cool hit counter

দাঁতকে চমকানো সাদা করে তুলুন এই ছোট্ট টিপসের মাধ্যমে

দাঁত মেরুদণ্ডী প্রাণীদের মুখে অবস্থিত একটি অঙ্গ। এটি খাদ্য চর্বণ ও কর্তনের (কাটা) কাজে ব্যবহৃত হয়। অধিকাংশ প্রাণীর দেহে দাঁতই হচ্ছে কঠিনতম অঙ্গ।

প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের দাঁত

প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের দাঁত

দাঁতের প্রকারভেদ
মোলার বা সাদা বাংলায় “কষ দাঁত”: এটি খাদ্যকে চিবিয়ে পিষে ফেলার কাজে ব্যবহৃত হয়।
কার্নাসিয়াল দাঁত ব্যবহৃত হয় খাদ্য কর্তনের কাজে। এটি কেবল শ্বাপদ (মাংসাশী) প্রাণীদের মধ্যে দেখা যায়।
প্রি-মোলার দাঁত মোলার দাঁতের মতই, কিন্তু আকারে ছোট, এবং অনেক সময় এদেরকে বাইকাস্পিডও বলা হয়।
শ্বদন্ত বা ক্যানাইন খাদ্য ছিঁড়ে ফেলার কাজে ব্যবহৃত হয়। একে কাস্পিড দাঁতও বলা হয়ে থাকে
ছেদক দন্ত বা ইন্সিসর খাদ্য ছেদনের কাজে ব্যবহৃত হয়।

দাঁতকে

দাঁতকে চমকানো সাদা করে তুলুন এই ছোট্ট টিপসের মাধ্যমে

প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠেই দাঁত ব্রাশ করা, রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে দাঁত ব্রাশ করা- এইতো শুনেছেন এতদিন দাঁতের যত্ন-আত্নি করার উপায় হিসেবে? বিশেষ করে যাদের দাঁত খানিকটা হলদেটে তারা তো নিয়মটাকে আরো বেশি করে মেনে চলে। সত্যি বলতে কি, সবাই চাই নিজের দাঁতগুলোকে আরো সুন্দর আর চকচকে সাদা রঙের করে তুলে সবাইকে একটা সুন্দর হাসি উপহার দিতে। কিন্তু এক্ষেত্রে সাধারণ এসব নিয়মের পাশাপাশি আপনি ব্যবহার করতে পারেন অন্য একটি উপায়ও। আর খুব সহজেই সাদা করে তুলতে পারেন নিজের দাঁতকে। কীভাবে? না, কোন ওষুধের মাধ্যমে নয়। লিপস্টিকের ছোট্ট একটু ব্যবহারই আপনার দাঁতকে করে তুলতে পারে আরো উজ্জ্বল।

দেখতে পারেন দাঁতের ব্যাথা দূর করতে পেয়ারা পাতা

ভাবছেন কীভাবে? না, অন্য কোনভাবে নয়, বরং লিপস্টিক নিজেই নিজের রঙের মাধ্যমে আপনার দাঁতকে অন্যদের কাছে আরো একটু সাদা করে তুলবে। লিপস্টিকের নানারকম রঙ রয়েছে। বাজারো নানা রঙের লিপস্টিক কিনতে পাওয়া যায়। কিন্তু তাদের ভেতরেও কিছু রঙ আছে যেগুলোর ব্যবহার আপনার ঠোঁটকে বিশেষভাবে রাঙিয়ে আপনার দাঁতগুলোকে অন্যদের কাছে করে তুলতে পারে একটু বেশি সাদা। আর সেই রঙগুলো হচ্ছে-

১. উষ্ণ রঙ

রঙ নানারকমের হয়। কোনটা একটু বেশি শীতল ও ঠান্ডা প্রকৃতির। আর কোনটা উষ্ণ। আপনার দাঁত যদি খানিকটা হলদেটে হয় এবং আপনি চান সেটাকে একটু সাদা করে তুলতে তাহলে অন্যান্য প্রসাধনীর পাশাপাশি দোকানে গেলেই ঠোঁটের জন্যে বাছুন উষ্ণ রঙএর লিপস্টিক। দোকানের নানারকম লিপস্টিকের ভেতরে উষ্ণ ও সাহসী অর্থাৎ, গাঢ় লাল, কমলা বা হলদে রঙ এবং শীতল অর্থ্যাত্ নীল রঙ এর লিপস্টিকগুলো ( রিফাইনারি ) আলাদা করেই সাজানো থাকে। তাই খুব সহজেই আপনি ওখান থেকে পেয়ে যেতে পারেন আপনার পছন্দসই জিনিসটি।

২. বেগুনী, গাড় গোলাপী

আপনার দাঁতকে অনেক বেশি সাদা দেখাতে বেগুনী রঙ এর লিপস্টিকের কোন তুলনা হয়না। তবে গোলাপী লিপস্টিক ব্যবহারের ক্ষেত্রে মনে রাখবেন যে হালকা গোলাপীর চাইতে গাঢ় গোলাপী রঙএর লিপস্টিক অনেক বেশি ধাঁধায় ফেলে দিতে পারে মানুষের চোখকে আর করে তুলতে পারে দাঁতগুলোকে আরো বেশি সাদা ( এলে )।

দেখতে পারেন সাদা দাঁত পাওয়া ৫ টি গোপন টিপস জেনে রাখুন
৩. জাম রং

লিপস্টিক কেনার সময় খানিকটা নীলচে অথবা ঠান্ডা ধরনের আন্ডারটোন নিন। এক্ষেত্রে সেলসম্যানকে বললে সেই আপনাকে বুঝিয়ে দেবে কোন লিপস্টিক কোন ধরনের। লিপস্টিকের রঙ হিসেবে খুব বেশি হলদে বা কমলা রঙ এর দিকে না গিয়ে মাঝারি থেকে গাঢ়র দিকে যান। এছাড়া সামান্য জাম রঙ এর লিপস্টিকও আপনার দাঁতকে স্বাভাবিকের চাইতে বেশি উজ্জ্বল করে তুলতে সাহায্য করবে ( ডেইলি মেইল )।

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About সাদিয়া প্রভা

সাদিয়া প্রভা , ইন্ডিয়ার Apex Group of Institutions এর BBA এর ছাত্রী ছিলাম। বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিয়সক তথ্য নিয়ে লেখালেখি করি।