়ে নিন। ক্লান্তি দূর হয়ে যাবে।

ফেসবুক কমেন্ট

comments

পড়ুন  সর্দি কমানোর ৭টি উপায়

About ফারজানা হোসেন