cool hit counter

স্তন ছোট করার কিছু কার্যকরী উপায়


স্তন ছোট করার কিছু কার্যকরী উপায়
স্তন ছোট করার কিছু কার্যকরী উপায়



best breasts এর আশাবাদী প্রতিটি মেয়েই।কারো কারো দৈহিক গঠন এতাই সুন্দর যে আপনা অপনিই  সুন্দর ও আকর্ষনীয় স্তনের অধিকারী হয়।তবে অধিকাংশ নারীর এমনটি হয় না।কষ্ট করে অর্জন করতে হয়।সাধারণত মেয়েদের স্তনের সাইজ ৩৪/৩৬ তবে ৩৮ হলেও সমস্যা নাই।প্রাকৃতিকভাবে ব্রেস্ট বড় করার উপায় আমরা আগের পোষ্টে আলোচনা করেছি আজকে যে টিপসটি নিয়ে অালোচান হবে সেটি বড় স্তন ছোট করা যায় কীভাবে তার উপর।

১। ওজন নিয়ন্ত্রণ:
মেয়েদের স্তনের ৯০% ই ফ্যাট।যদি এই ফ্যাটের সিংহভাগ কমানো যায় তবে স্তনের অঅকার ছোট করা সম্ভব।তবে শুধু স্তনের ফ্যাট কামেনা সম্বভ নয়। তাই নজর দিতে হবে সম্পূর্ণ শরীরের উপর।এক্ষত্রে ফিগার নিয়ন্ত্রন করাই হবে শ্রেয়।

২। অস্বাস্থ্যকর খাবার বর্জনঃ
বাইরের অস্স্থ্যকর খাবার বর্জন করতে হবে।সাথে সাথে চিনি জাতীয় খাবার ও বর্জন করতে হবে যেমন:জুস, আইসক্রিম, চিপস,  সফট ড্রিংক্স ও বিভিন্ন তেলে ভাজা খাবার।

৩। পুষ্টিঃ
সাস্থ্যসম্মত খাবার বেশি বেশি খেতে হবে। বিশেষ করে শাবসবজি খাদ্য তালিকায় কমন রাখতে হবে।লো ক্যালরীযুক্ত খাবার বেশি বেশি খাওয়ার চেষ্টা করুন।ক্যালরী কমে গেলে অতিরিক্ত ওজন কেমে যেতে সাহায্য করবে।

পড়ুন  ব্রেস্ট ইমপ্ল্যান্ট সম্পর্কে কিছু জানা-অজানা বিষয় জেনে নিন

৪। ব্যায়ামঃ
অতিরিক্ত ফ্যাট কমাতে ব্যায়ামের বিকল্প কিছু নেই। নিয়মিত ব্যায়ামে করতে হবে।ব্যায়ামের মাধ্যমে পেশী নতুনভাবে সুঘঠিত করা সম্ভব।আর পেশী সুগঠিত হলে স্তন ও সুগঠিত ও ছোট হবে।

৫। এ্যারোবিক্সঃ
ব্রেস্ট ছোট করতে প্রতিদিন না পারেন সপ্তাহে অন্তত ৫-৬  দিন এ্যারোবিক্স করুন। তাহলে শরীরের অতিরিক্ত ফ্যাট কমে যাবে আর স্তন ছোট হবে।

৬। ডায়েটঃ
স্তন ছোট করতে ডায়েড নিয়ন্ত্রন কার উচিত।ডায়েড কারা জন্য শাক-সবজি ও রুটি খেতে হবে।অঅর বাটার,চিপস, বার্গার , আইসক্রিম বর্জন করতে হবে।

৭। রিডাকশন ম্যামোপ্লাস্টি সার্জারীঃ

উপরোক্ত পদ্ধতিগুলো অবলম্বন করার পরও যদি আশানুরূপ ফল না পান, তাহলে রিডাকশন ম্যামোপ্লাস্টি সার্জারী করুন।মনে রাখবেন রিডাকশন ম্যামোপ্লাস্টি সার্জারীব্যয়বহুল। রিডাকশন ম্যামোপ্লাস্টি সার্জারী হচ্ছে অস্বাভাবিক বড় স্তনকে ছোট করে দেহের সাথে মানানসই আকার দেয়া। তবে এধরণের সার্জারী তাদেরই করা উচিত যাদের ব্রেস্ট অস্বাভাবিক। তবে এধরণের সার্জারী করার আগে অবশ্যই এ বিষয়ে কোন অভিজ্ঞ ডাক্তার বা সার্জনের সাথে পরামর্শ করে নেয়া উচিত।

এছাড়া জামা-কাপড় এবং জুয়েলারীর মাধ্যমেও আপনার বড় ব্রেস্টকে ছোট দেখাতে পারেন, যদি আপনি ব্রেস্ট ছোট করার ঝামেলা করতে না চান। এ পদ্বতিটি তাদের জন্য যারা নিজেদের ব্রেস্ট ছোট দেখাতে পছন্দ করেন। উপায়গুলো নিম্নে দেয়া হলোঃ

পড়ুন  স্তন সুন্দর ও আকর্ষণীয় করবেন কীভাবে?

১। মিনিমাইজিং ব্রা ব্যবহারঃ
যাদের ব্রেস্ট বড়, তারা মিনিমাইজিং ব্রা ব্যবহার করতে পারেন। এর বিভিন্ন ডিজাইন রয়েছে। আপনার ব্রেস্টের মাপ অনুযায়ী ব্রা কিনুন। এ ধরণের ব্রা পরলে আপনার ব্রেস্টকে অন্তত ২ সাইজ কম দেখাবে। এছাড়া মিনিমাইজিং ব্রা পরতে আরামদায়ক এবং ব্রেস্টের সাইজ কম দেখানোর অন্যতম উপায়।

২। অন্যান্য ব্রা এর মাধ্যমে ব্রেস্ট ছোট দেখানোঃ
মিনিমাইজিং ব্রা ছাড়াও অন্যান্য ব্রা এর মাধ্যমেও বড় ব্রেস্টকে ছোট দেখানো যায়। সেক্ষেত্রে পাতলা ধরণের দুটি ব্রা একত্রে পরিধান করুন। এক্ষেত্রে কাপড় বা পাতলা ফোম জাতীয় সঠিক কাপ সাইজের ব্রা পরতে পারেন। এতে আপনার ব্রেস্ট টানটান থাকবে এবং আপনার ব্রেস্ট ছোট দেখাবে। এছাড়া স্পোর্টস ব্রা পরতে পারেন। এতেও ব্রেস্ট ছোট দেখাবে। ভুলেও টাইট ব্রা অথবা ব্লাউজ পরবেন না।

৩। জামা-কাপড় এবং জুয়েলারীর মাধ্যমে ব্রেস্ট ছোট দেখানোঃ
জামা-কাপড়ের ক্ষেত্রে অবশ্যই লম্বা এবং ঢিলেঢালা জামা পরতে পারেন। এছাড়া গাঢ় রংয়ের জামা পরতে পারেন। এতে ব্রেস্টের প্রকৃত মাপ বোঝা যায় না। ব্রেস্টের অধিকাংশ দেখা যায় এমন জামা পরবেন না। এছাড়া বড় গলার ডিজাইন করা এবং শর্ট জামাও পরবেন না। শর্ট জামা পরলে ব্রেস্ট বড় দেখায়। আর জুয়েলারীর ক্ষেত্রে এমন কোন জুয়েলারী পরবেন না যা ব্রেস্টের মাঝখানে এসে ঝুলে থাকে। চাইলে গলায় থাকবে এমন ছোটখাট কোন জুয়েলারী পরুন।

পড়ুন  ব্রেস্ট Breast এর শেইপ ঠিক রাখার উপায়

অাশাকরি উপরের পদ্ধতি অবলম্বন করলে অঅপনার ব্রেস্ট হবে সুস্থ্য, সুন্দর ও ছোট আকারের।অামদের টিপসগুলো আপনাদের সামন্যতম উপকারে আসলে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না।অার অাপনার ডক্টর সাইটটি মনে রাখুন সবসময়।সুস্থ্য সুন্দর জীবন গড়ুন।ধণ্যবাদ

আপনার স্বাস্থ্য বিষয়ক যে কোন সমস্যার জন্য এখানে কমেন্ট করে জানান।তাছাড়া অপনারা কোন ধরণের পোষ্ট চান তাও জানাতে ভুলবেন না।ধন্যবাদ

ফেসবুক কমেন্ট

comments

About সাদিয়া প্রভা

সাদিয়া প্রভা , ইন্ডিয়ার Apex Group of Institutions এর BBA এর ছাত্রী ছিলাম। বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিয়সক তথ্য নিয়ে লেখালেখি করি।