cool hit counter
Home / যৌন জীবন / সহবাসের সময় ছেলেরা যে মারাক্তক ভুলগুলো করে থাকে

সহবাসের সময় ছেলেরা যে মারাক্তক ভুলগুলো করে থাকে

সহবাসের সময় ছেলেরা যে মারাক্তক ভুলগুলো করে থাকে
সহবাসের সময় ছেলেরা যে মারাক্তক ভুলগুলো করে থাকে

বিপরীত লিঙ্গের প্রতি শুধু মানুষ না প্রতিটি জীবের এক অন্য রকম আকর্ষণ।যৌন মিলনের মাধ্যমে চরম সুখ অনুভব করে। তবে এই সুখকে ফলপ্রসু করতে স্বমী স্ত্রী ২  জনেরই অবদান থাকা উচিত। নিজের তৃপ্তির দিকে শুধু তাকালে হবে না। তবে বেশিরভাগ তৃপ্তি নির্র্ভর করে পুরুষের উপর।কিন্তু অনেক পুরুষ আছে যারা যৌন মিলন বা সহবাসকালে এমন কিছু ভুল করে যার জন্য যৌন ‍মিলন দীর্ঘ ক্ষণ ও প্রকৃত তুপ্তিতে পরিণত হয় না।নারীকে।

চুম্বন : নারীর প্রতিটি অঙ্গ আদর পেতে চায়।একজন নারী শুধু সহবাসে আনন্দ পায় না।নারীর অতীব কিছু স্পন্দনশীল অঙ্গ আছে যেগুলো শুধু সহবাস তৃপ্তি পায় না।যৌন ‍মিলনের প্রথম পর্যায়ে যৌন অঙ্গের দিকে গেলে নারী প্রকৃত তৃপ্তি পায় না। আপনার প্রতি অখুশি হতে পারে।হয়ত মনে করবে আপনার শারিরীক চাহিদায় প্রধান,মূলত আপনি  তাকে ভালোবাসেন না। এজন্য যেন মিলনের শুরুতে বিভিন্ন স্পর্শকাতর জায়গায় চুম্বন ও মেহন করবেন।তাহলেই প্রকৃত তুপ্তির আশা করা যায়।

স্তন :স্তন নারীদের উত্তেজক অঙ্গের মধ্যে প্রধান একটি।তাই বলে প্রথমেই নারীর স্তন নিয়ে বেশি মেহন করা ঠিক না।কারণ প্রথম দিকে নারীদের স্তন শিতিল থাকে, আস্তে আস্তে নারীর শিহরণ জাগলে
তখন স্তন নিয়ে মেহন করা উচিত তা না হেলে স্তনে ব্যাথা পাবে।

নারীর অঙ্গ:  স্ত্রীর দেহের অন্যান্য অঙ্গের দিকে মনোযোগ না দেয়া :- আগেও বলা হয়েছ্ নরীদের প্রতিটি অঙ্গ ওত পেতে থাকে পুরুষের আদর পাওয়ার জন্য।আর সেই প্রত্যেকটি অঙ্গ যদি পর্যাপ্ত আদর না পায় তবে যেন মিলন বিফলে যাবে।তাই নারীদের এমন কোন অঙ্গ আদর করতে বাকি রাখা যাবে না, যার জন্য নারীর যেন ক্ষুদ অতৃপ্ত থেকে যায়।

বিশ্রাম নেওয়া : মনে রাখবেন একজন নারীর উ্ত্তেজিতভাব একবার চলে গেলে তা আবার প্রথম থেকে শুরু হয়। কিন্তু পুরুষরা ঠিক থেমে যাওয়া জায়গা থেকে শুরু করতে পারে।আপনি যদি বিশ্রাম নিয়ে বার বার আসন পরিবর্তন করে যেন মিলনে অগ্রসর হন তাহলে আপনার মিলন দীর্ঘস্থায় হবে কিন্তু খেয়াল রাখবেন আপনার সহধর্মীর যৌন উত্তেজনা কখোনই নামতে দিবেন না। কারণ একবার নেমে গেলে সেই প্রথম থেকে শুরু করে তাকে আবার উত্তেজিত করতে হবে।

আমাদের টিপসগুলো আপনাদের জীবনকে যদি সুন্দর ও সুখময় করার জন্য কিঞ্চিত পরিমানে কাজে আসে, তবে দয়া করে পোষ্টটি শেয়ার করবেন।ধন্যবাদ।

আপনার স্বাস্থ্য বিষয়ক যে কোন সমস্যার জন্য এখানে কমেন্ট করে জানান।তাছাড়া অপনারা কোন ধরণের পোষ্ট চান তাও জানাতে ভুলবেন না।ধন্যবাদ

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About সাদিয়া প্রভা

সাদিয়া প্রভা , ইন্ডিয়ার Apex Group of Institutions এর BBA এর ছাত্রী ছিলাম। বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিয়সক তথ্য নিয়ে লেখালেখি করি।

Check Also

যৌবন ধরে রাখে যে সব ভেষজ উদ্ভিদ

চটজলদি রোগ নিরাময়ের জন্য আমরা অনেকেই অ্যালোপ্যাথির দ্বারস্থ হয়ে যাই। কষ্ট লাঘবে তখন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার বিষয়টা …