cool hit counter

খুব সহজে পিঠের মেদ কমানোর উপায়

পিঠের মেদ

পিঠের মেদ কমানোর উপায়

পিঠে মেদ জমা আমাদের দেহে মেদ জমা সমস্যা অন্যতম যন্ত্রণাদায়ক একটি ব্যাপার। পিঠে মেদ জমলে তা একেবারেই ভালো দেখায় না। সব চাইতে বিরক্তিকর ব্যাপার হচ্ছে সহসা যেতেও চায় না পিঠের মেদ ।ফলে অনেক যন্ত্রণায় পড়তে হয় পিঠের মেদ ভুক্তভোগীদের। তবে পিঠের মেদ নামক এই সমস্যার সমাধান কিন্তু খুব বেশী কঠিন কিছু নয়।
একটু নিয়মিত ব্যায়াম করলেই বেশ সহজেই পিঠের মেদ জনিত মতো বিরক্তিকর সমস্যা থেকেও মুক্তি পাওয়া সম্ভব। আজকে চলুন পিঠের মেদ দূর করে নেয়ার খুব সহজ ব্যায়ামগুলো শিখে নেয়া যাক।

 

ব্যায়াম ১:
– প্রথমে সোজা হয়ে দাড়িয়ে দিন। এরপর বুকের উপর দুই হাত ক্রস করে দুই কাঁধের কাছে হাতে কবজি রাখুন এবং দু’পা ফাঁক করে হাতু সামান্য বেন্ড করে দাঁড়ান।
– এভাবে দাড়িয়ে কোমর থেকে উপরের অংশ সামনের দিকে ঝুঁকে মেঝের সমান্তরালে আনুন (নামাজের সময় সেঝদা যেভাবে দিতে হয় কিছুটা সে ধরণের)। আবার সোজা হয়ে আগের পজিশনে ফেরত আসুন।
– চাইলে বুকের উপর ক্রস করে হাত না রেখে দুই হাত মাথার পেছনে ধরেও এই ব্যায়ামটি করতে পারেন।
– এভাবে ৩ সেটে ভাগ করে ১৫ বার রিপিট করুন ব্যায়ামটি।

দেখে নিন পেটের মেদ কমানোর ব্যায়াম
ব্যায়াম ২:
– মেঝেতে হাত ও পা ছড়িয়ে দিয়ে উপুর হয়ে শুয়ে পড়ুন।
– এবার বুকের নিচের দিকের উপর ভর দিয়ে কাঁধ ও বুকের উপরের অংশ কিছুটা উপরে উঠানোর চেষ্টা করুন এবং ধরে হাত ছড়িয়ে পুরো দেহকে “Y” এর মতো আকার দিন।
– এভাবে ধরে পজিশন ঠিক রেখেই হাত দুইপাশে ছড়িয়ে দেহে “T” এর আকার দিন।
– এরপর দেহের পজিশন ঠিক রেখেই দুই হাত নামিয়ে দেহের দুই পাশে চেপে ধরুন এবং দেহকে “I” এর আকার দিন।
– এরপর একইভাবে হাত উঠিয়ে প্রথমে “T” ও পরে “Y” এর আকার করে একেবারে প্রথম পজিশনে আসুন। পুরোটা সময় হাতের কবজি খোলা রাখুন।
– এভাবেও ৩ সেটে ভাগ করে ১৫ বার রিপিট করুন ব্যায়ামটি।
ব্যায়াম ৩:
– হাঁটু ভেঙে দুইহাত সামনে মেঝেতে রেখে মুখ মেঝের দিকে করে রাখুন।
– এরপর বিপরীত দুই হাত পা উঁচু করে মেঝের সমান্তরালে তুলে সামনের দিকে ছড়িয়ে দিন। অর্থাৎ ডান হাত ও বাম পা আবার বাম হাত ও ডান পা।
– এভাবেও ৩ সেটে ভাগ করে ১৫ বার রিপিট করুন ব্যায়ামটি।এভাবে কিছুদিন চালিয়ে গেলে খুব দ্রুত পিঠের মেদ কমে যাবে।

ভিডিওটি দেখুন:

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About সাদিয়া প্রভা

সাদিয়া প্রভা , ইন্ডিয়ার Apex Group of Institutions এর BBA এর ছাত্রী ছিলাম। বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিয়সক তথ্য নিয়ে লেখালেখি করি।