cool hit counter

আমসত্ত্ব তৈরী করুন রোদে না দিয়েই মাত্র ৩টি সহজ ধাপে

আমসত্ত্ব
আমসত্ত্ব তৈরী করুন রোদে না দিয়েই মাত্র ৩টি সহজ ধাপে

দাদী-নানীদের হাতে আমসত্ত্ব কমবেশি সকলেই খেয়েছেন। আর আজকাল নিশ্চয়ই দোকান থেকে কিনে খান? অনেকেই মনে করেন, এই আমসত্ত্ব তৈরি অনেক ঝামেলার বিষয়। দিনের পর দিন রোদে শুকানোর যন্ত্রণা কে করবে? চলুন, আজ তাহলে শিখে নিই রোদে দেয়ার ঝামেলা ছাড়াই মাত্র ৩টি ধাপে আমসত্ত্ব তৈরির একটি অসাধারণ রেসিপি। এই এক রেসিপি দিয়ে আপনি দুটি ভিন্ন স্বাদের আমসত্ত্ব তৈরি করতে পারবেন। রেসিপি দিয়েছেন রুমানা বৈশাখী।
উপকরণ
১) আম চটকে নেয়া
( মিষ্টি আমসত্ত্ব খেতে চাইলে পাকা আম আঁটি ফেলে চটকে নেবেন। আর টক মিষ্টি খেতে চাইলে কাঁচা ও পাকা আম মিলিয়ে নেবেন। সেক্ষেত্রে কাঁচা আম সিদ্ধ করে আঁটি ফেলে চটকে নিতে হবে)
২) চিনি (যতখানি আম তার সম পরিমাণ চিনি। এক কাপ আম হলে ১ কাপ চিনি। তবে নিজের স্বাদ অনুযায়ী দেয়া যাবে)
৩) সরিষার তেল প্রয়োজনমত
প্রণালি
-আম চটকে নিন ভালো মত। তারপর ব্লেন্ডারে দিয়ে মিহি পেস্ট তৈরি করে নিন কোন পানি ছাড়া। আমে আঁশ থাকলে চালনি দিয়ে চেলে নেবেন।
-এবার একটি ভারি তলার কড়াইতে এই আম ও চিনি দিয়ে জ্বাল দিন। ঘন ঘন নাড়তে থাকুন। আম থকথকে হালুয়ার মত হয়ে গেলে নামিয়ে নিন।
-এবার একটি বাঁশের কুলা বা ডালায় সরিষার তেল মাখিয়ে নিন। তার ওপরে এই জ্বাল দেয়া থকথকে আম হাত দিয়ে লেপে দিন। তারপর এই কুলা বা ডালাকে রেখে দিন চুলার নিচে! আপনি চাইলে রোদে দিতে পারেন, তবে যাদের বাসায় রোদের দেয়া সমস্যা তারা চুলার নিচে রেখে দিলেও চমৎকার আমসত্ত্ব হবে। চাইলে ওভেনেও বেক করতে পারেন। ১৮০ ডিগ্রি তাপমাত্রায় বেক করতে পারেন শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত।
-আপনি চাইলে একটি লেয়ার শুকিয়ে গেলে ওপরে আরও একটি লেয়ার দিতে পারেন। এভাবে কয়েকটি করে নেয়ার দিলেও ভারতীয় আমসত্ত্ব গুলোর মত চমৎকার লেয়ার হবে। প্রত্যেকটি লেয়ার দেয়ার পরই ভালো করে শুকিয়ে নিতে হবে।
-শুকিয়ে গেলে তুলে ফ্রিজে বা এয়ার টাইট কৌটায় ভরে সংরক্ষণ করুন।

আপনার যে কোন স্বাস্থ্য বিষয়ক তথ্যের জানান দিতে আপনার ডক্টর রয়েছে আপনার পাশে।জীবনকে সুস্থ্য, সুন্দর ও সুখময় করার জন্য নিয়মিত ভিজিট করুন আপনার ডক্টর health সাইটে।মনে না থাকলে আপনি সাইট আপনার ব্রাউজারে সেভ করে রাখুন।ধন্যবাদ
সুত্রঃ প্রিয় লাইফ

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About সাদিয়া প্রভা

সাদিয়া প্রভা , ইন্ডিয়ার Apex Group of Institutions এর BBA এর ছাত্রী ছিলাম। বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিয়সক তথ্য নিয়ে লেখালেখি করি।