cool hit counter
Home / প্রশ্ন ও উত্তর / মুখের দুর্গন্ধ হওয়ার কারণ কি? খুব সহজেই দুর্গন্ধ দূর করবে যে খাবারগুলো

মুখের দুর্গন্ধ হওয়ার কারণ কি? খুব সহজেই দুর্গন্ধ দূর করবে যে খাবারগুলো

মুখের দুর্গন্ধ নামক রোগটি বড় বিব্রতকর। মুখের এ দুর্গন্ধ কেন হয়, তা নিয়ে বিজ্ঞানের গবেষণা বহুকাল ধরে চলে আসছে। সেসব গবেষণা থেকে সুনির্দিষ্টভাবে কয়েকটি কারণকে চিহ্নিতও করা গেছে। সেগুলো হলো-
খাদ্য আবরণ জমে থেকে ডেন্টলি প্লাক সৃষ্টি এবং মাড়ির প্রদাহ (পেরিওডন্টাল ডিজিজ), মুখের ঘা বা ক্ষত হওয়া, আকাবাঁকা দাঁত থাকার কারণে খাদ্যকণা জমা, অপরিষ্কার কৃত্রিম দাঁত বা ক্রাউন ব্রিজ, জিহ্বা অপরিষ্কার থাকার কারণে খাদ্যকণা ও জীবাণুর অবস্থান, ছত্রাক বা ফাঙ্গাস জাতীয় ঘা, মুখের ক্যান্সার, ডেন্টাল সিস্ট বা টিউমার, দুর্ঘটনার কারণে ফ্রেকচার ও ক্ষত তাছাড়া দেহের অন্য রোগের কারণেও মুখের দুর্গন্ধ হতে পারে যেমন-

 

মুখের দুর্গন্ধ হওয়ার কারণ

মুখের দুর্গন্ধ

পেপটিক আলসার, লিভারের রোগ, গর্ভাবস্থা, কিডনি রোগ, রিউমেটিক রোগ বা বাতজনিত রোগ, ডায়াবেটিস বা বহুমূত্র, হাইপার টেনশন বা উচ্চ রক্তচাপ, গলা বা পাকস্থলীর ক্যান্সার, এইডস রোগ, হৃদরোগ, মানসিক দুশ্চিন্তা, নাক, কান, গলার রোগ।
সুতরাং মুখের স্থানীয়ভাবে কারণগুলো দূর করার পরও যদি দুর্গন্ধ থেকে যায় তবে দেহের অন্য সাধারণ রোগের উপস্থিতির পরীক্ষাগুলো বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দ্বারা পরীক্ষা করিয়ে নেয়া উচিত। মুখের দুর্গন্ধ অনেক ক্ষেত্রে নিজে অনুভব করা যায় না, অন্যরা বুঝতে পারেন এটাই এর বড় সমস্যা।
একটি পরিষ্কার ভালো দাঁতের ব্রাশ ও পেস্ট দিয়ে দাঁতের সবগুলো অংশ ভেতরে-বাইরে পরিষ্কার করুন (তিনবেলা খাবারের পর)। জিহ্বা পরিষ্কারের জন্য জিবছুলা ব্যবহার করতে পারেন। যে কোনো ধরনের মাউথওয়াশ (ক্লোর হেক্সিডিন জাতীয়) ২ চামচ মুখে ৩০ সেকেন্ড রেখে ফেলে দিয়ে আবার অল্প গরম লবণ পানিতে কুলিকুচি করা। প্রতিদিন অন্তত দু’বার সকালে ও রাতে (আহারের পর) এটা করতে বলা হয়।
মুখের ভেতরে একটি লং বা এলাচির দানা রাখুন। প্রতিবার আহারের পর সম্ভব হলে দাঁত ব্রাশ অথবা ভালোভাবে কুলিকুচি করে ফেলুন।
বিশেষভাবে খেয়াল রাখতে হবে
দাঁত ব্রাশ করলেই শুধু ময়লা বা খাদ্যকণা পরিষ্কার হয় না, কারণ দাঁতের ফাঁকে ফাঁকে বা মাড়ির ভেতরে অনেক সময় খাদ্যকণা জমা থেকে পচন শুরু হয়। এর জন্য ডেন্টাল ফ্লস (এক ধরনের পিচ্ছিল সুতা) বা ডেন্টাল টুথ পিকস (এক ধরনের জীবাণুমুক্ত শলাকা) ব্যাবহার করতে হবে। সেই সাথে কতগুলো বদঅভ্যাস যদি থাকে তবে তা বাদ দিতে হবে। যেমন- ধূমপান করা, পান, সুপারি, জর্দা, গুল, তামাকপাতা ইত্যাদি চিবানো, মদ বা অ্যালকোহল পান, মাদকদ্রব্য সেবন ইত্যাদি।

 

মুখের দুর্গন্ধ অনেক বিব্রতকর একটি সমস্যা। অনেকেই এই সমস্যায় পড়ে থাকেন। মুখে দুর্গন্ধ হলেই যে তিনি দাঁত ব্রাশ করেন না, তা কিন্তু নয়। অনেককেই নিয়মিত দাঁত ব্রাশ ও ফ্লস করার পরও মুখের দুর্গন্ধের সমস্যায় ভুগতে হয়। কারণ মুখে দুর্গন্ধ হওয়ার অন্যতম কারণ ব্যাকটেরিয়া।

দাঁত ব্রাশ ও ফ্লস করার পরও যদি মুখে ব্যাকটেরিয়া রয়ে যায় বা নতুন করে ব্যাকটেরিয়া জন্মায় তাহলেই মুখে দুর্গন্ধের সৃষ্টি হয়। কিন্তু আপনি জানেন কি এই মুখের দুর্গন্ধের বিরক্তিকর সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন কিছু খাবারের মাধ্যমে? অবাক হলেও এটি সত্যি। চলুন তবে চিনে নেয়া যাক মুখের দুর্গন্ধ দূরকারী এই উপকারী খাবারগুলোকে।

মুখের দুর্গন্ধ

মুখের দুর্গন্ধ দূর করবে যে খাবারগুলো

১) চীজ ও দই

চীজ এবং দই মুখের ভেতরের খাবারের কারণে উৎপন্ন হওয়া অ্যাসিড দূর করতে সহায়তা করে যা মুখে দুর্গন্ধ সৃষ্টির জন্য দায়ী। তাই খাবার পর ১ টুকরো চীজ বা ১ বাটি দই খেয়ে নিলে মুখের দুর্গন্ধের সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন সহজেই।

২) কাঁচা ফল ও সবজি

কাঁচা ফল ও সবজি যেমন আপেল, গাজর, সেলেরি ইত্যাদি মুখের ভেতরের দুর্গন্ধ সৃষ্টিকারী জীবাণু বা ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করতে বিশেষভাবে কার্যকরী। এছাড়াও কাঁচা ফল ও সবজি দাঁতের ফাঁকে জমে থাকা খাদ্যকণা দূর করে দাঁত পরিষ্কার রাখতে সহায়তা করে। এতে করে মুখের দুর্গন্ধ থেকে রেহাই পাওয়া যায়।

৩) পানি

আমাদের মুখের ভেতরটা যখন শুকিয়ে যায় তখন ব্যাকটেরিয়া উৎপন্ন হতে থাকে যা মুখের দুর্গন্ধ হওয়া জন্য দায়ী। সেকারণে মুখের ভেতরটা হাইড্রেট রাখা অনেক বেশি জরুরী। আর তাই পানি পানের বিকল্প নেই। খানিকক্ষণ পরপর পানি পান করে নিন। এতে করে স্বাস্থ্যও ভালো থাকবে এবং মুখ দুর্গন্ধ হওয়া থেকে মুক্তি পাবেন।

৪) চিনি ছাড়া ক্যান্ডি ও চুইংগাম

যে কোনো ধরনের খাদ্য যা মুখের ভেতরে সালিভার প্রবাহ ঘটায় তা মুখের দুর্গন্ধ সৃষ্টিকারী ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করতে সহায়ক। চিনি ছাড়া ক্যান্ডি ও চুইংগাম খেলে মুখের ভেতরের সালিভার প্রবাহ বাড়ে। এতে করে ব্যাকটেরিয়া জন্মাতে পারে না। ফলে মুখ দুর্গন্ধ হয় না।

গোপন অঙ্গের দুর্গন্ধ দূর করার কার্যকরী উপায় জেনে নিন

৫) লবণ

লবণের রয়েছে মুখে দুর্গন্ধ সৃষ্টিকারী ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করার ক্ষমতা। তাই যখন মনে হবে মুখে দুর্গন্ধের সমস্যা হচ্ছে তখনই সামান্য লবণ গরম পানি দিয়ে গার্গল করে নিন। মুখের দুর্গন্ধ দূর হবে নিমেষেই।

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About সাদিয়া প্রভা

সাদিয়া প্রভা , ইন্ডিয়ার Apex Group of Institutions এর BBA এর ছাত্রী ছিলাম। বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিয়সক তথ্য নিয়ে লেখালেখি করি।

Check Also

আমার

আমার শিক্ষিকাকে আমার খুব ভালো লাগত, তাই আমি উনাকে বিয়ের প্রস্তাব দিই….

প্রতিদিনই আপনার ডক্টর অনলাইন বাংলা স্বাস্থ্য টিপস পোর্টালের ফেসবুক ফ্যানপেজে অনেক ম্যাসেজ আসে। সব ম্যাসেজর …