cool hit counter
Home / লাইফস্টাইল / নতুন বিবাহিত মেয়েদের যে বিষয়গুলো খেয়াল রাখা উচিত

নতুন বিবাহিত মেয়েদের যে বিষয়গুলো খেয়াল রাখা উচিত

নতুন বিবাহিত মেয়েদের যে বিষয়গুলো খেয়াল রাখা উচিত

 

নতুন বিবাহিত মেয়েদের যে বিষয়গুলো খেয়াল রাখা উচিত

প্রত্যেক মেয়ের একটা স্বপ্ন থাকে একটা ভালো ফ্যামলিতে বিয়ে হবে, মনেরমত একটা বর পাবে। বিয়ের আগে হবু শ্বশুরবাড়ির সবার সাথে সম্পর্কটা বেশ সহজ  থাকে।বিয়ের পর কিন্তু স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির সঙ্গে সম্পর্ক কখনো কখনো বদলে যেতে পারে। বিয়ের আগে বেশ কয়েকবার ঘুরে এসেছেন শ্বশুরবাড়ি। হবু স্বামী আর শ্বশুরবাড়ির সকলের সাথে বেশ ভাল করেই পরিচয় হয়ে গেছে। আপনি চান বিয়ের পরও এই রকম সম্পর্ক যেন সবার সাথে টিকে থাকে।

তবে অনেকক্ষেত্রে নতুন বিবাহিত মেয়েদের ক্ষেত্রে নিজের সব কিছু ছেড়ে শ্বশুরবাড়ির সব মানুষের সাথে প্রথম প্রথম মিলেমিশে থাকাটা অনেক কষ্টের হয়ে থা হতে পারে।কীভাবে সামলাবেন এই সম্পর্ক বদল? জেনে রাখুন কিছু সমাধানের উপায়।

স্বামীকে শ্বশুরবাড়ির অন্যান্যদের থেকে ভাগ করে নিন। তিনি আপনার সবচেয়ে কাছের মানুষ ।তােই বলে  কিন্তু স্বামীর পরিবারের অন্য পরিচয়গুলো ভুলে গেলেও চলবে না।

নতুন বিবাহিত মেয়েদের  দৈনন্দিন জীবনে নানা রকম সমস্য দেখা দিবে, তাই বলে আপনার বাবার বাড়ির কারোর সাথে শেয়ার করতে যাবেন না।এক্ষত্রে আপনার উচিত হবে শ্বশুরবাড়ির গুরুজনদের সরণাপন্ন হওয়া।এত করে তারা খুশি হবে।তাদের পরামর্দেশের মূল্য দিবেন।দেখবেন আপনাকে আরো বেশি আপন করে নিবে শ্বশুরবাড়ির লোকজন।

নতুন বিবাহিত মেয়েদের  নতুন শ্বশুরবাড়ির প্রত্যেকে আপনার মনমতো হবে এমন অাশা কখনোই করবেন না। কারণ এমন হওয়াটা স্বভাবিক না। এক একজন ব্যক্তি এক এক রকম। তবে কারো সাথে আপনার মতামত যদি না মেলে , তবে হঠাৎ করে রেগে যাওয়াটা হবে বোকামি।

নতুন বিবাহিত মেয়েরা মনে জোর রাখুন যে, শ্বশুরবাড়ির সবার সাথে সম্পর্ক ভালো করবেন। পরিবারের সবার প্রতি  যত্নশীল হয়ে উঠুন। আপনার উদ্দেশ্য হওয়া উচিত সবার মন জয় কার এবয় এটা প্রথম থেকেই শুরু করতে হবে।

নতুন বিবাহিত মেয়েরা সবার সাথে সম্পর্ক ভালো করার প্রয়াস করুন।রাতে যখন খাবার খাবেন, চেষ্টা করবেন সবাই একসাথে বসে খাবার খাওয়ার।খোবার খাওয়ার সময় ছোটখাট গল্প করুন, তবে সময় ও পরিস্বুথিতি বুঝে গল্প করবেন।এমন কিছু করবেন না যাতে সম্পর্ক ভালো করতে গিয়ে খারাপ হয়ে যায়।

শ্বশুরবাড়ির পরিবারের লোকজনের অভ্যন্তরীণ ব্যাপারে আপনার কোন পক্ষপাত্তিব না করাটাই বুদ্ধিমানের কাজ।কারো পক্ষ নিলে অন্য জনের চোখে আপনি খারাপ হয়ে যাবেন। আর একবার কারো অপ্রিয় হলে তার চোখে ভালো হওয়াটা খুবই কষ্টকর ব্যাপার।

শ্বশুরবাড়ির লোকজনদের যার যার পছন্দমত কাজ করে দিয়ে আপনি তাদের মন জয় করতে পারেন সহজেই। শ্বশুরের প্রয়োজনীয় কাগজ বা ফাইল পত্রটা একটু এগিয়ে দিন। শ্বাশুড়ীকে তার বাড়িরে কাজে সাহায্য করে তাদের মন জয় করতে পারেন সহজে।

নতুন বিবাহিত মেয়েরা সব সময় সতর্ক থাকবেন।কোন কাগ যেন সহজে ভুল না করে ফেলেন।কারণ আপনি নিজেই বুঝতে পারবেন যে, আপনার পিতার বাড়ি আর শ্বশুরবাড়ি এক নয়। পিতার বাড়িতে  পিতামাতা আপনার ভুল মাফ করবেন সহজে কিন্তু শ্বশুরবাড়িতে আপনি এই সুযোগের কথা চিন্তাই করতে পারবেন না।

মা বাবা আপনার যেকোন সমস্যা বুঝতে পারে, মান অভিমান বুঝে ভাঙ্গাতে পারে। শ্বশুরবাড়ির লোকজন আপনার সমস্যা না ও বুঝতে পারে। যাদি আপনি কোন সমস্যায় পড়েন তবে আপনার একান্ত আপনজন স্বমীকে সবকিছু খুলে বলুন। দেখবেন সব সমস্যা আ্স্তে ঠিক হয়ে যাবে।

আপনার ডক্টর সাইটটির একমাত্র উদ্দেশ্য আপনাদের সু্স্থ্য ও সুন্দর জীবনের।আপনাদের জীবনকে সুস্থ্য, সুন্দর ও সুখময় করার জন্য নিয়মিত ভিজিট করুন আপনার ডক্টর সাইটে।মনে না থাকলে আপনি সাইট আপনার ব্রাউজারে সেভ করে রাখুন।

আর একটা অনরোধ আমাদের পোষ্ট আপনাদের সামান্যতম উপকারে আসলে পোষ্টটি শেয়ার করবেন।

Tags:(Ignore reading) Newly-married women, Newly-married women couple, marriage, new marriage, maintain family after marriage, new married family, maintain new family after married
আপনার স্বাস্থ্য বিষয়ক যে কোন সমস্যার জন্য এখানে কমেন্ট করে জানান।তাছাড়া অপনারা কোন ধরণের পোষ্ট চান তাও জানাতে ভুলবেন না।ধন্যবাদ

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About সাদিয়া প্রভা

সাদিয়া প্রভা , ইন্ডিয়ার Apex Group of Institutions এর BBA এর ছাত্রী ছিলাম। বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিয়সক তথ্য নিয়ে লেখালেখি করি।

Check Also

মেয়েরা

যেসব ছেলেদের সবচেয়ে বেশি পছন্দ করে মেয়েরা

রসিক পুরুষরা মেয়েদের মন জয় করতে বেশ পটু হয়ে থাকেন। যেসব ছেলেদের ‘সেন্স অফ হিউমার’ …