cool hit counter

গরমে স্বাস্থ্যকর জীবনযাপনের কিছু টিপস

স্বাস্থ্যকর
গরমে স্বাস্থ্যকর জীবনযাপনের কিছু টিপস

শীতকালের চেয়ে গরম কালটা মনোরম হলেও অনেক সময়েই প্রচণ্ড গা-জ্বালানো গরম পড়ে। বিশেষ করা আমাদের দেশের গরমকালটা একটু কষ্টকরই। তাই গরম কালে কীভাবে সুস্থ সবল ও স্বাস্থ্যকর জীবনযাপন করা যায় সেই উপায়গুলো জেনে রাখা আমাদের উচিত।
গরম কালের ক্রমবর্ধমান গরমের সাথে শরীরের তাপমাত্রাকে মানিয়ে নিতে হয় আর শরীর যদি সেটা মানিয়ে নিতে ব্যর্থ হয় তবেই আমরা অসুস্থ হয়ে পরি।তাই গরমের সময় যদি কোন কাজে অথবা বেড়ানোর জন্য কোথাও ভ্রমণ করতে হয় তবে অবশ্যই কিছু স্বাস্থ্য পরামর্শ মেনে চলা উচিত। আর এটা অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে যে পরিবারের সবাই এই অতিরিক্ত গরম মোকাবেলা করার ক্ষমতা আছে কিনা।যখন অসহ্য গরম থাকে তখন খুব প্রয়োজনীয় কাজ ছাড়া বাইরে না ঘুরাই উচিত।যদিও শরীরের বেশ শক্তিশালী নিজস্ব ঠাণ্ডা করার ব্যবস্থা রয়েছে তবুও সবকিছুরই তো সীমাবদ্ধতা রয়েছে। কারন শরীর অত্যাধিক গরম হয়ে গেলে হিট স্টোক হওয়ার সম্ভাবনা থাকতে পারে যার ফলে অনেক সময় মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে।
এখানে গরমে স্বাস্থ্যকর জীবনযাপনের কিছু উপায় জানাচ্ছি-
ঠাণ্ডা, আরামদায়ক পোশাক পরিধান-
গরমকালে আরামদায়ক সূতি পোশাক এবং মোজা পরলে তা তাপমাত্রা ও ঘাম প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। কারণ এই সময় অতিরিক্ত আঁটসাঁট পোশাক পরলে অস্বস্তির সৃষ্টি হবে।
হাল্কা খাবার গ্রহণ-
অবশ্যই এই দিকটি নিশ্চিত করতে হবে যে এই সময় হালকা ও স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া হচ্ছে। কম মশলাযুক্ত, প্রাকৃতিক ও কাঁচা খাবার খেতে হবে ঝাল তেল মশলাযুক্ত ভারী খাবারের পরিবর্তে।

হিট স্ট্রোক-
স্বাস্থ্যকর ভাবে থাকার আরো একটি উপায় হচ্ছে হিট স্ট্রোকের ব্যাপারে সাবধান থাকা। তাই তীব্র জ্বর, বমি, মাথা ব্যাথা ও দ্রুত হৃদস্পন্দন এর মতো যেকোনো একটি উপসর্গও যদি দেখা দেয় তবে অবশ্যই দ্রুত ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে।
বেশি পানি পান করা-
একমাত্র পানিই অতিরিক্ত তাপমাত্রা থেকে দেহকে রক্ষা করতে পারে। তাই গরমে বাইরের কোন কাজ বা ব্যায়াম করার সময় অবশ্যই বার বার পানি বা অন্য কোন তরল পানীয় পান করে দেহকে আর্দ্র রাখার ব্যবস্থা করতে হবে।
গরমে অসুস্থতা-
যদি দেখা যায় অতিরিক্ত ঘাম, মাথা ব্যাথা, মাথা ঘোরানো,বমি বমি ভাব, পেশীতে টান পরা ইত্যাদি লক্ষণ দেখা দিচ্ছে তাহলে দ্রুত ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে।
মধ্য দুপুরের তপ্ত সূর্য-
দিনের মধ্য ভাগে সূর্যের তাপ অনেক বেশি থাকে তাই খুব ভালো হয় যদি এই সময় এর থেকে নিজেকে বাঁচানো যায়। তাপমাত্রা যখন বেশি থাকে বাইরে না থেকে ভেতরে থাকাই উত্তম।
সানগ্লাসের ব্যবহার-
যদি সম্ভব হয় ভালো মানের একটি সানগ্লাস ব্যবহার করা উচিত যার ফলে চোখকে সূর্যের আলো থেকে রক্ষা করা সম্ভব হবে।
প্রতিরোধেই সুস্থতা, তাই প্রত্যেকেরই উচিত অসুস্থ হওয়ার পর সাবধান হওয়ার চেয়ে আগে সাবধান থেকে নিজেকে এবং সবাইকে সুস্থ ও স্বাস্থ্যকর  শরীর রাখার চেষ্টা করা।
লেখিকা
শওকত আরা সাঈদা(লোপা)
জনস্বাস্থ্য পুষ্টিবিদ
এক্স ডায়েটিশিয়ান,পারসোনা হেল্‌থ
খাদ্য ও পুষ্টিবিজ্ঞান(স্নাতকোত্তর)(এমপিএইচ)
তথ্য সূত্রঃ বোল্ডস্কাই

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About সাদিয়া প্রভা

সাদিয়া প্রভা , ইন্ডিয়ার Apex Group of Institutions এর BBA এর ছাত্রী ছিলাম। বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিয়সক তথ্য নিয়ে লেখালেখি করি।