cool hit counter
Home / ত্বকের যত্ন / ত্বকের যত্নে ভিনেগার- রূপচর্চা

ত্বকের যত্নে ভিনেগার- রূপচর্চা

ভিনেগার দিয়ে ত্বকের যত্ন:

ত্বক উজ্জ্বল করে :

ভিনেগার ত্বক উজ্জ্বল ও কোমল করতে সাহায্য করে। বাথটাবের হালকা গরম পানিতে ৮ আউন্স পরিমাণ অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার মিশিয়ে ওই পানিতে ১৫ মিনিট শরীর ভিজিয়ে রাখতে হবে। অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার শরীরের পিএইচ’য়ের সামঞ্জস্য বজায় রেখে ত্বক কোমল ও উজ্জ্বল করে। বাথটাব ছাড়াও সাধারনভাবে পানিতে ভিনেগার মিশিয়ে গোসল করলেও উপকার পাওয়া যাবে।

ত্বকের

ত্বকের যত্নে ভিনেগার

ফেইশল টোনার :

২ কাপ পানির সঙ্গে ১ টেবিল-চামচ অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার মিশিয়ে নিতে হবে। তারপর মিশ্রণটি একটি তুলার প্যাডে নিয়ে পরিষ্কার ত্বকে লাগিয়ে রাখতে হবে। ভিনেগার ত্বক খুব সহজেই শুষে নিবে এবং এর গন্ধও চলে যাবে। অ্যাপেল সাইডার ভিনেগারে থাকা প্রাকৃতিক আলফা হাইড্রোক্সি অ্যাসিড ও অ্যাসেটিক অ্যাসিড ত্বকের রক্ত চলাচল স্বাভাবিক করে এবং লোমকূপের খোলা মুখ বন্ধ করে।

চুল পরিষ্কার :

চুল পরিষ্কার করতে ভিনেগার দারুণ কার্যকরী। ১ কাপ পানির সঙ্গে ২ টেবিল-চামচ অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার মিশিয়ে নিতে হবে। গোসলের পর মিশ্রণটি দিয়ে ভেজা চুল ধুয়ে ফেললেই চুল উজ্জ্বল দেখাবে। মিশ্রণটি ব্যবহারের পর চাইলে হালকা কন্ডিশনার ব্যবহার করা যাবে।

ত্বকের পোড়াভাব দূর করতে :

ভিনেগার ত্বকের রোদে পোড়াভাব দূর করে ত্বক প্রাণবন্ত করে তোলে। চারকাপ পানির সঙ্গে আধাকাপ অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার মিশিয়ে একটি পরিষ্কার কাপড় দিয়ে রোদে পুড়ে যাওয়া স্থানে লাগাতে হবে। অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার ত্বকের পিএইচ লেভেলের ভারসাম্য রক্ষা করে এবং ত্বকের পোড়া দাগ দূর করতে সাহায্য করে।

খুশকি দূর করতে :

খুশকির হাত থেকে রক্ষা পেতে সমপরিমাণ ভিনেগার ও পানি এক সঙ্গে মিশিয়ে শ্যাম্পু করার আগে মাথার ত্বকে ভালোভাবে ম্যাসাজ করতে হবে। এছাড়া শ্যাম্পুর সঙ্গে ১ টেবিল-চামচ অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার মিশিয়ে নিয়ে চুল পরিষ্কার করলেও ভালো ফল পাওয়া যাবে। অ্যাপেল সাইডার ভিনেগারে রয়েছে অ্যান্টি-ফাংগাল উপাদান যা ত্বকের খুশকি দূর করতে সাহায্য করে। পাশাপাশি এর অ্যাসিডিক উপাদান পিএইচ লেভেলের ভারসাম্য বজায় রাখে এবং মাথার ত্বকে পুনরায় ছত্রাকের বৃদ্ধিতে বাধা দেয়।কালো দাগ দূর করে : বিভিন্ন কারণে ত্বকে কালো দাগ বা কালশিরা পড়তে পারে। ত্বকের কালো দাগ দূর করতে ভিনেগার খুব উপকারি। তুলার বল বা প্যাডে অ্যাপেল সাইডার ভিনেগারে ভিজিয়ে ত্বকের কালো অংশে লাগিয়ে ব্যান্ডেজ দিয়ে ১ ঘণ্টা পেঁচিয়ে রাখার পর ধুয়ে ফেলতে হবে। এছাড়া দাগ বেশি হলে ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে কোনও ক্রিম লাগালে উপকার পাওয়া যাবে। অ্যাপেল সাইডার ভিনেগারের অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটোরি উপাদান ত্বকের আঘাত কমাতে সাহায্য করে।

পোকামাকড়ের কামড় উপশম :

পোকামাকড় কামড় দিলে সঙ্গে সঙ্গে তুলার বল বা প্যাডে অ্যাপেল সাইডার ভিনেগারে ভিজিয়ে আক্রান্ত স্থানে লাগালে তাৎক্ষনিক পরিত্রাণ পাওয়া যায়। ভিনেগারে থাকা এসিড চুলকানি বা জ্বালাপোড়া কমাতে সাহায্য করে।পায়ের দুর্গন্ধ দূর করে : ব্যাক্টেরিয়া বা ফাঙ্গাসের কারণে অনেকেরই পায়ে বাজে গন্ধ হয়। এক্ষেত্রে একটি পাত্রে ৪ কাপ পানির সঙ্গে ১ কাপ অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার মিশিয়ে ১৫ মিনিট পা ভিজিয়ে রাখতে হবে। তারপর পরিষ্কার পানি দিয়ে পা ধুয়ে ফেলতে হবে। অ্যাপেল সাইডার ভিনেগারে থাকা অ্যান্টিসেপ্টিক উপাদান পা জীবাণু মুক্ত করে দুর্গন্ধ হওয়া থেকে রক্ষা করে।

 

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About ফারজানা হোসেন

Check Also

পায়ের যত্ন

বর্ষায় পায়ের যত্ন – Foot Care

ব্যস্ত জীবনে সকাল থেকে রাত অব্দি আমরা ছুটে বেড়াই। নিজেরা ক্লান্ত হই তো বটেই, সেই …