cool hit counter

মেয়েদের যেসব বদভ্যাস ত্যাগ করা উচিৎ!

রাস্তাঘাটে, স্কুল-কলেজে, অফিসে বা বাড়িতেও নিজের ইজ্জত নিজেকেই ধরে রাখতে হয় মেয়েদের। কথাটা সেকেলে হলেও, সেটাই একমাত্র রাস্তা। ব্যক্তিত্বে সম্ভ্রম না থাকলে ছেলেরা মেয়েদের সস্তা মনে করে। তখনই ঘটে বিপদ। তাই প্রথমেই কিছু বদভ্যাস ত্যাগ করতে হবে মেয়েদের। সেগুলি কী কী জেনে নিন –

মেয়েদের

মেয়েদের যেসব বদভ্যাস ত্যাগ করা উচিৎ

১. গোপনেই থাক অন্তর্বাস:
অনেক মেয়ের জামার বাইরে ব্রা স্ট্র্যাপ বেরিয়ে থাকে। অনেকসময় সেটা অজান্তেই ঘটে। কিন্তু সবার ক্ষেত্রে ব্যাপারটা এক নয়। কিছু মেয়ে আছে যারা ইচ্ছাকৃত ব্রায়ের স্ট্র্যাপ বের করে রাখে। স্বাভাবিক ভাবেই পুরুষের নজর সেদিকে যায়। মেয়েটিকে উদ্দেশ্যে করে খারাপ ইঙ্গিত করে। খুব ভদ্র ছেলেরা আবার এ সব মেয়েদের দিকে তাকায় না। কিন্তু মনে মনে মেয়েটিকে সম্মানও দেয় না।

মেয়েদের প্রস্রাবে জ্বালাপোড়া হলে কী করবেন?

২. ছেলেদের সঙ্গে কথা বলতে হবে দূর থেকে:
ঘাড়ের উপর উঠে কথা বলে যে সব মেয়ে, তাদের সহজলভ্য ভেবে নেয় সবাই। ছেলেরা মনে করে মেয়েটি গায়ে পড়া। বাকি মেয়েরা তার সঙ্গে মিশতে চায় না। সত্যি বলতে কী, এমন মেয়েরা কখনওই কারোর কাছে গ্রহণযোগ্য নয়।

পড়ুন  বয়সের আগেই বুড়িয়ে যেতে পারেন সেলফি তোলার কারণে !

৩. অশালীন মেসেজ করলে সস্তা ভাবে ছেলেরা:
ভুল করে বা ইচ্ছা করে কোনও ছেলেকে অশালীন মেসেজ করার অভ্যেস ছাড়তে হবে মেয়েদের । এই কু-অভ্যেসটি ইদানিং তৈরি হয়েছে মেয়েদের মধ্যে। সারাদিন হোয়াটস্অ্যাপে বুড়ো আঙুল নাড়িয়েই চলেছে তারা। ফলে বান্ধবীর সঙ্গে হাসিমজা করতে করতে কোনও ইঙ্গিতবাহী মেসেজ সে পাঠিয়ে দিল কোনও ছেলেকে। কিছুদিন আগে একটি মেয়ে প্রেমিককে স্তনের ফোটো পাঠাতে গিয়ে অফিসের বসকে ফোটোটি পাঠিয়ে দিয়েছিল। মেয়েটি নাকি ভুল করে এমনটা করে ফেলেছিল। প্রশ্ন উঠে, সত্যিই কি ভুল করেই এমন কাজ? নাকি সামনেই প্রোমোশন ছিল বলে এই ঘুষ!

মেয়েদের ভার্জিনিটি চেনার উপায় জেনে নিন

৪. ছেলেদের গায়ে হাত দিয়ে কথা নয়:
পরিচিত, স্বল্প পরিচিত ছেলেদের গায়ে হাত দিয়ে কথা বলার স্বভাব অনেক মেয়েদেরই থাকে। বিশেষ করে বিবাহিত মেয়েরা মুখে “ভাই ভাই” বলে গায়েফায়ে হাত দিয়ে দেয় অনেক ছেলের। সেটা কিন্তু যথেষ্টই উশকে দেওয়ার মতো কাজ। ছেলেটিও যদি মেয়েটির গায়ে পালটা হাত দেয়, তখন?

৫. সবার সামনে পোশাক ঠিক করা নয়:
অনেক মেয়েরা ছেলেদের সামনে টেনে টেনে পোশাক ঠিক করে। এটা খেয়াল করে দেখে না, মেয়েদের এমনটা খেয়াল হয় না যে,  ছেলেরা তার আচরণে অপ্রস্তুত বোধ করছে। ফলে হয় কী, মেয়েটিকে সহজলভ্য ভেবে নেয় তারা। ভাবে এই মেয়ের কোনও আত্মসম্মান নেই। এই মেয়ের শরীর স্পর্শ করলেও কিছু বলবে না!

পড়ুন  মেয়েদের ২৫ বছরের আগে বিয়ে না হলে যে সমস্যাগুলো হয়

৬. অন্তর্বাস বারান্দায় মেলা নয়:
অনেক মেয়েদের এই দোষ আছে। অন্তর্বাস কেচে প্রকাশ্য বারান্দায় বা ছাদে তা শুকোতে দেয়। এটা ভাবে না অন্য বাড়ির পুরুষ, পথচলতি মানুষ সেটা দেখতে পাচ্ছে। তারা জেনে যাচ্ছে মেয়েটির অন্তরের রহস্য। এমন ক্ষেত্রে শুধু মেয়েটির ব্যাপারে নয়, তার গোটা পরিবার সম্পর্কেই খারাপ ধারণা পোষণ করতে শুরু করে পুরুষ কুল। তাই মেয়েদের সাবধান হওয়া বাঞ্ছনীয়, বাথরুমের রডে বা মেলে রাখা কাপড়ের নীচে অন্তর্বাস শুকোতে দিন। প্রকাশ্যে নয়।

সার্চ কিওয়ার্ড: ভালো মেয়ে; গুণবতী নারী; নারীর গুণ; ভালো নারী; মেয়েদের আদর্শ; ভালো মেয়ে চেনার উপায়; কুমািরী মেয়ে; মেয়েদের চেনা; মেয়ের শরীর; মেয়ের চোখ; vlo meya; vlo maya; vlo girl; vlo nari; vlo female; sundor meya; sundar meyara; bangla choti; choti; bangla choti site; bangla choti blog; chuda chudi; sex bangla; bangla sex; www.sex.com.sex video.com;

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About সাদিয়া প্রভা

সাদিয়া প্রভা , ইন্ডিয়ার Apex Group of Institutions এর BBA এর ছাত্রী ছিলাম। বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিয়সক তথ্য নিয়ে লেখালেখি করি।