cool hit counter

এই ৭টি প্রসাধনী ফ্রিজে সা রাখলে কি হয় জেনে নিন

প্রসাধন নারীদের অন্যতম অনুষঙ্গ। প্রত্যেক নারী প্রসাধনী ব্যবহার করতে পছন্দ করেন। কাজল, লিপস্টিক, ফেসপাউডার নারীদের নিত্য সঙ্গী। কিন্তু আপনার পছন্দের প্রসাধনীর যত্ন ঠিকমত করছেন তো? একটুখানি যত্ন আপনার শখের পণ্যগুলোর মেয়াদ বাড়িয়ে দেবে বহুগুণ। কিছু প্রসাধনী আছে যা ফ্রিজে রাখা ভালো এবং নিরাপদ। জানতে চান কোন পণ্যগুলো? তাহলে জেনে নিন।

১। পারফিউম

পারফিউম সাধারণত ঠান্ডা, শুকনো স্থানে রাখা ভালো। এটি ফ্রিজে রাখুন। এতে পারফিউম দীর্ঘদিন ভালো থাকবে।

২। আই ক্রিম

চোখের নিচের কালি, চোখের চারপাশে বলিরেখা দূর করতে আই ক্রিম ব্যবহার করা হয়। ঠান্ডা আই ক্রিম চোখের জন্য ভালো। আইক্রিম ফ্রিজে রাখুন, তারপর ব্যবহার করুন। এটি চোখের ফোলা ভাব দূর করে রক্ত চলাচল বৃদ্ধি করবে।

৩। লিপস্টিক

গরমে গলে যাওয়ার প্রবণতা বেশি থাকে লিপস্টিকের। লিপস্টিকের শেইপ ধরে রাখতে এটি ফ্রিজে রাখুন। এটি লিপস্টিক গলে যাওয়ার প্রবণতা হ্রাস করে তারসাথে এর ময়শ্চারাইজ ধরে রাখে দীর্ঘসময়।

৪। ফেসিয়াল মাস্ক

ফেসিয়াল মাস্ক যেসকল উপাদান দিয়ে তৈরি করা হয় তার অধিকাংশ ঘরের তাপমাত্রা নষ্ট হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। দীর্ঘদিন ফেসিয়াল মাস্ক ব্যবহার করতে চাইলে ফ্রিজে রাখুন। এতে মাস্কের গুণাবলী অনেকদিন পর্যন্ত ভালো থাকবে।

৫। অরগানিক পণ্য

আপনি যদি অরগানিক পণ্য ব্যবহার করে থাকেন, তবে অব্যশই তা ফ্রিজে সংরক্ষণ করুন। অধিকাংশ অরগানিক এবং হোমমেড পণ্যে প্রিজারভেটিভ দেওয়া থাকে না। সাধারণত অরগানিক পণ্যের মেয়াদ খুব বেশিদিন থাকে না। মেয়াদের মধ্যে পণ্যের মান অটুট রাখতে এটি ফ্রিজে সংরক্ষণ করুন।

৬। নেইলপলিশ

শুনতে অবাক লাগলেও দীর্ঘদিন নেইলপলিশের রং ধরে রাখতে চাইলে এটি ফ্রিজে রাখুন। এতে নেইলপলিশের রং যেমন সুন্দর থাকবে সাথে এর গন্ধ এবং মান থাকবে অটুট।

৭। ভিটামিন সি সমৃদ্ধ পণ্য

ভিটামিন সি সমৃদ্ধ পণ্য অব্যশই ফ্রিজে রাখুন। ভিটামিন সি, রেটিনোল, পেপটিডেস সমৃদ্ধ উপাদান পণ্য ঠান্ডা স্থানে রাখা উচিত। তাপের কারণে এইসকল পণ্যের মোলিকিউর নামক উপাদান নষ্ট হয়ে পণ্যের কার্যকারিতা দ্রুত নষ্ট করে দেয়।

সূত্র: বোল্ডস্কাই

 

ফেসবুক কমেন্ট

comments

পড়ুন  বিস্ময়কর দু’মুখো গরু, পড়ুন বিস্তারিত !

About সাদিয়া প্রভা

সাদিয়া প্রভা , ইন্ডিয়ার Apex Group of Institutions এর BBA এর ছাত্রী ছিলাম। বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিয়সক তথ্য নিয়ে লেখালেখি করি।