cool hit counter

কালার করার জন্য আপনার চুল কি প্রস্তুত?

কালারকালার করার জন্য আপনার চুল কি প্রস্তুত?

চুলে বিভিন্ন রঙের ডাই করানোটা ইদানিং অনেকটাই সহজ হয়ে পড়েছে। বিভিন্ন পার্লারে তো বটেই, অনেকে ঘরেই রাঙিয়ে নিচ্ছেন চুল। কিন্তু আপনার চুল কি ডাই করার জন্য প্রস্তুত? চুলের ক্ষতি করে ফেলছেন না তো ডাই করার মাধ্যমে? দেখে নিন চুলের অবস্থা জেনে নেবার উপায়। আর ডাই করবার আগে কী কী করা উচিৎ সেটাও জেনে নিন।

 
সারা পৃথিবীতে প্রচুর মানুষ প্রতিদিন চুল ডাই করাচ্ছেন। কেউ কেউ খুব সুন্দর রঙের চুল পেয়ে যান, ঠিক যেমনটা তিনি চেয়েছিলেন। কিন্তু কারও চুল হয়ে পড়ে খড়ের মতো একেবারেই রুক্ষ নির্জীব। আপনার চুলের অবস্থাটাও যাতে খারাপ না হয়, এর জন্য চুলের অবস্থাটা আগেই বুঝে নিন। নিউ ইয়র্কের স্টাইল অ্যান্ড কালার স্পেশালিস্ট এলিজাবেথ ম্যালয় খুব সহজ একটি কৌশল শিখিয়ে দেন ব্যাপারটা বোঝার জন্য।

 

এই কৌশলে প্রথমে আপনার এক গোছা চুল টানটান করে ধরতে হবে আঙ্গুলে। এরপর এই চুলের ওপর ফেলতে হবে এক ফোঁটা পানি। পানি ফেলেই সময় গোনা শুরু করুন। যদি দোষ সেকেন্ডের কম সময়ে আপনার চুল এই পানি শুষে নেয়, তাহলে বুঝতে হবে আপনার কিউটিকল ক্ষতিগ্রস্ত এবং ডাই করার জন্য আপনার চুল যথেষ্ট সুস্থ নয়।
এটাই অবশ্য একমাত্র উপায় নয়। আপনার চুল ভেজা অবস্থায় টান দিলে যদি স্বাভাবিকের চাইতে বেশি লম্বা হতে দেখা যায় অথবা রাবারের মতো মনে হয়, তাহলে এটা ডাই করাটা নিরাপদ নয়, বলেন নিউ ইয়র্কের ইভা স্ক্রিভো স্যালুনের সিনিয়র কালারিস্ট মেরি কেট ও’কনর।
ভরসা পাচ্ছেন না এখনো? সবচাইতে ভালো উপায়টি হলো ভালো কোনো পার্লারে গিয়ে হেয়ার স্পেশালিস্টের পরামর্শ নেওয়া। তিনি আপনার চুল সামনাসামনি দেখেই আপনাকে বলতে পারবেন আপনার চুলে ডাই করা ঠিক হবে কি না।
এছাড়াও চুল ডাই করার আগে কিছু কাজ করা দরকার সবারই। এতে ডাই করার পর চুলের ক্ষতি হবার সম্ভাবনা কম থাকে।
১) ডিপ কন্ডিশনিং

আপনার চুল যদি রুক্ষ থাকে তবে অবশ্যই তাতে রঙ করা যাবে না। রঙ করার আগে চুলের যত্ন নিয়ে এর অবস্থা ভালো করে নিন। এর জন্য ডিপ কন্ডিশনিং করতে পারেন। এতে সব চুলে একইভাবে রঙ বসবে।
২) শ্যাম্পু করা বন্ধ করে দিন ডাই করার আগে

ডাই করার আগের দিন বা দুই-তিনদিন আগে থেকে শ্যাম্পু করা বন্ধ করে দিন। এতে আপনার চুলে প্রাকৃতিক তেল থাকবে এবং ডাইয়ের ক্ষতি থেকে তা চুলকে রক্ষা করবে।
৩) বাড়িতে ডাই করলে সাবধান থাকুন

পার্লারে ডাই করলে চিন্তার কিছু নেই। কিন্তু বাড়িতে করলে সাবধান থাকুন। ছোট্ট একটি ভুলেই দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। হেয়ারলাইন বরাবর ত্বকে ভ্যাসেলিন মাখিয়ে নিন, এতে ত্বকে রঙ ধরবে না। চুলের আগায় হালকা করে পানি স্প্রে করে নিতে পারেন।
৪) প্যাচ টেস্ট করে নিন অবশ্যই

প্যাচ টেস্ট অর্থাৎ পুরো মাথায় রঙ করার আগে চুলের অল্প কিছু অংশে ডাই দিয়ে টেস্ট করে নেওয়া জরুরী। রংটি যদি আপনার চুলে না মানায় তাহলে বাকি মাথায় না দেওয়াই মঙ্গল। আর এতে আপনার ত্বকে অ্যালার্জি দেখা দেয় কিনা তাও বোঝা যাবে।

 

৫) অতিরিক্ত স্টাইলিং করবেন না

মূলত চুলে হিট দেওয়ার যন্ত্র যেমন স্ট্রেইটনার, কার্লার এগুলো ব্যবহার না করাই ভালো। এরা চুল খুব সহজেই ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে।
চুল সৌন্দর্যের বেশ বড় একটি অনুষঙ্গ। তাই একে হেলাফেলা করবেন না মোটেই। চুলে ডাই করার আগে দেখে নিন চুল এর জন্য প্রস্তুত কিনা। নয়তো চুল বেশ বাজেভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। তাই থাকুন সতর্ক।

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About সাদিয়া প্রভা

সাদিয়া প্রভা , ইন্ডিয়ার Apex Group of Institutions এর BBA এর ছাত্রী ছিলাম। বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিয়সক তথ্য নিয়ে লেখালেখি করি।