cool hit counter

গ্রিন টি যোগ করুন আপনার স্কিন ও হেয়ার কেয়ার রেজিমেনে

গ্রিন টি এখন আমাদের প্রায় সবার কাছেই একটি সুপরিচিত নাম। চা গাছের সতেজ সবুজ পাতা রোদে শুকিয়ে তাওয়ায় সেঁকে গ্রিন টি প্রস্তুত করা হয়। এর রং হালকা হলদে সবুজ। এই চায়ে আছে পলিফেনল ও ফ্ল্যাভোনয়েড নামের দুটো অ্যান্টি অক্সিডেন্ট, যা চা তৈরির পরও অক্ষুন্ন থাকে।

গ্রিণ টি

গ্রিন টি – Green Tea

গ্রিন টি আমাদের শরীরকে সতেজ ও উৎফুল্ল রাখতে সাহায্য করে। এটি হৃদরোগ এবং ক্যান্সারের ঝুঁকিও কমায় । নিয়মিত গ্রিন টি পান করলে রক্তের খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকে এবং দেহের ওজন কমাতে সাহায্য করে। তাছাড়া স্মৃতিশক্তি বাড়াতে, রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে, হজমে সহায়তা করতে এবং অকালবার্ধক্যকে ও দূরে রাখে গ্রিন টি।

গ্রিন টি সেবনে কমতে পারে আপনার বাড়তি ওজন

এ তো গেল স্বাস্থ্য উপকারিতার কথা। এবার আসি ত্বক এবং চুলের যত্নে গ্রিন টি এর অনন্য ব্যবহারের প্রসঙ্গে । চলুন তাহলে দেখে নেয়া যাক আপনার স্কিন এবং হেয়ার কেয়ার রেজিমেনে কীভাবে গ্রিন টি যোগ করতে পারেন।

(১) স্কিন ব্রাইটেনিং মাস্ক

দুটো ব্যবহৃত গ্রিন টি ব্যাগ কেটে তার ভিতর থেকে গ্রিন টি বের করে নিন। এবার তার সাথে দেড় চা চামচ মধু আর দেড় চা চামচ লেবুর রস মিশান। এই মাস্কটি পুরো মুখে, গলায় লাগিয়ে নিন এবং ১৫-২০ মিনিট পর পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়বে এবং ব্রাইট দেখাবে।

পড়ুন  টি বিষয়ক কিছু তথ্য জেনে রাখুন

ঘরেই গ্রিন টি হ্যান্ড ক্রিম তৈরির কৌশল শিখে নিন ভিডিওসহ

(২) চোখের ডার্ক সার্কেল দূর করতে

দুটো ব্যবহৃত গ্রিন টি ব্যাগ ফ্রিজে রেখে দিন ঘণ্টাখানেকের জন্য। বের করে দু’চোখ বন্ধ করে দু’চোখের উপর রেখে রিল্যাক্সড মুডে শুয়ে থাকুন মিনিট বিশেক। এবার টি ব্যাগ সরিয়ে চোখেমুখে ঠাণ্ডা পানির ঝাপটা দিন। গ্রিনটিতে আছে অ্যান্টি অক্সিডেন্টস এবং ট্যানিন, যা ডার্ক সার্কেল দূর করতে সাহায্য করে। প্রতিদিন কমপক্ষে এক থেকে দুইবার এ পদ্ধতিটি ব্যবহার করুন।

(৩) অ্যান্টি এইজিং মাস্ক

৩ টেবিল চামচ টক দই, ১ চা চামচ গ্রিন টি গুঁড়ো, ১/৪ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো মিশিয়ে মুখ গলায় লাগিয়ে নিন। আধা ঘণ্টা পর ঈষদুষ্ণ পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। যদি স্কিন বেশি ড্রাই হয় তাহলে এই মাস্কের সাথে ১ টেবিল চামচ এক্সট্রা ভার্জিন কোকোনাট অয়েল যোগ করতে পারেন। গ্রিন টিতে থাকা পলিফেনল স্কিনের ক্ষতিকারক ফ্রি র‍্যাডিক্যালস-কে নিউট্রিলাইজ করে এবং স্কিন এইজিং প্রসেসের গতিকে কমিয়ে দেয়। ফলে এই প্যাক নিয়মিত ব্যবহারে ত্বকের কুঁচকানো ভাব কমবে, বলিরেখা কমবে এবং স্কিন টাইটেন করবে।

(৪) ব্রণ এবং ব্রণের দাগ কমাতে

এক কাপ ফুটন্ত গরম পানিতে একটি গ্রিন টি ব্যাগের মুখ কেটে গ্রিন টি টা ঢেলে পানিটা চুলায় রেখে শুকিয়ে নিন, এক কাপ পানি যখন ১/৪ কাপ হয়ে আসবে তখন চুলা নিভিয়ে দিন এবং ঐ চাটাকে ঠাণ্ডা হতে দিন। হালকা গরম অবস্থায় তাতে তুলোর বল ভিজিয়ে তার সাহায্যে ব্রণে আক্রান্ত স্থানে মিশ্রণটি লাগিয়ে নিন এবং ২০-৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। গ্রিন টি এর অ্যান্টি ব্যাক্টেরিয়াল উপাদান এবং অ্যান্টি ইনফ্ল্যামেটোরি উপাদান ব্রণ সারিয়ে তোলে এবং ব্যথা কমায়। এবং নিয়মিত ব্যবহারে ব্রণের দাগ ও আস্তে আস্তে কমে যায়।

পড়ুন  ম্যাট মেকাপ লুককে গ্লোয়ি করে তোলার ১২টি দারুণ উপায়

(৫) টোনার হিসেবে

সেনসিটিভ ত্বকের জন্য খুব ভালো টোনার এটা। ১ কাপ ফুটন্ত গরম পানিতে ২টা গ্রিন টি ব্যাগ রেখে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে রাখুন। ঠাণ্ডা হলে তাতে কয়েক ফোঁটা তিলের তেল মিশিয়ে একটা পরিষ্কার খালি স্প্রে বোতলে রেখে দিন। টোনার হিসেবে ব্যবহার করতে চাইলে মুখের কাছ থেকে ৭-৮ ইঞ্চি দূরত্বে রেখে সরাসরি স্প্রে করতে পারেন অথবা পরিষ্কার তুলোর বলের সাহায্যে মুখে ও লাগাতে পারেন।

(৬) রোদে পোড়া ত্বক সারাতে

গ্রিন টিতে উপস্থিত ট্যানিন, পলিফেলন এবং থিওব্রোমাইন উপাদানগুলো সূর্যের ক্ষতিকারক রশ্মিতে ত্বকের যে ড্যামেজ হয় সেটা থেকে ত্বককে সুরক্ষা দেয়। এক কাপ ফুটন্ত গরম পানিতে ১ টি গ্রিন টি ব্যাগ ডুবিয়ে ঠাণ্ডা হবার জন্য রেখে দিন।এরপর টি ব্যাগ তুলে সেটা আইসকিউব ট্রেতে করে ডীপ ফ্রিজে রেখে দিন। এবার বাইরে রোদ থেকে ফিরলে একটা গ্রিন টি আইসকিউব বের করে মুখে ঘষে নিন।সানট্যান দূর হবে এবং ত্বকের জ্বলুনি ও দূর হবে।

(৭) স্কিন এক্সফোলিয়েটিং স্ক্রাব তৈরিতে

২টা ব্যবহৃত গ্রিন টি ব্যাগের মুখ কেটে গ্রিন টি বের করে নিন। এবার তাতে দেড় টেবিল চামচ চিনি / ব্রাউন সুগার , এক চা চামচ এক্সট্রা ভার্জিন অলিভ অয়েল আর এক টেবিল চামচ মুলতানি মাটি মিশিয়ে নিন। এটা আপনি ফেইস এবং ফুল বডি স্ক্রাব হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন। নিয়মিত ব্যবহারে ত্বকের মৃতকোষ দূর হবে, স্কিনের ডীপ ক্নিনজিং হবে এবং স্কিন গ্লো করবে।

পড়ুন  সুন্দর হওয়ার অসাধারণ ১৯টি পরামর্শ !

(৮) চুল পড়া কমাতে এবং চুলের উজ্জ্বলতা বাড়াতে

৩ কাপ ফুটন্ত গরম পানিতে ৪টা গ্রিন টি ব্যাগ দিয়ে ঢেকে ঠাণ্ডা হবার জন্য রেখে দিন। এবার ঠাণ্ডা হলে চা টা একটা পরিষ্কার খালি স্প্রে বোতলে ঢেলে নিন। গোসলের আগে চুলের আগা-গোড়াতে ঐ চা টা স্প্রে করে নিন এবং আধা ঘণ্টা পর স্বাভাবিক নিয়মে চুল ধুয়ে নিন। নিয়মিত ব্যবহারে গ্রিন টি চুল পড়া কমাবে, চুলের ড্যামেজড ভাব দূর করবে এবং চুলকে শাইনি করে তুলবে।

তাহলে আজ থেকেই প্রতিদিন অন্ততপক্ষে এক কাপ করে গ্রিন টি পানের অভ্যাস গড়ে তুলুন। এবং সেই সাথে স্কিন আর হেয়ার কেয়ার রুটিনে ও গ্রিন টি যোগ করুন আর চুল ও ত্বককে করে তুলুন হেলদি, শাইনি এবং গ্লোয়িং।

Stay Beautiful, Stay Gorgeous.

ছবি – হ্যালোম্যাগাজিন ডট কম , ভাইরালস্পট ডট কম

লিখেছেন -ফারহানা প্রীতি

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About পূর্ণিমা তরফদার

আমি পূর্ণিমা তরফদার আপনার ডক্টরের নতুন রাইটার। আশাকরি আপনার ডক্টরের নিয়ামিত পাঠকরা আমাকে সাদরে গ্রহণ করবেন ও আমার পোষ্টগুলো পড়বেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *